যুবলীগ নেতাসহ ৬ জনকে কুপিয়ে আহত
jugantor
যুবলীগ নেতাসহ ৬ জনকে কুপিয়ে আহত

  বরগুনা ও বরগুনা (দক্ষিণ) প্রতিনিধি   

৩১ আগস্ট ২০২১, ১৯:২৩:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আবু হানিফ খোকনসহ ৬ জনকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার আমজেদ মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবারবরগুনা প্রেসক্লাবেসংবাদ সম্মেলন করেছেন আহত যুবলীগ নেতা আবু হানিফ খোকনের বাবা মো. ইউনুস মৃধা।

আহতরা হলেন- সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আবু হানিফ খোকন ৩৫), সালমা (৪৫), নাজমা (৩২), রীতা (২৫), রাশিদা (৪৫) ও রাজিন (১৮)। তাদেরকেহাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং পানি ব্যবস্থাপনা কমিটির ঋণ পরিশোধ নিয়ে বিরোধের জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাত ১১টার দিকে খোকন ও তার বাবা ইউনুস মৃধা এবং তাদের কয়েকজন আত্মীয় আমজেদ মার্কেট সংলগ্ন ভগ্নিপতির বাড়িতে যাচ্ছলেন। এ সময়বাড়ির দরজায় আটকিয়ে মামুন, নাঈম, ফোরকান, দেলোয়ার, নজরুলসহ ১০-১৫ জন রামদা দিয়েতাদেরকে কোপায়।

খোকনের বাবা ইউনুস মৃধা বলেন, বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং পানি ব্যবস্থাপনা সমিতি থেকে হামলাকারীরা কয়েক লাখ টাকা ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ না করার খোকনের সঙ্গে তাদের বিরোধ চলছিল।

এ বিষয়ে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিকুল ইসলাম বলেন, তিনি নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে বরগুনার সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আবু হানিফ খোকনসহ তার পরিবারের ৬ জনকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বরগুনা প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন করেন আহত যুবলীগ নেতা আবু হানিফ খোকনের বাবা মো. ইউনুস মৃধা।

যুবলীগ নেতাসহ ৬ জনকে কুপিয়ে আহত

 বরগুনা ও বরগুনা (দক্ষিণ) প্রতিনিধি  
৩১ আগস্ট ২০২১, ০৭:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আবু হানিফ খোকনসহ ৬ জনকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে। 

সোমবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার আমজেদ মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আহত যুবলীগ নেতা আবু হানিফ খোকনের বাবা মো. ইউনুস মৃধা।

আহতরা হলেন- সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আবু হানিফ খোকন ৩৫), সালমা (৪৫), নাজমা (৩২), রীতা (২৫), রাশিদা (৪৫) ও রাজিন (১৮)। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং পানি ব্যবস্থাপনা কমিটির ঋণ পরিশোধ নিয়ে বিরোধের জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাত ১১টার দিকে খোকন ও তার বাবা ইউনুস মৃধা এবং তাদের কয়েকজন আত্মীয় আমজেদ মার্কেট সংলগ্ন ভগ্নিপতির বাড়িতে যাচ্ছলেন। এ সময় বাড়ির দরজায় আটকিয়ে মামুন, নাঈম, ফোরকান, দেলোয়ার, নজরুলসহ ১০-১৫ জন রামদা দিয়ে তাদেরকে কোপায়। 

খোকনের বাবা ইউনুস মৃধা বলেন, বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং পানি ব্যবস্থাপনা সমিতি থেকে হামলাকারীরা কয়েক লাখ টাকা ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ না করার খোকনের সঙ্গে তাদের বিরোধ চলছিল।

এ বিষয়ে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিকুল ইসলাম বলেন, তিনি নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে বরগুনার সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আবু হানিফ খোকনসহ তার পরিবারের ৬ জনকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বরগুনা প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন করেন আহত যুবলীগ নেতা আবু হানিফ খোকনের বাবা মো. ইউনুস মৃধা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন