সমুদ্রে ভেসে আসা লাশ দুটি যশোরের দুই শিক্ষার্থীর 
jugantor
সমুদ্রে ভেসে আসা লাশ দুটি যশোরের দুই শিক্ষার্থীর 

  যশোর ব্যুরো  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৪০:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজার

কক্সবাজারের সী-গাল পয়েন্ট থেকে শুক্রবার দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। আর শনিবার সমুদ্র সৈকতের নাজিরারটেক পয়েন্ট থেকে আরও এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত এই তিন লাশের মধ্যে দুইজন যশোরের বাসিন্দা। বন্ধুদের সঙ্গে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়ে লাশ হয়েছেন তারা।

উদ্ধারকৃত দুই লাশের মধ্যে একজন যশোর উপশহরের এ ব্লকের বাসিন্দা কবি কাসেদুজ্জামান সেলিমের ছেলে রাফিদ ঐশিক (২৩)। অন্যজন শহরের লালদিঘি এলাকার বাসিন্দা কলেজ শিক্ষক শাহরিয়ার মেহের ইবনে মিজানের ছেলে মেহের ফারাবি অভ্র (২৩)।

রাফিদ ঐশিক যশোর ক্যান্টমেন্ট কলেজের অর্নাস প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী এবং অভ্র ঢাকার একটি বেসরকারি ভার্সিটির প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

মৃত রাফিদ ঐশিকের বাবা কাসেদুজ্জামান সেলিম জানান, মঙ্গলবার ৬ বন্ধু একসঙ্গে কক্সবাজার বেড়াতে যায়। কিন্তু শুক্রবার দুপুর থেকে তাদের সাথে যোগযোগ করা সম্ভব হচ্ছিল না।

তিনি বলেন, শনিবার দুপুরে জানতে পারি শুক্রবার দুপুর ও বিকালে সৈকতের সি-গাল পয়েন্টে দুই যুবকের লাশ ভেসে আসে। তাদের একজন স্থানীয় আর অন্যজন রাফিদ ঐশিক। আর শনিবার ভেসে আসে ঐশিকের বন্ধু অভ্রর লাশ।

ঐশিকের বাবা কাসেদুজ্জামান সেলিম আরও বলেন, তারা কখন সৈকতে গোসল করতে নেমেছিল এবং দুই বন্ধু নিখোঁজ হওয়ার তথ্য, প্রশাসন ও পরিবারকে বাকি ৪ বন্ধু কেন জানায়নি তা আমাদের সন্দেহ হচ্ছে। আমার ধারণা ঐশিককে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হতে পারে। এই ঘটনার সঠিক তদন্তের দাবি জানান তিনি।

নিহত মেহের ফারাবি অভ্র’র ছোট ভাই আবির হোসেন বলেন, বড় ভাইয়ের সঙ্গে সর্বশেষ শুক্রবার সকালে আম্মুর কথা হয়। তার পর থেকে ভাইয়ার সাথে আর কারো কথা হয়নি। লাশ আনতে তারা কক্সবাজার প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছেন বলেও জানান।

এদিকে, কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীরুল গিয়াস সাংবাদিকদের বলেন, যেহেতু দু’জনের লাশ মিলেছে, তারা কিভাবে সমুদ্রে গেছেন বা আগে কী ঘটেছিল, অধিকতর তদন্তের স্বার্থে চারজনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মৃতদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। রাতেই তারা কক্সবাজার আসবেন। ময়নাতদন্ত শেষেই পরিবারের কাছে লাশ দুটি হস্তান্তর করা হবে।

সমুদ্রে ভেসে আসা লাশ দুটি যশোরের দুই শিক্ষার্থীর 

 যশোর ব্যুরো 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার
রাফিদ ঐশিক ও মেহের ফারাবি অভ্র। ছবি: যুগান্তর

কক্সবাজারের সী-গাল পয়েন্ট থেকে শুক্রবার দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। আর শনিবার সমুদ্র সৈকতের নাজিরারটেক পয়েন্ট থেকে আরও এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত এই তিন লাশের মধ্যে দুইজন যশোরের বাসিন্দা। বন্ধুদের সঙ্গে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়ে লাশ হয়েছেন তারা।

উদ্ধারকৃত দুই লাশের মধ্যে একজন যশোর উপশহরের এ ব্লকের বাসিন্দা কবি কাসেদুজ্জামান সেলিমের ছেলে রাফিদ ঐশিক (২৩)। অন্যজন শহরের লালদিঘি এলাকার বাসিন্দা কলেজ শিক্ষক শাহরিয়ার মেহের ইবনে মিজানের ছেলে মেহের ফারাবি অভ্র (২৩)।

রাফিদ ঐশিক যশোর ক্যান্টমেন্ট কলেজের অর্নাস প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী এবং অভ্র ঢাকার একটি বেসরকারি ভার্সিটির প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

মৃত রাফিদ ঐশিকের বাবা কাসেদুজ্জামান সেলিম জানান, মঙ্গলবার ৬ বন্ধু একসঙ্গে কক্সবাজার বেড়াতে যায়। কিন্তু শুক্রবার দুপুর থেকে তাদের সাথে যোগযোগ করা সম্ভব হচ্ছিল না।

তিনি বলেন, শনিবার দুপুরে জানতে পারি শুক্রবার দুপুর ও বিকালে সৈকতের সি-গাল পয়েন্টে দুই যুবকের লাশ ভেসে আসে। তাদের একজন স্থানীয় আর অন্যজন রাফিদ ঐশিক। আর শনিবার ভেসে আসে ঐশিকের বন্ধু অভ্রর লাশ।

ঐশিকের বাবা কাসেদুজ্জামান সেলিম আরও বলেন, তারা কখন সৈকতে গোসল করতে নেমেছিল এবং দুই বন্ধু নিখোঁজ হওয়ার তথ্য, প্রশাসন ও পরিবারকে বাকি ৪ বন্ধু কেন জানায়নি তা আমাদের সন্দেহ হচ্ছে। আমার ধারণা ঐশিককে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হতে পারে। এই ঘটনার সঠিক তদন্তের দাবি জানান তিনি।

নিহত মেহের ফারাবি অভ্র’র ছোট ভাই আবির হোসেন বলেন, বড় ভাইয়ের সঙ্গে সর্বশেষ শুক্রবার সকালে আম্মুর কথা হয়। তার পর থেকে ভাইয়ার সাথে আর কারো কথা হয়নি। লাশ আনতে তারা কক্সবাজার প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছেন বলেও জানান।

এদিকে, কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীরুল গিয়াস সাংবাদিকদের বলেন, যেহেতু দু’জনের লাশ মিলেছে, তারা কিভাবে সমুদ্রে গেছেন বা আগে কী ঘটেছিল, অধিকতর তদন্তের স্বার্থে চারজনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মৃতদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। রাতেই তারা কক্সবাজার আসবেন। ময়নাতদন্ত শেষেই পরিবারের কাছে লাশ দুটি হস্তান্তর করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন