বোমা বানাতে গিয়ে আহত যুবকের মৃত্যু, স্ত্রী আটক
jugantor
বোমা বানাতে গিয়ে আহত যুবকের মৃত্যু, স্ত্রী আটক

  অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি  

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪১:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বোমা বিস্ফোরণে দেয়ালে ফাটল

যশোরের অভয়নগরে নিজ ঘরের মধ্যে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে গুরুতর আহত শফিকুল ইসলাম ওরফে শপ্পা (৩৫) নামের সেই যুবক মারা গেছেন। বুধবার সকালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

অভয়নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সোমবার রাতে উপজেলার রাজঘাটের কার্পেটিং জুট মিলসংলগ্ন এলাকায় নিজ ঘরের ভেতর বোমা তৈরি করছিলেন শপ্পা। রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার সময় বিকট শব্দে তা বিস্ফোরিত হয়। এতে গুরুতর আহত হন শপ্পা। উড়ে যায় ঘরের টিনের চাল, দেয়ালে সৃষ্টি হয় ফাটলের। ঝলসে যায় তার মুখমণ্ডলসহ শরীরের সামনের সিংহভাগ অংশ।

আহত শপ্পাকে প্রথমে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ওই রাতেই স্থানান্তরিত করা হয় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার রাতে ঢাকা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

নিহত শপ্পা কার্পেটিং বাজার এলাকার ইব্রাহিম হোসেন মোল্যার ছেলে।

অভয়নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল বলেন, ঘটনার রাতে ওই ঘর থেকে বিস্ফোরিত বোমার স্প্লিন্টার, বোমা তৈরির সরঞ্জামাদি, একটি হাতুড়ি, ক্যান ভর্তি পেট্রোল-অকটেন, ছয়টি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি জানান, আহত শফিকুল ইসলাম ওরফে শপ্পা ও তার স্ত্রী ফাতেমা আক্তার সুইটিসহ অজ্ঞাতনামা ৩-৪ জনের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার দুপুরে বিস্ফোরকদ্রব্য ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তার স্ত্রীকে আটক করার পর যশোর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বোমা বানাতে গিয়ে আহত যুবকের মৃত্যু, স্ত্রী আটক

 অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি 
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বোমা বিস্ফোরণে দেয়ালে ফাটল
বোমা বিস্ফোরণে দেয়ালে ফাটল

যশোরের অভয়নগরে নিজ ঘরের মধ্যে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে গুরুতর আহত শফিকুল ইসলাম ওরফে শপ্পা (৩৫) নামের সেই যুবক মারা গেছেন। বুধবার সকালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

অভয়নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সোমবার রাতে উপজেলার রাজঘাটের কার্পেটিং জুট মিলসংলগ্ন এলাকায় নিজ ঘরের ভেতর বোমা তৈরি করছিলেন শপ্পা। রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার সময় বিকট শব্দে তা বিস্ফোরিত হয়। এতে গুরুতর আহত হন শপ্পা। উড়ে যায় ঘরের টিনের চাল, দেয়ালে সৃষ্টি হয় ফাটলের। ঝলসে যায় তার মুখমণ্ডলসহ শরীরের সামনের সিংহভাগ অংশ।

আহত শপ্পাকে প্রথমে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ওই রাতেই স্থানান্তরিত করা হয় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার রাতে ঢাকা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

নিহত শপ্পা কার্পেটিং বাজার এলাকার ইব্রাহিম হোসেন মোল্যার ছেলে।

অভয়নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল বলেন, ঘটনার রাতে ওই ঘর থেকে বিস্ফোরিত বোমার স্প্লিন্টার, বোমা তৈরির সরঞ্জামাদি, একটি হাতুড়ি, ক্যান ভর্তি পেট্রোল-অকটেন, ছয়টি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি জানান, আহত শফিকুল ইসলাম ওরফে শপ্পা ও তার স্ত্রী ফাতেমা আক্তার সুইটিসহ অজ্ঞাতনামা ৩-৪ জনের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার দুপুরে বিস্ফোরকদ্রব্য ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তার স্ত্রীকে আটক করার পর যশোর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন