রূপগঞ্জ ট্র্যাজেডি: দুই মাস পর মিলল আরও ২ দেহাবশেষ
jugantor
রূপগঞ্জ ট্র্যাজেডি: দুই মাস পর মিলল আরও ২ দেহাবশেষ

  যুগান্তর প্রতিবেদন নারায়ণগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  

০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:২৪:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সেই ‘মৃত্যুপুরী’ হাসেম ফুড কারখানায় পুড়ে যাওয়া ৪র্থ তলার ফ্লোরে তল্লাশি চালিয়ে দুটি দেহাবশেষ (হাড় ও কঙ্কাল) উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও সিআইডি পুলিশ। ঘটনার দুই মাস পর এ দুটি দেহাবশেষ উদ্ধার করা হলো।

গত ৮ জুলাই ভয়াবহ সেই অগ্নিকাণ্ডে এই ফ্লোরটি থেকেই উদ্ধার করা হয়েছিল ৪৯টি দগ্ধ লাশ।

সেই আগুনের ঘটনার পর ৩ শ্রমিক এখনো নিখোঁজ রয়েছেন বলে তাদের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার বিকাল থেকে কারখানাটিতে ফের তল্লাশি শুরু করে ফায়ার সার্ভিস ও সিআইডি পুলিশ।

এদিকে তল্লাশি চালিয়ে দুটি দেহাবশেষ (হাড় ও কঙ্কাল) উদ্ধারের বিষয়টি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম।

ঘটনাস্থল থেকে সিআইডির নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন জানান, আমরা বিকাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় তল্লাশি শুরু করি। চতুর্থ তলা থেকে হাড়ের অংশ উদ্ধার করেছি। এগুলো ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ঢামেকে প্রেরণ করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম জানান, আমি শুনেছি দুটো কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করছে সিআইডি। উদ্ধারকৃত অংশ ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ঢামেকে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ জুলাই বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে ভুলতা কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত সেজান জুস কারখানায় আগুন লাগে। আগুনে ৫২ জনের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে হাসপাতালে নেওয়ার পর তিনজন মারা যান। আর কারখানার ভেতর থেকে ৪৯টি লাশ উদ্ধার করা হয়।

রূপগঞ্জ ট্র্যাজেডি: দুই মাস পর মিলল আরও ২ দেহাবশেষ

 যুগান্তর প্রতিবেদন নারায়ণগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি 
০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সেই ‘মৃত্যুপুরী’ হাসেম ফুড কারখানায় পুড়ে যাওয়া ৪র্থ তলার ফ্লোরে তল্লাশি চালিয়ে দুটি দেহাবশেষ (হাড় ও কঙ্কাল) উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও সিআইডি পুলিশ। ঘটনার দুই মাস পর এ দুটি দেহাবশেষ উদ্ধার করা হলো।

গত ৮ জুলাই ভয়াবহ সেই অগ্নিকাণ্ডে এই ফ্লোরটি থেকেই উদ্ধার করা হয়েছিল ৪৯টি দগ্ধ লাশ।

সেই আগুনের ঘটনার পর ৩ শ্রমিক এখনো নিখোঁজ রয়েছেন বলে তাদের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার বিকাল থেকে কারখানাটিতে ফের তল্লাশি শুরু করে ফায়ার সার্ভিস ও সিআইডি পুলিশ।

এদিকে তল্লাশি চালিয়ে দুটি দেহাবশেষ (হাড় ও কঙ্কাল) উদ্ধারের বিষয়টি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম।

ঘটনাস্থল থেকে সিআইডির নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন জানান, আমরা বিকাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় তল্লাশি শুরু করি। চতুর্থ তলা থেকে হাড়ের অংশ উদ্ধার করেছি। এগুলো ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ঢামেকে প্রেরণ করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম জানান, আমি শুনেছি দুটো কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করছে সিআইডি। উদ্ধারকৃত অংশ ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ঢামেকে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ জুলাই বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে ভুলতা কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত সেজান জুস কারখানায় আগুন লাগে। আগুনে ৫২ জনের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে হাসপাতালে নেওয়ার পর তিনজন মারা যান। আর কারখানার ভেতর থেকে ৪৯টি লাশ উদ্ধার করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রূপগঞ্জে কারখানায় আগুন

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন