তরুণীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ হয়ে সাংবাদিক স্বামীকে কোপানোর অভিযোগ
jugantor
তরুণীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ হয়ে সাংবাদিক স্বামীকে কোপানোর অভিযোগ

  যুগান্তর প্রতিবেদন, বরগুনা  

৩১ আগস্ট ২০২১, ২১:৫৪:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘদিন ধরে বিয়ে ও প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হওয়ার পর তরুণীর সাংবাদিক স্বামী মাসুম বিল্লাহকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার ভোরে সদর উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত সাংবাদিককে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মাসুম বিল্লাহ বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য এবং ঢাকার একটি দৈনিকে কাজ করেন।

জানা যায়, আহত মাসুম বিল্লাহর স্ত্রী শারমিন জাহান রাজমিনকে দীর্ঘদিন ধরে বিয়ে ও প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হয় একই এলাকার মাহবুবুল আলম পনুর ছেলে শহিদুল ইসলাম সেলিম। পরে সাংবাদিক মাসুমের সঙ্গে শারমিনের বিয়ে হয়। এতে সেলিম ক্ষুব্ধ হয়ে শারমিনের স্বামীর ওপর প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠে।

মঙ্গলবার ভোরে মাসুম ফজরের নামাজ পড়ার জন্য শ্বশুরবাড়ির পুকুরে অজু করতে গেলে বখাটে সেলিম ও কয়েকজন সন্ত্রাসী সাংবাদিক মাসুম বিল্লাহকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। মাসুমের চিৎকারে আত্মীয়স্বজন ও স্ত্রী ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মাসুম বিল্লাহ বলেন, সেলিম ও তার দলবল নিয়ে হঠাৎ আমাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেছে। আমি এখন অসুস্থ। এ বিষয়ে থানায় মামলা করব।

এদিকে এ ঘটনার পর থেকে সেলিম পলাতক রয়েছে। মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় এ বিষয়ে তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বরগুনা থানার ওসি কেএম তারিকুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে থানায় কেউ মামলা করতে আসেনি। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

তরুণীকে বিয়ে করতে ব্যর্থ হয়ে সাংবাদিক স্বামীকে কোপানোর অভিযোগ

 যুগান্তর প্রতিবেদন, বরগুনা 
৩১ আগস্ট ২০২১, ০৯:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘদিন ধরে বিয়ে ও প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হওয়ার পর তরুণীর সাংবাদিক স্বামী মাসুম বিল্লাহকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার ভোরে সদর উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত সাংবাদিককে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মাসুম বিল্লাহ বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য এবং ঢাকার একটি দৈনিকে কাজ করেন।
 
জানা যায়, আহত মাসুম বিল্লাহর স্ত্রী শারমিন জাহান রাজমিনকে দীর্ঘদিন ধরে বিয়ে ও প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হয় একই এলাকার মাহবুবুল আলম পনুর ছেলে শহিদুল ইসলাম সেলিম। পরে সাংবাদিক মাসুমের সঙ্গে শারমিনের বিয়ে হয়। এতে সেলিম ক্ষুব্ধ হয়ে শারমিনের স্বামীর ওপর প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠে।

মঙ্গলবার ভোরে মাসুম ফজরের নামাজ পড়ার জন্য শ্বশুরবাড়ির পুকুরে অজু করতে গেলে বখাটে সেলিম ও কয়েকজন সন্ত্রাসী সাংবাদিক মাসুম বিল্লাহকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। মাসুমের চিৎকারে আত্মীয়স্বজন ও স্ত্রী ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মাসুম বিল্লাহ বলেন, সেলিম ও তার দলবল নিয়ে হঠাৎ আমাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেছে। আমি এখন অসুস্থ। এ বিষয়ে থানায় মামলা করব।

এদিকে এ ঘটনার পর থেকে সেলিম পলাতক রয়েছে। মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় এ বিষয়ে তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বরগুনা থানার ওসি কেএম তারিকুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে থানায় কেউ মামলা করতে আসেনি। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন