বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় দুই নারী নিহত
jugantor
বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় দুই নারী নিহত

  বগুড়া ব্যুরো  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:২৭:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও চারজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকালে শহরতলির ঝোপগাড়ী এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের স্থানীয় টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সদর থানার ওসি সেলিম রেজা এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হতাহতরা একই পরিবারের সদস্য।

নিহতরা হলেন- বগুড়া সদরের শাখারিয়া ইউনিয়নের নামাবালা গ্রামের আবদুর রফিকের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম আনো (৪৫) ও একই গ্রামের আজাহার আলীর স্ত্রী হামিদুন বেগম (৫৫)।

আহত অটোরিকশা চালক রোকন (৩৫), যাত্রী রাখি মনি (১৩), জুঁই (১৬), আজাহার আলী (৬০) ও আবদুর রফিককে (৫০) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, একই পরিবারের ছয় সদস্য শুক্রবার সকালে জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। তারা ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশায় শহরতলির চারমাথায় কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের দিকে রওনা দেন। অটোরিকশা চারমাথার কাছে ঝোপগাড়ি এলাকায় পৌঁছলে ঢাকা থেকে রংপুরগামী একটি অজ্ঞাত বাস সামনে থেকে ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়।

বাসটি পালিয়ে গেলে স্থানীয়রা আহত ছয়জনকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল এবং টিএমএসএস হাসপাতাল ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে শজিমেক হাসপাতালে আনোয়ারা বেগম আনো ও টিএমএসএস হাসপাতালে হামিদুন বেগম মারা যান।

বগুড়ার উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রহিম উদ্দিন বলেন, দুর্ঘটনার পরপরই চালক বাসটি নিয়ে পালিয়ে গেছে। ঘাতক বাসটি শনাক্ত ও চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। দুইজনের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে সদর থানায় অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়।

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় দুই নারী নিহত

 বগুড়া ব্যুরো 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও চারজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকালে শহরতলির ঝোপগাড়ী এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের স্থানীয় টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সদর থানার ওসি সেলিম রেজা এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হতাহতরা একই পরিবারের সদস্য।

নিহতরা হলেন- বগুড়া সদরের শাখারিয়া ইউনিয়নের নামাবালা গ্রামের আবদুর রফিকের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম আনো (৪৫) ও একই গ্রামের আজাহার আলীর স্ত্রী হামিদুন বেগম (৫৫)।

আহত অটোরিকশা চালক রোকন (৩৫), যাত্রী রাখি মনি (১৩), জুঁই (১৬), আজাহার আলী (৬০) ও আবদুর রফিককে (৫০) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, একই পরিবারের ছয় সদস্য শুক্রবার সকালে জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। তারা ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশায় শহরতলির চারমাথায় কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের দিকে রওনা দেন। অটোরিকশা চারমাথার কাছে ঝোপগাড়ি এলাকায় পৌঁছলে ঢাকা থেকে রংপুরগামী একটি অজ্ঞাত বাস সামনে থেকে ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়।

বাসটি পালিয়ে গেলে স্থানীয়রা আহত ছয়জনকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল এবং টিএমএসএস হাসপাতাল ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে শজিমেক হাসপাতালে আনোয়ারা বেগম আনো ও টিএমএসএস হাসপাতালে হামিদুন বেগম মারা যান।

বগুড়ার উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রহিম উদ্দিন বলেন, দুর্ঘটনার পরপরই চালক বাসটি নিয়ে পালিয়ে গেছে। ঘাতক বাসটি শনাক্ত ও চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। দুইজনের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে সদর থানায় অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন