ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবি
jugantor
ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবি

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৭:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অফিসিয়াল মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবির ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি ইউএনও নিজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে জানিয়েছেন।

ফেসবুকে এক পোস্টে ইউএনও জানান, অজ্ঞাত দুর্বত্তরা তার মোবাইল নম্বর (০১৭০৫৪…০৬) ক্লোন করে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকজনের কাছেউপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিচয়ে টাকা দাবি করেআসছিল। বিষয়টি নজরে আসার পর তিনি উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারণের উদ্দেশ্যে সর্তকতামূলক বার্তা প্রদান করেছেন।

অজ্ঞাত প্রতারক চক্রটি উপজেলার রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইকবাল বাহার চৌধুরী, চরহাজারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা এবং চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব কামাল উদ্দিনকে ফোন করে প্রকল্প দেওয়ার কথা বলে টাকা দাবি করে।

এ বিষয়ে চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব কামাল উদ্দিন জানান, সোমবার দুপুরে নোয়াখালী জেলা পরিষদ থেকে চরএলাহী ইউনিয়নের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প বরাদ্দ করা হয়েছে উল্লেখ করে তার কাছে টাকা দাবি করা হয়।

এর আগেও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ওই নম্বরটি ক্লোন করে একটি চক্র উপজেলার জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী ও গুরুত্বপূর্ণ নাগরিকদের কাছে টাকা দাবি করেছিল।

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জিয়াউল হক মীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক করা হয়েছে। বিষয়টি তিনি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরও অবহিত করেছেন।

ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবি

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অফিসিয়াল মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবির ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি ইউএনও নিজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে জানিয়েছেন। 

ফেসবুকে এক পোস্টে ইউএনও জানান, অজ্ঞাত দুর্বত্তরা তার মোবাইল নম্বর (০১৭০৫৪…০৬) ক্লোন করে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকজনের কাছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিচয়ে টাকা দাবি করে আসছিল। বিষয়টি নজরে আসার পর তিনি উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারণের উদ্দেশ্যে সর্তকতামূলক বার্তা প্রদান করেছেন। 
 
অজ্ঞাত প্রতারক চক্রটি উপজেলার রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইকবাল বাহার চৌধুরী, চরহাজারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা এবং চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব কামাল উদ্দিনকে ফোন করে প্রকল্প দেওয়ার কথা বলে টাকা দাবি করে। 

এ বিষয়ে চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব কামাল উদ্দিন জানান, সোমবার দুপুরে নোয়াখালী জেলা পরিষদ থেকে চরএলাহী ইউনিয়নের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প বরাদ্দ করা হয়েছে উল্লেখ করে তার কাছে টাকা দাবি করা হয়।  

এর আগেও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ওই নম্বরটি ক্লোন করে একটি চক্র উপজেলার জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী ও গুরুত্বপূর্ণ নাগরিকদের কাছে টাকা দাবি করেছিল। 

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জিয়াউল হক মীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক করা হয়েছে। বিষয়টি তিনি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরও অবহিত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন