হেলিকপ্টারে গিয়ে দেওয়া হলো দ্বিতীয় ডোজ টিকা
jugantor
হেলিকপ্টারে গিয়ে দেওয়া হলো দ্বিতীয় ডোজ টিকা

  রাঙামাটি প্রতিনিধি  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:৩৮:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

রাঙামাটির বিলাইছড়ির দুর্গম পাহাড়ি এলাকা বড়থলি ইউনিয়নে বিমানবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারেযোগে গিয়ে করোনার দ্বিতীয় ডোজের গণটিকা প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ২৭৩ জনকে দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে। ১০ আগস্ট একইভাবে গিয়ে সেখানে ২৯২ জনকে প্রথম ডোজ সিনোফার্মার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়।

বিলাইছড়ি উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার সকালে কাপ্তাই পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্রের হেলিপ্যাড থেকে হেলিকপ্টারে গিয়ে ওই এলাকায় গণটিকা কার্যক্রম পরিচালনা শেষ করে বিকালে ফিরেছে প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের যৌথ টিম।

বিলাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রশ্মি চাকমার নেতৃত্বে ৫ জনের একটি স্বাস্থ্যকর্মীর দল করোনার গণটিকা কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন। এর আগে ১০ আগস্ট একইভাবে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে গিয়ে ওই এলাকায় প্রথম ডোজ গণটিকা কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

বিলাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, বিলাইছড়ি উপজেলার দুর্গম বড়থলি ইউনিয়নে জেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, সেনাবাহিনী ও বিমানবাহিনীর সহায়তায় হেলিকপ্টারে গিয়ে ওই এলাকার ২৯২ জনকে করোনার প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। একইভাবে সেখানে ২৭৩ জনকে দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগ সম্পন্ন করা হলো। এ সময় এলাকার মানুষ বিপুল উৎসাহে ভ্যাকসিন নিয়েছেন।

বিলাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রশ্মি চাকমা বলেন, ওই এলাকায় করোনার টিকা ছাড়াও একইভাবে বিভিন্ন সময়ে ইপিআই ও স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে।

হেলিকপ্টারে গিয়ে দেওয়া হলো দ্বিতীয় ডোজ টিকা

 রাঙামাটি প্রতিনিধি 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাঙামাটির বিলাইছড়ির দুর্গম পাহাড়ি এলাকা বড়থলি ইউনিয়নে বিমানবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারেযোগে গিয়ে করোনার দ্বিতীয় ডোজের গণটিকা প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ২৭৩ জনকে দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে। ১০ আগস্ট একইভাবে গিয়ে সেখানে ২৯২ জনকে প্রথম ডোজ সিনোফার্মার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়।

বিলাইছড়ি উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার সকালে কাপ্তাই পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্রের হেলিপ্যাড থেকে হেলিকপ্টারে গিয়ে ওই এলাকায় গণটিকা কার্যক্রম পরিচালনা শেষ করে বিকালে ফিরেছে প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের যৌথ টিম।

বিলাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রশ্মি চাকমার নেতৃত্বে ৫ জনের একটি স্বাস্থ্যকর্মীর দল করোনার গণটিকা কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন। এর আগে ১০ আগস্ট একইভাবে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে গিয়ে ওই এলাকায় প্রথম ডোজ গণটিকা কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

বিলাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, বিলাইছড়ি উপজেলার দুর্গম বড়থলি ইউনিয়নে জেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, সেনাবাহিনী ও বিমানবাহিনীর সহায়তায় হেলিকপ্টারে গিয়ে ওই এলাকার ২৯২ জনকে করোনার প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। একইভাবে সেখানে ২৭৩ জনকে দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগ সম্পন্ন করা হলো। এ সময় এলাকার মানুষ বিপুল উৎসাহে ভ্যাকসিন নিয়েছেন।

বিলাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রশ্মি চাকমা বলেন, ওই এলাকায় করোনার টিকা ছাড়াও একইভাবে বিভিন্ন সময়ে ইপিআই ও স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন