চলন্ত ট্রেনে সন্তান জন্ম
jugantor
চলন্ত ট্রেনে সন্তান জন্ম

  রাজশাহী ব্যুরো  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:০৪:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সন্তান জন্ম

খুলনা থেকে রাজশাহীগামী আন্তঃনগর সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেস ট্রেনে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন (২৫) নামে এক প্রসূতি। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাটোরের আব্দুলপুর স্টেশনের অদূরে সন্তান জন্ম দেন ওই গৃহবধূ।

সাবিনা ইয়াসমিন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বাসিন্দা। প্রসববেদনা নিয়ে স্বজনদের সঙ্গে ভেড়ামারা থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তির জন্য আসছিলেন তিনি। পরে নবজাতকসহ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ প্রসূতিকে রামেক হাসপাতালে পৌঁছে দেয়।

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার আবদুল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাটোরের আব্দুলপুর স্টেশনের অদূরে ওই নারী চলন্ত ট্রেনের ভেতরে সন্তান প্রসব করেন। তখনই স্টেশনে বিষয়টি জানান রেলকর্মীরা। ট্রেনটি রাত ১১টা নাগাদ রাজশাহী স্টেশনে পৌঁছায়। তার আগেই রেলওয়ে হাসপাতালের একটি অ্যাম্বুলেন্স স্টেশনে অপেক্ষায় ছিল। তাতে নবজাতকসহ ওই প্রসূতিকে রামেক হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

স্বজনদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ভেড়ামারা থেকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই নারী ট্রেনে ওঠেন। প্রসববেদনা নিয়ে তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তির জন্যই আসছিলেন। ওই নারী বসেছিলেন ছ বগিতে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি ট্রেনের কন্ডাক্টিং গার্ড রুবায়েত হাসান জানতে পারেন।

স্টেশন ম্যানেজার আবদুল করিম জানান, তিনি বিষয়টি গার্ড ইনচার্জ আজিমুল হোসেনকে জানালে ট্রেনের মাইকে সন্তান প্রসবের ব্যাপারে একজন চিকিৎসকের সাহায্য কামনা করা হয়। সেই ঘোষণা শুনে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন একজন নারী চিকিৎসক। পরে নির্ধারিত কামরায় নিয়ে গিয়ে ওই চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে সন্তান প্রসব করেন ওই নারী যাত্রী। নবজাতক ও মা দুজনই সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন স্টেশন ম্যানেজার।

এদিকে সাগরদাঁড়ি ট্রেনে ওই নারী যাত্রীর বাচ্চা প্রসব করানোর ব্যাপারে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়ায় ট্রেনে দায়িত্ব পালনকারী সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে শনিবার বিকাল ৩টায় রাজশাহী রেল ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মিহির কান্তি গুহ।

চলন্ত ট্রেনে সন্তান জন্ম

 রাজশাহী ব্যুরো 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সন্তান জন্ম
প্রতীকী ছবি

খুলনা থেকে রাজশাহীগামী আন্তঃনগর সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেস ট্রেনে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন (২৫) নামে এক প্রসূতি। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাটোরের আব্দুলপুর স্টেশনের অদূরে সন্তান জন্ম দেন ওই গৃহবধূ।

সাবিনা ইয়াসমিন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বাসিন্দা। প্রসববেদনা নিয়ে স্বজনদের সঙ্গে ভেড়ামারা থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তির জন্য আসছিলেন তিনি। পরে নবজাতকসহ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ প্রসূতিকে রামেক হাসপাতালে পৌঁছে দেয়।

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার আবদুল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাটোরের আব্দুলপুর স্টেশনের অদূরে ওই নারী চলন্ত ট্রেনের ভেতরে সন্তান প্রসব করেন। তখনই স্টেশনে বিষয়টি জানান রেলকর্মীরা। ট্রেনটি রাত ১১টা নাগাদ রাজশাহী স্টেশনে পৌঁছায়। তার আগেই রেলওয়ে হাসপাতালের একটি অ্যাম্বুলেন্স স্টেশনে অপেক্ষায় ছিল। তাতে নবজাতকসহ ওই প্রসূতিকে রামেক হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

স্বজনদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ভেড়ামারা থেকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই নারী ট্রেনে ওঠেন। প্রসববেদনা নিয়ে তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তির জন্যই আসছিলেন। ওই নারী বসেছিলেন ছ বগিতে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি ট্রেনের কন্ডাক্টিং গার্ড রুবায়েত হাসান জানতে পারেন।

স্টেশন ম্যানেজার আবদুল করিম জানান, তিনি বিষয়টি গার্ড ইনচার্জ আজিমুল হোসেনকে জানালে ট্রেনের মাইকে সন্তান প্রসবের ব্যাপারে একজন চিকিৎসকের সাহায্য কামনা করা হয়। সেই ঘোষণা শুনে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন একজন নারী চিকিৎসক। পরে নির্ধারিত কামরায় নিয়ে গিয়ে ওই চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে সন্তান প্রসব করেন ওই নারী যাত্রী। নবজাতক ও মা দুজনই সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন স্টেশন ম্যানেজার।

এদিকে সাগরদাঁড়ি ট্রেনে ওই নারী যাত্রীর বাচ্চা প্রসব করানোর ব্যাপারে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়ায় ট্রেনে দায়িত্ব পালনকারী সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে শনিবার বিকাল ৩টায় রাজশাহী রেল ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মিহির কান্তি গুহ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন