ঘুরতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই বন্ধুর
jugantor
ঘুরতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

  ছাগলনাইয়া (ফেনী) ও মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩৭:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাটে কাভার্ডভ্যানচাপায় ফেনীর ছাগলনাইয়ার মোটরসাইকেলআরোহী দুই বন্ধু নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে খান সিটির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের (সুবেদারি রাস্তার মাথা) সিরাজুল ইসলামের ছেলে আজাহারুল ইসলাম অপু (২৫) এবং উত্তর মন্দিয়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে সাইদুল হোসেন।

সাইদুল হোসেনের জেঠাতো ভাই মেহেদি হাসান ইমন জানান, দুপুরে দুই বন্ধু মোটরসাইকেল নিয়ে বারইয়ারহাট ঘুরতে যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে খান সিটির সামনে কাভার্ডভ্যানের চাপায় ঘটনাস্থলেই অপু মারা যান। মুমূর্ষু অবস্থায় সাইদুল হোসেনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে বিকালে তার মৃত্যু হয়।

সাইদুল হোসেন এক সময় প্রবাসে থাকলেও দুই বন্ধুর বর্তমানে তেমন কোনো কর্ম ছিল না বলে জানান মেহেদি হাসান ইমন।

হাইওয়ে পুলিশের জোরারগঞ্জ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. শরফুদ্দিন জানান, ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন আজহারুল ইসলাম অপু। অপর যুবক সাইদুল হোসেনকে গুরুতর আহত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৭টায় মৃত্যুবরণ করেন সাইদুল। ঘটনাস্থল থেকে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ঘুরতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

 ছাগলনাইয়া (ফেনী) ও মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাটে কাভার্ডভ্যানচাপায় ফেনীর ছাগলনাইয়ার মোটরসাইকেলআরোহী দুই বন্ধু নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে খান সিটির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের (সুবেদারি রাস্তার মাথা) সিরাজুল ইসলামের ছেলে আজাহারুল ইসলাম অপু (২৫) এবং উত্তর মন্দিয়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে সাইদুল হোসেন।

সাইদুল হোসেনের জেঠাতো ভাই মেহেদি হাসান ইমন জানান, দুপুরে দুই বন্ধু মোটরসাইকেল নিয়ে বারইয়ারহাট ঘুরতে যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে খান সিটির সামনে কাভার্ডভ্যানের চাপায় ঘটনাস্থলেই অপু মারা যান। মুমূর্ষু অবস্থায় সাইদুল হোসেনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে বিকালে তার মৃত্যু হয়।

সাইদুল হোসেন এক সময় প্রবাসে থাকলেও দুই বন্ধুর বর্তমানে তেমন কোনো কর্ম ছিল না বলে জানান মেহেদি হাসান ইমন।

হাইওয়ে পুলিশের জোরারগঞ্জ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. শরফুদ্দিন জানান, ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন আজহারুল ইসলাম অপু। অপর যুবক সাইদুল হোসেনকে গুরুতর আহত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৭টায় মৃত্যুবরণ করেন সাইদুল। ঘটনাস্থল থেকে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন