বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে আটক আরেক নেতা 
jugantor
বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে আটক আরেক নেতা 

  লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি  

২৯ আগস্ট ২০২১, ২০:৪৯:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলের লোহাগড়ায় বিএনপির আভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে উপজেলা বিএনপির আহবায়ককে কুপিয়ে আহত করেছে অপর পক্ষ। আহতকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব টিপু সুলতানকে আটক করেছে। রোববার দুপুরে উপজেলার লোহাগড়-লাহুড়িয়া সড়কের মরনমোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

দলীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলা বিএনপি দুটি ধারায় বিভক্ত। এর একটি পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জিএম নজরুল ইসলাম এবং অপর পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছে উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব টিপু সুলতান। দলের বিভিন্ন সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

সম্প্রতি বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি গঠন করাকে কেন্দ্র করে বিরোধ আরও চরমে উঠে। রোববার দুপুরে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ও লাহুড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জিএম নজরুল ইসলাম (৬৪) মোটরসাইকেলযোগে লাহুড়িয়া থেকে লোহাগড়ায় আসার পথে মরিচপাশার মরনমোড় এলাকায় পৌঁছালে টিপু সুলতানের নেতৃত্বে উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব আহাদুজ্জামান বাটু, মল্লিকপুর ইউনিয়ন বিএনপির সম্পাদক মফিকুর রহমান, জয়পুর ইউনিয়ন বিএনপির সম্পাদক লিটুসহ ১০-১২ জন নজরুলের মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়।

পরে এলাকাবাসী আহত জিএম নজরুল ইসলামকে উদ্ধার করে প্রথমে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব টিপু সুলতানকে আটক করা হয়েছে। জড়িত অন্যদেরও আটকের চেষ্টা চলছে।

বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে আটক আরেক নেতা 

 লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি 
২৯ আগস্ট ২০২১, ০৮:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলের লোহাগড়ায় বিএনপির আভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে উপজেলা বিএনপির আহবায়ককে কুপিয়ে আহত করেছে অপর পক্ষ। আহতকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব টিপু সুলতানকে আটক করেছে। রোববার দুপুরে উপজেলার লোহাগড়-লাহুড়িয়া সড়কের মরনমোড় এলাকায় এ ঘটনা  ঘটে। 

দলীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলা বিএনপি দুটি ধারায় বিভক্ত। এর একটি পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জিএম নজরুল ইসলাম এবং অপর পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছে উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব টিপু সুলতান। দলের বিভিন্ন সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। 

সম্প্রতি বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি গঠন করাকে কেন্দ্র করে বিরোধ আরও চরমে উঠে। রোববার দুপুরে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ও লাহুড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জিএম নজরুল ইসলাম (৬৪) মোটরসাইকেলযোগে লাহুড়িয়া থেকে লোহাগড়ায় আসার পথে মরিচপাশার মরনমোড় এলাকায় পৌঁছালে টিপু সুলতানের নেতৃত্বে উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব আহাদুজ্জামান বাটু, মল্লিকপুর ইউনিয়ন বিএনপির সম্পাদক মফিকুর রহমান, জয়পুর ইউনিয়ন বিএনপির সম্পাদক লিটুসহ ১০-১২ জন নজরুলের মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়। 

পরে এলাকাবাসী আহত জিএম নজরুল ইসলামকে উদ্ধার করে প্রথমে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব টিপু সুলতানকে আটক করা হয়েছে। জড়িত অন্যদেরও আটকের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন