শরণখোলায় ২ ডেঙ্গি রোগী শনাক্ত
jugantor
শরণখোলায় ২ ডেঙ্গি রোগী শনাক্ত

  শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি  

৩১ আগস্ট ২০২১, ২২:৩৫:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

বাগেরহাটের শরণখোলায় দুইজন ডেঙ্গি রোগী শনাক্ত হয়েছে। তারা হলেন উপজেলার তালতলী গ্রামের আবু জাফরের মেয়ে মারুফা আক্তার (২০) এবং ঢাকা থেকে আসা নলবুনিয়া গ্রামের মহিউদ্দিন মিয়ার ছেলে মনির হোসেন (২০)। তারা দুজনই শরণখোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শরণখোলায় প্রথমবার ডেঙ্গি রোগী শনাক্তের খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার হওয়ার পর এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অনেকেই সাংবাদিকদের কাছে ফোন করে এ বিষয়ে তথ্য জানতে চেয়েছেন।

শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. এস এম ফয়সাল আহমেদ বলেন, মঙ্গলবার মারুফা আক্তারের এবং আগেরদিন সোমবার মনির হোসেনের ডেঙ্গি শনাক্ত হয়। তারা দুজন জ্বর, মাথাব্যথা এবং ক্ষুধামন্দা নিয়ে হাসপাতালে আসেন। পরে পরীক্ষা করা হলে তাদের ডেঙ্গি ধরা পড়ে। হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছে তাদের। তারা স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছেন।

ডা. ফয়সাল বলেন, ডেঙ্গি নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। প্যারাসিটামল এবং এন্টিহিস্টামিন জাতীয় ওষুধ প্রয়োগে ৯০ভাগ রোগীই সুস্থ হয়ে ওঠেন।

শরণখোলায় ২ ডেঙ্গি রোগী শনাক্ত

 শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি 
৩১ আগস্ট ২০২১, ১০:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাগেরহাটের শরণখোলায় দুইজন ডেঙ্গি রোগী শনাক্ত হয়েছে। তারা হলেন উপজেলার তালতলী গ্রামের আবু জাফরের মেয়ে মারুফা আক্তার (২০) এবং ঢাকা থেকে আসা নলবুনিয়া গ্রামের মহিউদ্দিন মিয়ার ছেলে মনির হোসেন (২০)। তারা দুজনই শরণখোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

 শরণখোলায় প্রথমবার ডেঙ্গি রোগী শনাক্তের খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার হওয়ার পর এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অনেকেই সাংবাদিকদের কাছে ফোন করে এ বিষয়ে তথ্য জানতে চেয়েছেন। 

শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. এস এম ফয়সাল আহমেদ বলেন, মঙ্গলবার মারুফা আক্তারের এবং আগেরদিন সোমবার মনির হোসেনের ডেঙ্গি শনাক্ত হয়। তারা দুজন জ্বর, মাথাব্যথা এবং ক্ষুধামন্দা নিয়ে হাসপাতালে আসেন। পরে পরীক্ষা করা হলে তাদের ডেঙ্গি ধরা পড়ে। হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছে তাদের। তারা স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছেন।

ডা. ফয়সাল বলেন, ডেঙ্গি নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। প্যারাসিটামল এবং এন্টিহিস্টামিন জাতীয় ওষুধ প্রয়োগে ৯০ভাগ রোগীই সুস্থ হয়ে ওঠেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন