নৌকায় আনন্দভ্রমণ, নিখোঁজ দুই শিক্ষক
jugantor
নৌকায় আনন্দভ্রমণ, নিখোঁজ দুই শিক্ষক

  ফরিদপুর ব্যুরো  

২৮ আগস্ট ২০২১, ২১:১৩:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বৈশ্বিক মহামারিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বুধবার নৌকাযোগে আনন্দভ্রমণে বের হন ফরিদপুরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১৫ জন শিক্ষক। কিন্তু তাদের বহন করা ইঞ্জিনচালিত ট্রলারটি তিন নম্বর জেটি এলাকায় গিয়ে ডুবে যায়।

এ সময় ১৩ শিক্ষক ও মাঝিকে উদ্ধার করা হলেও ফরিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো.আলমগীর হোসেন ও সারদা সুন্দরী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আজমল হোসেনকে তিন দিন পেরিয়ে গেলেও উদ্ধার করা যায়নি।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো.আলিমুজ্জামান জানান, নৌকাডুবির খবর পেয়ে বুধবার থেকেই উদ্ধার তৎপরতা শুরু করা হয়। এখনো তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। নৌপুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সমন্বয়ে কয়েকটি টিম নদীতে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে।

উল্লেখ্য, বুধবার ১৫ শিক্ষকের একটি দল ফরিদপুরের সদর উপজেলার খলিল মণ্ডলের হাট এলাকা থেকে ট্রলারযোগে আনন্দভ্রমণে বের হয়। এ দিন বিকালে সিএন্ডবি ঘাট এলাকায় পৌঁছে যাত্রাবিরতি শেষে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে ফের যাত্রা করে।

কিন্তু ট্রলারের ইঞ্জিনে ত্রুটি দেখা দিলে স্রোতের তোড়ে ঘাট এলাকাতেই ডুবে যায়। এ সময় ১৫ শিক্ষক ও মাঝিসহ ১৬ জনের মধ্যে ১৪ জন স্থানীয়দের সহযোগিতায় তীরে উঠতে সক্ষম হলেও দুই শিক্ষককে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

নৌকায় আনন্দভ্রমণ, নিখোঁজ দুই শিক্ষক

 ফরিদপুর ব্যুরো 
২৮ আগস্ট ২০২১, ০৯:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বৈশ্বিক মহামারিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বুধবার নৌকাযোগে আনন্দভ্রমণে বের হন ফরিদপুরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১৫ জন শিক্ষক। কিন্তু তাদের বহন করা ইঞ্জিনচালিত ট্রলারটি তিন নম্বর জেটি এলাকায় গিয়ে ডুবে যায়।

এ সময় ১৩ শিক্ষক ও মাঝিকে উদ্ধার করা হলেও ফরিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো.আলমগীর হোসেন ও সারদা সুন্দরী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আজমল হোসেনকে তিন দিন পেরিয়ে গেলেও উদ্ধার করা যায়নি। 

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো.আলিমুজ্জামান জানান, নৌকাডুবির খবর পেয়ে বুধবার থেকেই উদ্ধার তৎপরতা শুরু করা হয়। এখনো তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। নৌপুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সমন্বয়ে কয়েকটি টিম নদীতে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে।

উল্লেখ্য, বুধবার ১৫ শিক্ষকের একটি দল ফরিদপুরের সদর উপজেলার খলিল মণ্ডলের হাট এলাকা থেকে ট্রলারযোগে আনন্দভ্রমণে বের হয়। এ দিন বিকালে সিএন্ডবি ঘাট এলাকায় পৌঁছে যাত্রাবিরতি শেষে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে ফের যাত্রা করে।

কিন্তু ট্রলারের ইঞ্জিনে ত্রুটি দেখা দিলে স্রোতের তোড়ে ঘাট এলাকাতেই ডুবে যায়। এ সময় ১৫ শিক্ষক ও মাঝিসহ ১৬ জনের মধ্যে ১৪ জন স্থানীয়দের সহযোগিতায় তীরে উঠতে সক্ষম হলেও দুই শিক্ষককে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন