ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে পাটক্ষেতে পুঁতে হত্যাচেষ্টা
jugantor
ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে পাটক্ষেতে পুঁতে হত্যাচেষ্টা

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:৩২:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে এক ইউপি মেম্বারকে উপর্যুপরি কুপিয়ে ও পাটক্ষেতে নিয়ে মাটির নিচে পুঁতে হত্যার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা। এলাকাবাসী ওই ইউপি মেম্বারকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। তার অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বয়স্ক ভাতার কার্ড বিতরণ নিয়ে এক জরুরি সভা শেষে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকালে উপজেলার চেহৗহাট ইউনিয়নের মনোরহরপুর গ্রামের তিনরাস্তার এলাকায়।

এ ব্যাপারে থানায় নামীয় ৭ জনসহ ১২ জনের নামে অভিযোগ দায়ের করেছে তার পরিবার।

এলাকাবাসী জানান, শুক্রবার দিনভর বয়স্ক কার্ড বিতরণের জরুরি সভা শেষে চৌহাট ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত মেম্বার ও দ্বিমুখা গ্রামের বাসিন্দা মো. মামুন হোসেন চৌহাট ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। পথিমধ্যে বিকাল ৪টার দিকে মনোহরপুর গ্রামের তিনরাস্তার মোড় এলাকায় ১০-১৩ জনের একদল দুর্বৃত্ত তার গতিরোধ করে। এর পর ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে তাকে মারাত্মক জখম করে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেয়।

পরে তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে সড়কের পাশে একটি পাটক্ষেতে নিয়ে মাটিচাপা দেয়। এ সময় পাটক্ষেতে কর্মরত ক্ষেতমজুররা বিষয়টি দেখতে পেয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ডাক চিৎকার করলে এলাকার শত শত উৎসুক জনতা ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসেন। মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে তাকে সাটুরিয়া সরকারি আবাসিক হাসপাতালে নেয়া হয়। তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়া তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে পরিবার।

কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. রাসেল মোল্লা বলেন, এ ব্যাপারে আমাদের কাছে অভিযোগ দিতে এলে বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় তাদেরকে ধামরাই থানায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। মামলা দায়ের হলে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশ ছাড়া এ ব্যাপারে আমাদের কিছুই করার নেই।

ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে পাটক্ষেতে পুঁতে হত্যাচেষ্টা

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে এক ইউপি মেম্বারকে উপর্যুপরি কুপিয়ে ও পাটক্ষেতে নিয়ে মাটির নিচে পুঁতে হত্যার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা। এলাকাবাসী ওই ইউপি মেম্বারকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। তার অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বয়স্ক ভাতার কার্ড বিতরণ নিয়ে এক জরুরি সভা শেষে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকালে উপজেলার চেহৗহাট ইউনিয়নের মনোরহরপুর গ্রামের তিনরাস্তার এলাকায়।

এ ব্যাপারে থানায় নামীয় ৭ জনসহ ১২ জনের নামে অভিযোগ দায়ের করেছে তার পরিবার।

এলাকাবাসী জানান, শুক্রবার দিনভর বয়স্ক কার্ড বিতরণের জরুরি সভা শেষে চৌহাট ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত মেম্বার ও দ্বিমুখা গ্রামের বাসিন্দা মো. মামুন হোসেন চৌহাট ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। পথিমধ্যে বিকাল ৪টার দিকে মনোহরপুর গ্রামের তিনরাস্তার মোড় এলাকায় ১০-১৩ জনের একদল দুর্বৃত্ত তার গতিরোধ করে। এর পর ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে তাকে মারাত্মক জখম করে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেয়।

পরে তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে সড়কের পাশে একটি পাটক্ষেতে নিয়ে মাটিচাপা দেয়। এ সময় পাটক্ষেতে কর্মরত ক্ষেতমজুররা বিষয়টি দেখতে পেয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ডাক চিৎকার করলে এলাকার শত শত উৎসুক জনতা ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসেন। মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে তাকে সাটুরিয়া সরকারি আবাসিক হাসপাতালে নেয়া হয়। তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়া তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে পরিবার।

কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. রাসেল মোল্লা বলেন, এ ব্যাপারে আমাদের কাছে অভিযোগ দিতে এলে বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় তাদেরকে ধামরাই থানায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। মামলা দায়ের হলে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশ ছাড়া এ ব্যাপারে আমাদের কিছুই করার নেই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন