এলজিইডি প্রকৌশলীর ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল
jugantor
এলজিইডি প্রকৌশলীর ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল

  যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া  

০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০৭:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ইয়াবা সেবন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের এক উপসহকারী প্রকৌশলীর মাদক সেবনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি সদর উপজেলা প্রকৌশল কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী রহমত ভূইয়া রানার।

বৃহস্পতিবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্থানীয় একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের ফেসবুক পেজে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, রহমত ভূইয়া রানা ইয়াবা সেবন করছেন। পাশে বসে এক যুবক ইয়াবা সেবনে তাকে সহযোগিতা করছেন। কিন্তু ওই যুবকের চেহারা ভিডিওতে দেখা না যাওয়া তাকে শনাক্ত করা যায়নি।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে প্রকৌশলী রহমত ভূইয়া রানার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথমে এই ভিডিও তার নয় বলে দাবি করেন।

পরে তিনি বলেন, শত্রুতা করে এই ভিডিও ভাইরাল করা হয়েছে। ভিডিওটি ১৫/২০ দিন আগের। ভিডিওটিকে পুঁজি করে টাকা দাবি করে আসছিল একটি চক্র। টাকা না দেওয়ায় তারা এটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেড়ে দিয়েছে।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সিরাজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, রহমত ভুইয়া রানার ইয়াবা সেবনের ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নজরে এসেছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক ও মানসিকভাবে অসুস্থ। তার বিরুদ্ধে সরকারিবিধি মোতাবেক বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একজন সরকারি চাকরিজীবীর এমন করা ঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এলজিইডি প্রকৌশলীর ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল

 যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া 
০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইয়াবা সেবন
ছবি-যুগান্তর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের এক উপসহকারী প্রকৌশলীর মাদক সেবনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। 

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি সদর উপজেলা প্রকৌশল কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী রহমত ভূইয়া রানার।  

বৃহস্পতিবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্থানীয় একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের ফেসবুক পেজে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। 

ভিডিওটিতে দেখা যায়, রহমত ভূইয়া রানা ইয়াবা সেবন করছেন। পাশে বসে এক যুবক ইয়াবা সেবনে তাকে সহযোগিতা করছেন। কিন্তু ওই যুবকের চেহারা ভিডিওতে দেখা না যাওয়া তাকে শনাক্ত করা যায়নি। 

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে প্রকৌশলী রহমত ভূইয়া রানার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথমে এই ভিডিও তার নয় বলে দাবি করেন। 

পরে তিনি বলেন, শত্রুতা করে এই ভিডিও ভাইরাল করা হয়েছে। ভিডিওটি ১৫/২০ দিন আগের। ভিডিওটিকে পুঁজি করে টাকা দাবি করে আসছিল একটি চক্র। টাকা না দেওয়ায় তারা এটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেড়ে দিয়েছে। 

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সিরাজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, রহমত ভুইয়া রানার ইয়াবা সেবনের ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নজরে এসেছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক ও মানসিকভাবে অসুস্থ। তার বিরুদ্ধে সরকারিবিধি মোতাবেক বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

একজন সরকারি চাকরিজীবীর এমন করা ঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন