মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে কণ্ঠশিল্পী সাজুর বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে কণ্ঠশিল্পী সাজুর বিরুদ্ধে মামলা

  উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:১৭:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে কণ্ঠশিল্পী সাজুর বিরুদ্ধে মামলা

পৈতৃক সম্পত্তির ভাগ বাটোয়ারা এবং টাকার জন্য মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে ক্লোজআপ তারকা বলে খ্যাত সাজু আহমেদের (৩২) বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে।

রোববার বিকালে মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন কুড়িগ্রামের উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ কবির।

সাজুর মায়ের নাম রানীজান বেগম (৬৫)। মাথায় সাতটি সেলাই নিয়েতিনি এখন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ওসি জানান, সাজুর মা রানীজান বেগম বাদী হয়ে গত শনিবার রাতে থানায় অভিযোগ করতে বলেন। অভিযোগটি সাজুর বড় বোন আঞ্জুমান আরা বেগম থানায় পৌঁছে দেন। এরপর অভিযোগটি তদন্তের জন্য থানার এসআই মো. আনিসুর রহমানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। তদন্তে প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

ওসি বলেন, হত্যার উদ্দেশে গুরুতর জখমের অপরাধে দণ্ডবিধির ৩২৩, ৩২৬ এবং ৩০৭ ধারায় মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে। মামলার একমাত্র আসামি হচ্ছেন সাজু আহমেদ।

এদিকে সাজু'র মা রানীজান বেগম জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতালের মহিলা সার্জারি বিভাগের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ১৪ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন আছেন। তিন গত শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তার মাথার সামনের দিকে লম্বায় ৭ সেন্টিমিটার ফেটে যাওয়ায় ৭টি সেলাই দিতে হয়েছে। তিনি ক্রমেই সুস্থ হয়ে উঠছেন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. পুলক কুমার সরকার।

সাজু আহমেদ উলিপুর উপজেলার পান্ডুল ইউনিয়নের তেলিয়াপাড়া গ্রামের আজগার আলী ও রানীজান বেগমের কনিষ্ঠ ছেলে। সাজুর বাবা আজগার আলী কৃষি বিভাগের ব্লক সুপারভাইজার ছিলেন। তিনি ২০০৩ সালে মৃত্যুবরণ করেন। এ অবস্থায় ২০০৮ সালে বেসরকারি টিভি চ্যানেল এনটিভির রিয়ালিটি শো ক্লোজআপে অংশ নেন সাজু। সেখানে দ্বিতীয় রানার আপ হয়ে তারকা খ্যাতি অর্জন করেন সাজু।

সাজুর বড় বোন আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, সাজু এখন পান্ডুল ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন করতে চাচ্ছেন। এ জন্য জমির ভাগ ও টাকার জন্য ৩ সেপ্টেম্বর দুপুরের দিকে তার সামনে সাজু চাকু দিয়ে তার মায়ের মাথা আঘাত করেন। এতে তার মায়ের মাথা ফেটে যায়।

এ প্রসঙ্গে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইমতিয়াজ কবির জানান, মামলার আসামি সাজু আহমেদকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে কণ্ঠশিল্পী সাজুর বিরুদ্ধে মামলা

 উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি 
০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে কণ্ঠশিল্পী সাজুর বিরুদ্ধে মামলা
ছবি: সংগৃহীত

পৈতৃক সম্পত্তির ভাগ বাটোয়ারা এবং টাকার জন্য মায়ের মাথা ফাটানোর অভিযোগে ক্লোজআপ তারকা বলে খ্যাত সাজু আহমেদের (৩২) বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে।

রোববার বিকালে মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন কুড়িগ্রামের উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ কবির।

সাজুর মায়ের নাম রানীজান বেগম (৬৫)। মাথায় সাতটি সেলাই নিয়ে তিনি এখন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 

ওসি জানান, সাজুর মা রানীজান বেগম বাদী হয়ে গত শনিবার রাতে থানায় অভিযোগ করতে বলেন।  অভিযোগটি সাজুর বড় বোন আঞ্জুমান আরা বেগম থানায় পৌঁছে দেন।  এরপর অভিযোগটি তদন্তের জন্য থানার এসআই মো. আনিসুর রহমানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।  তদন্তে প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।  

ওসি বলেন, হত্যার উদ্দেশে গুরুতর জখমের অপরাধে দণ্ডবিধির ৩২৩, ৩২৬ এবং ৩০৭ ধারায় মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে।  মামলার একমাত্র আসামি হচ্ছেন সাজু আহমেদ।

এদিকে সাজু'র মা রানীজান বেগম জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতালের মহিলা সার্জারি বিভাগের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ১৪ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন আছেন।  তিন গত শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।  তার মাথার সামনের দিকে লম্বায় ৭ সেন্টিমিটার ফেটে যাওয়ায় ৭টি সেলাই দিতে হয়েছে।  তিনি ক্রমেই সুস্থ হয়ে উঠছেন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. পুলক কুমার সরকার।

সাজু আহমেদ উলিপুর উপজেলার পান্ডুল ইউনিয়নের তেলিয়াপাড়া গ্রামের আজগার আলী ও রানীজান বেগমের কনিষ্ঠ ছেলে।  সাজুর বাবা আজগার আলী কৃষি বিভাগের ব্লক সুপারভাইজার ছিলেন।  তিনি ২০০৩ সালে মৃত্যুবরণ করেন। এ অবস্থায় ২০০৮ সালে বেসরকারি টিভি চ্যানেল এনটিভির রিয়ালিটি শো ক্লোজআপে অংশ নেন  সাজু।  সেখানে দ্বিতীয় রানার আপ হয়ে তারকা খ্যাতি অর্জন করেন সাজু।

সাজুর বড় বোন আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, সাজু এখন পান্ডুল ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন করতে চাচ্ছেন।  এ জন্য জমির ভাগ ও টাকার জন্য ৩ সেপ্টেম্বর দুপুরের দিকে তার সামনে সাজু চাকু দিয়ে তার মায়ের মাথা আঘাত করেন।  এতে তার মায়ের মাথা ফেটে যায়।

এ প্রসঙ্গে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইমতিয়াজ কবির জানান, মামলার আসামি সাজু আহমেদকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন