গভীর রাতে ঝড়ের কবলে মাছ ধরার নৌকা, ৮ জেলে নিখোঁজ
jugantor
গভীর রাতে ঝড়ের কবলে মাছ ধরার নৌকা, ৮ জেলে নিখোঁজ

  যুগান্তর প্রতিবেদক, ভোলা  

১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩১:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

জেলে নিখোঁজ

বঙ্গোপসারেগভীর রাতে ডুবে যাওয়া মাছ ধরা নৌকার ৮ জেলে নিখোজ রয়েছেন। শুক্রবার বিকালে জীবিত উদ্ধার হওয়া দুই জেলে সিরাজ ও মজিদ মাঝি এই তথ্য জানিয়েছেন।

নিখোঁজ ৮ জেলের বাড়ি ভোলা সদর উপজেলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. মহসিন খান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ফিরে আসা জেলে সিরাজ ও মজিদের বরাত দিয়ে মহসিন খান সাংবাদিকদের জানান, রোববার এলাকার নীরব মাঝির নৌকায় ১১ জেলে মাছ শিকার করতে সাগরে যায়। সেমাবার গভীর রাতে ঝড়ের কবলে পড়ে তাদের নৌকাটি ডুবে যায়। সিজার ও মজিদ ভাসতে ভাসতে কক্সবাজারের মনিপুরা পয়েন্টে চলে যান। পরদিন মঙ্গলবার অপর একটি মাছ ধরার নৌকা তাদের উদ্ধার করে। কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর শুক্রবার বাড়ি ফিরলে নৌকা ডুবির ঘটনা জানাজানি হয়।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মহসিন খান বলেন, ডুবে যাওয়া ফিশিংবোটে থাকা নীরব মাঝি, বজলু মাঝি, শহীদ মাঝি, ইউসুফ মাঝি, রুবেল মাঝি, রফিক মাঝি ও সিরাজ মাঝির সন্ধান এখনও পাওয়া যায়নি।

এদিকে নিখোঁজ জেলেদের বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন তাদের পরিবারের সদস্যরা। নিখোঁজদের পরিবারের সদস্যদের কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে পুরো গ্রাম।

চরফ্যাশন শ্যামরাজ মাছঘাটের আড়ৎদার মো. আব্বাছ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, নীরব মাঝির নৌকায় থাকা ১১ জেলের মধ্যে ৩ জেলে উদ্ধার হয়েছে। তবে উদ্ধার হওয়া একজনের নাম জানা যায়নি।এছাড়া অপর ৮ জেলের সন্ধান শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

চরফ্যাশন উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. আল নোমান জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় তারা বিষয়টি জানতে পেরেছেন। নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারের জন্য দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

গভীর রাতে ঝড়ের কবলে মাছ ধরার নৌকা, ৮ জেলে নিখোঁজ

 যুগান্তর প্রতিবেদক, ভোলা 
১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জেলে নিখোঁজ
প্রতীকী ছবি

বঙ্গোপসারে গভীর রাতে ডুবে যাওয়া মাছ ধরা নৌকার ৮ জেলে নিখোজ রয়েছেন। শুক্রবার বিকালে জীবিত উদ্ধার হওয়া দুই জেলে সিরাজ ও মজিদ মাঝি এই তথ্য জানিয়েছেন।

নিখোঁজ ৮ জেলের বাড়ি ভোলা সদর উপজেলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. মহসিন খান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ফিরে আসা জেলে সিরাজ ও মজিদের বরাত দিয়ে মহসিন খান সাংবাদিকদের জানান, রোববার এলাকার নীরব মাঝির নৌকায় ১১ জেলে মাছ শিকার করতে সাগরে যায়। সেমাবার গভীর রাতে ঝড়ের কবলে পড়ে তাদের নৌকাটি ডুবে যায়। সিজার ও মজিদ ভাসতে ভাসতে কক্সবাজারের মনিপুরা পয়েন্টে চলে যান। পরদিন মঙ্গলবার অপর একটি মাছ ধরার নৌকা তাদের উদ্ধার করে। কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর শুক্রবার বাড়ি ফিরলে নৌকা ডুবির ঘটনা জানাজানি হয়।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মহসিন খান বলেন, ডুবে যাওয়া ফিশিংবোটে থাকা নীরব মাঝি, বজলু মাঝি, শহীদ মাঝি, ইউসুফ মাঝি, রুবেল মাঝি, রফিক মাঝি ও সিরাজ মাঝির সন্ধান এখনও পাওয়া যায়নি।

এদিকে নিখোঁজ জেলেদের বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন তাদের পরিবারের সদস্যরা। নিখোঁজদের পরিবারের সদস্যদের কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে পুরো গ্রাম।

চরফ্যাশন শ্যামরাজ মাছঘাটের আড়ৎদার মো. আব্বাছ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, নীরব মাঝির নৌকায় থাকা ১১ জেলের মধ্যে ৩ জেলে উদ্ধার হয়েছে। তবে উদ্ধার হওয়া একজনের নাম জানা যায়নি। এছাড়া অপর ৮ জেলের সন্ধান শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

চরফ্যাশন উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. আল নোমান জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় তারা বিষয়টি জানতে পেরেছেন। নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারের জন্য দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন