অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এটিএম বুথের ২৪ লাখ টাকা লুট
jugantor
অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এটিএম বুথের ২৪ লাখ টাকা লুট

  ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি  

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:০৪:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের ওসমানীনগরে একটি ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তাকর্মীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতরা বুথ থেকে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

রোববার ভোরে উপজেলার সাদিপুর ইউপির শেরপুরের নতুনবাজার এলাকায় ইউনুছ ম্যানশনের নিচতলায় একটি বেসরকারি ব্যাংকের এটিএম বুথে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ম্যানেজার সৈয়দ আশরাফুল আমিন বাদী হয়ে রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ব্যাংকের বুথে ডাকাতির ঘটনার প্রায় দুই দিন পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেফতার ও টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে ওসমানীনগর থানা পুলিশ জানিয়েছে। তবে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে মুখোশধারী ৪ ডাকাতকে শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক জানান।

এদিকে প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটের ওসমানীনগরে এই প্রথম কোনো ব্যাংকের বুথে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে পুরো এলাকার ব্যাংক গ্রাহকদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পুলিশ ও ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, গত রোববার ভোরে মুখোশ পরা ৪ জনের একদল ডাকাত শেরপুর নতুনবাজারের ইউনুছ ম্যানশনের নিচতলায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ফার্স্ট ট্র্যাক এটিএম বুথে হানা দেয়। এ সময় ডাকাতরা বুথের নিরাপত্তাকর্মী উপজেলার সাদিপুর ইউপির পূর্ব তাজপুর গ্রামের ছুরুক মিয়ার ছেলে মো. জাকারিয়াকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত-মুখ বেঁধে ফেলে মারধর করে। পরে বুথের লকার ভেঙে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে পালিয়ে যায় ডাকাতরা।

ঘটনার খবর পেয়ে সকালে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ওসমানীনগর থানা পুলিশ, সিআইডি, ডিবি পুলিশ, পিবিআইসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা মো. জাকারিয়া বলেন, রোববার ভোরে হঠাৎ করে চারজন মুখোশধারী ডাকাত বুথের সাঁটার খুলে ভেতরে ঢুকে আমাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ফেলে। পরে স্কচটেপ দিয়ে আমার মুখ ও হাত বেঁধে বুথের মেশিন ভেঙে টাকা লুট করে পালিয়ে যায়।

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক শেরপুর শাখার ব্যবস্থাপক সৈয়দ আশরাফুল আমিন বলেন, টুপি ও মাস্ক পরিধান করা চারজনের একটি ডাকাত দল নিরাপত্তাকর্মীকে জিম্মি করে বুথ ভেঙে টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় আমি নিজে বাদী হয়ে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছি।

ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের বুথে ডাকাতির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। থানায় মামলা হয়েছে। অপরাধীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে এবং টাকা উদ্ধারে পুলিশ কাজ করছে।

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এটিএম বুথের ২৪ লাখ টাকা লুট

 ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি 
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের ওসমানীনগরে একটি ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তাকর্মীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতরা বুথ থেকে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

রোববার ভোরে উপজেলার সাদিপুর ইউপির শেরপুরের নতুনবাজার এলাকায় ইউনুছ ম্যানশনের নিচতলায় একটি বেসরকারি ব্যাংকের এটিএম বুথে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ম্যানেজার সৈয়দ আশরাফুল আমিন বাদী হয়ে রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ব্যাংকের বুথে ডাকাতির ঘটনার প্রায় দুই দিন পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেফতার ও টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে ওসমানীনগর থানা পুলিশ জানিয়েছে। তবে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে মুখোশধারী ৪ ডাকাতকে শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক জানান।

এদিকে প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটের ওসমানীনগরে এই প্রথম কোনো ব্যাংকের বুথে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে পুরো এলাকার ব্যাংক গ্রাহকদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পুলিশ ও ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, গত রোববার ভোরে মুখোশ পরা ৪ জনের একদল ডাকাত শেরপুর নতুনবাজারের ইউনুছ ম্যানশনের নিচতলায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ফার্স্ট ট্র্যাক এটিএম বুথে হানা দেয়। এ সময় ডাকাতরা বুথের নিরাপত্তাকর্মী উপজেলার সাদিপুর ইউপির পূর্ব তাজপুর গ্রামের ছুরুক মিয়ার ছেলে মো. জাকারিয়াকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত-মুখ বেঁধে ফেলে মারধর করে। পরে বুথের লকার ভেঙে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে পালিয়ে যায় ডাকাতরা।

ঘটনার খবর পেয়ে সকালে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ওসমানীনগর থানা পুলিশ, সিআইডি, ডিবি পুলিশ, পিবিআইসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা মো. জাকারিয়া বলেন, রোববার ভোরে হঠাৎ করে চারজন মুখোশধারী ডাকাত বুথের সাঁটার খুলে ভেতরে ঢুকে আমাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ফেলে। পরে স্কচটেপ দিয়ে আমার মুখ ও হাত বেঁধে বুথের মেশিন ভেঙে টাকা লুট করে পালিয়ে যায়।

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক শেরপুর শাখার ব্যবস্থাপক সৈয়দ আশরাফুল আমিন বলেন, টুপি ও মাস্ক পরিধান করা চারজনের একটি ডাকাত দল নিরাপত্তাকর্মীকে জিম্মি করে বুথ ভেঙে টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় আমি নিজে বাদী হয়ে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছি।

ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের বুথে ডাকাতির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। থানায় মামলা হয়েছে। অপরাধীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে এবং টাকা উদ্ধারে পুলিশ কাজ করছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন