আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে জায়গা দখল!
jugantor
আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে জায়গা দখল!

  নড়াইল প্রতিনিধি  

৩১ আগস্ট ২০২১, ১৯:২২:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইল সদর উপজেলার মুলিয়ায় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সাইনবোর্ড দিয়ে অন্যের জায়গা দখল করে ব্যবসা চালানো হচ্ছে। দখলকারীরা দোকান ঘর তুলে পাট ও মাছের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জায়গার মালিক মুলিয়া ইউনিয়নের বড়েন্দার গ্রামের মোহনলাল আদালতের রায় নিয়ে এলেও দখলবাজরা জায়গা ছাড়ছেন না।

মঙ্গলবার সরেজমিন গেলে স্থানীয়রা জানান, মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বিপুল সিকদার ও মৎস্যচাষী দীপক রায় মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে মোহনলালের মুলিয়া বাজারের গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে নিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, নামমাত্র অফিস করে বিপুল সিকদার ও দীপক রায় নিজস্ব লোকজন নিয়ে ওই ঘরে ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন।

জায়গার মালিক মুলিয়া ইউনিয়নের বড়েন্দার গ্রামের ভুক্তভোগী মোহনলাল জানান, জোর করে আওয়ামী লীগ অফিসের সাইনবোর্ড দিয়ে তার জায়গা দখল করে রেখেছে। আদালতের রায় পাওয়া সত্ত্বেও জায়গা ছাড়ছেন না।

মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বিপুল সিকদার জানান, ওই জায়গার মালিক মুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ। ইউপি চেয়ারম্যান থাকাকালে তিনি ওই জায়গা দীপক কুমার রায়ের নামে বন্দোবস্ত দেন। তারপর সেখানে ঘর তোলেন।

দীপক কুমার রায় জানান, তিনি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে নিয়মতান্ত্রিকভাবে জায়গা বরাদ্দ নিয়ে ঘর করেছেন।

মুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ অধিকারী জানান, ওই জায়গা ইউনিয়ন পরিষদের নয়। বিপুল সিকদার ও দীপক রায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে ব্যক্তি মালিকানা জায়গা দখল করেছেন। এ নিয়ে আদালত মোহনলালের পক্ষে রায় দিয়েছেন। কিন্তু রায় অমান্য করে আওয়ামী লীগের অফিস বানিয়ে জায়গা দখল করে রাখা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে জায়গা দখল!

 নড়াইল প্রতিনিধি 
৩১ আগস্ট ২০২১, ০৭:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইল সদর উপজেলার মুলিয়ায় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সাইনবোর্ড দিয়ে অন্যের জায়গা দখল করে ব্যবসা চালানো হচ্ছে। দখলকারীরা দোকান ঘর তুলে পাট ও মাছের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জায়গার মালিক মুলিয়া ইউনিয়নের বড়েন্দার গ্রামের মোহনলাল আদালতের রায় নিয়ে এলেও দখলবাজরা জায়গা ছাড়ছেন না।

মঙ্গলবার সরেজমিন গেলে স্থানীয়রা জানান, মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বিপুল সিকদার ও মৎস্যচাষী দীপক রায় মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে মোহনলালের মুলিয়া বাজারের গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে নিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, নামমাত্র অফিস করে বিপুল সিকদার ও দীপক রায় নিজস্ব লোকজন নিয়ে ওই ঘরে ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন।

জায়গার মালিক মুলিয়া ইউনিয়নের বড়েন্দার গ্রামের ভুক্তভোগী মোহনলাল জানান, জোর করে আওয়ামী লীগ অফিসের সাইনবোর্ড দিয়ে তার জায়গা দখল করে রেখেছে। আদালতের রায় পাওয়া সত্ত্বেও জায়গা ছাড়ছেন না।

মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বিপুল সিকদার জানান, ওই জায়গার মালিক মুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ। ইউপি চেয়ারম্যান থাকাকালে তিনি ওই জায়গা দীপক কুমার রায়ের নামে বন্দোবস্ত দেন। তারপর সেখানে ঘর তোলেন।

দীপক কুমার রায় জানান, তিনি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে নিয়মতান্ত্রিকভাবে জায়গা বরাদ্দ নিয়ে ঘর করেছেন।

মুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ অধিকারী জানান, ওই জায়গা ইউনিয়ন পরিষদের নয়। বিপুল সিকদার ও দীপক রায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে ব্যক্তি মালিকানা জায়গা দখল করেছেন। এ নিয়ে আদালত মোহনলালের পক্ষে রায় দিয়েছেন। কিন্তু রায় অমান্য করে আওয়ামী লীগের অফিস বানিয়ে জায়গা দখল করে রাখা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন