বিয়ের আশ্বাসে ধর্ষণ: সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেফতার
jugantor
বিয়ের আশ্বাসে ধর্ষণ: সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেফতার

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৩:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে সোহরাব হোসেন নামে এক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে সদর উপজেলার দরুনবালী বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত সাবেক চেয়ারম্যান সদর উপজেলার দরুনবালী গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে। তিনি কাইলাটি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান।

এ ব্যাপারে সোমবার রাতে ভিকটিম বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নেত্রকোনা সদর উপজেলার দুই সন্তানের জননী ভিকটিমের প্রথম স্বামী দীর্ঘদিন আগে মারা যান। পরে আবার বিয়ে করার পর এই স্বামীও তাকে ছেড়ে চলে যান। এ অবস্থায় ভিকটিমের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী এলাকায় সাবেক চেয়ারম্যান সোহরাব বিয়ের কথা বলে দীর্ঘদিন ধরে দৈহিক সম্পর্ক চালিয়ে আসছিল।

এ ঘটনায় ভিকটিম কয়েক দিন আগে বিয়ের কথা বললে অভিযুক্ত ওই সাবেক চেয়ারম্যান বিয়ে করতে অস্বীকার করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার রাতে ভিকটিম বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার মৌজেবালী বাজার থেকে সোমবার রাতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার বিকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি খন্দকার শাকের আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে এক নারী মামলা দায়ের করলে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে আদালত পাঠানো হয়েছে। আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

বিয়ের আশ্বাসে ধর্ষণ: সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেফতার

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে সোহরাব হোসেন নামে এক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে সদর উপজেলার দরুনবালী বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত সাবেক চেয়ারম্যান সদর উপজেলার দরুনবালী গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে। তিনি কাইলাটি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান।

এ ব্যাপারে সোমবার রাতে ভিকটিম বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নেত্রকোনা সদর উপজেলার দুই সন্তানের জননী ভিকটিমের প্রথম স্বামী দীর্ঘদিন আগে মারা যান। পরে আবার বিয়ে করার পর এই স্বামীও তাকে ছেড়ে চলে যান। এ অবস্থায় ভিকটিমের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী এলাকায় সাবেক চেয়ারম্যান সোহরাব বিয়ের কথা বলে দীর্ঘদিন ধরে দৈহিক সম্পর্ক চালিয়ে আসছিল।

এ ঘটনায় ভিকটিম কয়েক দিন আগে বিয়ের কথা বললে অভিযুক্ত ওই সাবেক চেয়ারম্যান বিয়ে করতে অস্বীকার করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার রাতে ভিকটিম বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার মৌজেবালী বাজার থেকে সোমবার রাতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার বিকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি খন্দকার শাকের আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে এক নারী মামলা দায়ের করলে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে আদালত পাঠানো হয়েছে। আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন