এসপি তোর ‘গদি’ ভেঙে দেওয়া হবে: কাদের মির্জা
jugantor
এসপি তোর ‘গদি’ ভেঙে দেওয়া হবে: কাদের মির্জা

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৫২:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা তার অনুসারী নাজিম উদ্দিন বাদলকে গ্রেফতারের পর ক্ষিপ্ত হয়ে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপারকে (এসপি) উদ্দেশ করে বলেন, এসপি তোর ‘গদি’ ভেঙে দেওয়া হবে। নোয়াখালী থেকে যেন সম্মান নিয়ে না যেতে পারিস সেই ব্যবস্থা করা হবে।

নিজ অনুসারী নাজিম উদ্দিন বাদলকে গ্রেফতারের পর বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ফেসবুক লাইভে এসে এমন হুমকি দেন তিনি।

কাদের মির্জা নোয়াখালীর পুলিশ সুপারকে উদ্দেশ করে আরও বলেন, কাকে ভয় দেখাস? ১৯৮২ সাল থেকে জেল খাটছি। তোর কত বড় সাহস। তোর গুণ্ডা ওসিকে লাগিয়ে আজকে কোম্পানীগঞ্জে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছিস। কী করবি, গ্রেফতার করবি? তোর কাছে অস্ত্র আছে, আমাদের কাছে লাঠি আছে। প্রতিহত করা হবে। অস্ত্র ছেড়ে আয় দেখি কি করতে পারিস? কার হুকুমে তুই গতকাল আমার এবং আমার দুই কর্মীর ছবি এখানে ওসির কাছে পাঠিয়েছিস? আমাদের গ্রেফতার করার জন্য, এ সাহস তোকে কে দিয়েছে? ওবায়দুল কাদের? সে তো মিথ্যুক! কথায় কথায় কসম কাটে আর মিথ্যা কথা বলে।

তিনি বলেন, পুলিশের এত বড় ঔদ্ধত্য, মন্ত্রীর এলাকায় নৈরাজ্য সৃষ্টি করে। বরিশালের সাম্প্রতিক ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এত বড় ঘটনা ঘটল, পাঁচ দিনের মধ্যে সমাধান হয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, আমরা তো কারও আত্মীয়ও হতে পারলাম না। আমাদের অভিভাবকও নাই। আমাদের এলাকায় আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর মতো নেতার জন্ম হয় নাই। এটাই হচ্ছে আমাদের দুর্ভাগ্য। তাই এখানকার সমস্যা আট মাসেও সমাধান হয়নি। এখানে আজ এসপি, ইউএনও, এসিল্যান্ড, ওসি, ডিবির ওসি নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে লুটপাট শুরু করেছে। আজকে এসপি এসে একরাইম্যার (সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী) কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমার কর্মীদের ওপর যে অত্যাচার শুরু করেছে, আজকে কাকে বলব? কে শুনবে আমার কথা? কেউ নেই আমার।

বড়ভাই সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে হুমকি দিয়ে নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আপনার বিরুদ্ধে সব তথ্য-প্রমাণ লিপিবদ্ধ করা হচ্ছে। জায়গা মতো পৌঁছে দেব। আপনি এমন স্ত্রী (অ্যাডভোকেট ইশরাতুন্নেছা কাদের) নিয়ে সংসার করেন, যে কিনা আপনার মন্ত্রণালয় ও দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে দুর্নীতি করে শত কোটি টাকার মালিক হয়েছে।

কাদের মির্জা আরও বলেন, রাজনীতি নীতি-আদর্শ সব বিলীন হতে চলেছে। জাতীয় থেকে তৃণমূল পর্যন্ত রাজনৈতিক আদর্শ বলে কিছুই নেই। অপরাজনীতির কারণে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকার পরও আমার দলীয় নেতাকর্মীদের নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে।

এদিকে শুক্রবার বিকালে কাদের মির্জা তার অনুসারী নাজিম উদ্দিন বাদলকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে বসুরহাট পৌরহলে প্রতিবাদ সভা শেষে বসুরহাট বাজারে তার মুক্তির দাবিতে মিছিল করেন। এ সময় ব্যবসায়ীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে এদিক-সেদিক ছোটাছুটি করেন। এ সময় কিছু সময়ের জন্য বসুরহাট বাজারে স্থবিরতা নেমে আসে।

এসপি তোর ‘গদি’ ভেঙে দেওয়া হবে: কাদের মির্জা

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা তার অনুসারী নাজিম উদ্দিন বাদলকে গ্রেফতারের পর ক্ষিপ্ত হয়ে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপারকে (এসপি) উদ্দেশ করে বলেন, এসপি তোর ‘গদি’ ভেঙে দেওয়া হবে। নোয়াখালী থেকে যেন সম্মান নিয়ে না যেতে পারিস সেই ব্যবস্থা করা হবে।

নিজ অনুসারী নাজিম উদ্দিন বাদলকে গ্রেফতারের পর বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ফেসবুক লাইভে এসে এমন হুমকি দেন তিনি।

কাদের মির্জা নোয়াখালীর পুলিশ সুপারকে উদ্দেশ করে আরও বলেন, কাকে ভয় দেখাস? ১৯৮২ সাল থেকে জেল খাটছি। তোর কত বড় সাহস। তোর গুণ্ডা ওসিকে লাগিয়ে আজকে কোম্পানীগঞ্জে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছিস। কী করবি, গ্রেফতার করবি? তোর কাছে অস্ত্র আছে, আমাদের কাছে লাঠি আছে। প্রতিহত করা হবে। অস্ত্র ছেড়ে আয় দেখি কি করতে পারিস? কার হুকুমে তুই গতকাল আমার এবং আমার দুই কর্মীর ছবি এখানে ওসির কাছে পাঠিয়েছিস? আমাদের গ্রেফতার করার জন্য, এ সাহস তোকে কে দিয়েছে? ওবায়দুল কাদের? সে তো মিথ্যুক! কথায় কথায় কসম কাটে আর মিথ্যা কথা বলে।

তিনি বলেন, পুলিশের এত বড় ঔদ্ধত্য, মন্ত্রীর এলাকায় নৈরাজ্য সৃষ্টি করে। বরিশালের সাম্প্রতিক ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এত বড় ঘটনা ঘটল, পাঁচ দিনের মধ্যে সমাধান হয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, আমরা তো কারও আত্মীয়ও হতে পারলাম না। আমাদের অভিভাবকও নাই। আমাদের এলাকায় আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর মতো নেতার জন্ম হয় নাই। এটাই হচ্ছে আমাদের দুর্ভাগ্য। তাই এখানকার সমস্যা আট মাসেও সমাধান হয়নি। এখানে আজ এসপি, ইউএনও, এসিল্যান্ড, ওসি, ডিবির ওসি নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে লুটপাট শুরু করেছে। আজকে এসপি এসে একরাইম্যার (সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী) কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমার কর্মীদের ওপর যে অত্যাচার শুরু করেছে, আজকে কাকে বলব? কে শুনবে আমার কথা? কেউ নেই আমার।

বড়ভাই সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে হুমকি দিয়ে নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আপনার বিরুদ্ধে সব তথ্য-প্রমাণ লিপিবদ্ধ করা হচ্ছে। জায়গা মতো পৌঁছে দেব। আপনি এমন স্ত্রী (অ্যাডভোকেট ইশরাতুন্নেছা কাদের) নিয়ে সংসার করেন, যে কিনা আপনার মন্ত্রণালয় ও দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে দুর্নীতি করে শত কোটি টাকার মালিক হয়েছে।

কাদের মির্জা আরও বলেন, রাজনীতি নীতি-আদর্শ সব বিলীন হতে চলেছে। জাতীয় থেকে তৃণমূল পর্যন্ত রাজনৈতিক আদর্শ বলে কিছুই নেই। অপরাজনীতির কারণে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকার পরও আমার দলীয় নেতাকর্মীদের নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে। 

এদিকে শুক্রবার বিকালে কাদের মির্জা তার অনুসারী নাজিম উদ্দিন বাদলকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে বসুরহাট পৌরহলে প্রতিবাদ সভা শেষে বসুরহাট বাজারে তার মুক্তির দাবিতে মিছিল করেন। এ সময় ব্যবসায়ীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে এদিক-সেদিক ছোটাছুটি করেন। এ সময় কিছু সময়ের জন্য বসুরহাট বাজারে স্থবিরতা নেমে আসে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আবদুল কাদের মির্জা

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন