ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক
jugantor
ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

  পাবনা প্রতিনিধি  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:০৪:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনায় ইয়াবাসহ আদনান সুমন (২৫) নামের জেলা ছাত্রলীগের এক নেতা ও তার সহযোগী রাব্বি খানকে (২৪) আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

শুক্রবার গভীর রাতে পাবনা শহরের পূর্ব শালগাড়িয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করা হয়। এ সময় ১০০ ইয়াবা জব্দ করা হয়।

আটক আদনান সুমন সদর উপজেলার মহেন্দ্রপুর এলাকার আকতার হোসেনের ছেলে ও জেলা ছাত্রলীগের উপ-নাট্য বিষয়ক সম্পাদক। আটক অপরজন কবিরপুর এলাকার তোয়াজ খানের ছেলে রাব্বি খান (২৪)।

শনিবার বিকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। রাব্বি আদনান সুমনের সহযোগী বলে পুলিশ জানায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, ছাত্রলীগ নেতা আদনান সুমন দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক দ্রব্য বেচাকেনা করত। ছাত্রলীগের পদ ব্যবহার করে সে অবাধে এসব অপকর্ম করায় তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলার সাহস পায়নি। ঘটনার রাতে সে এলাকায় উঠতি বয়সী ছেলেদের কাছে ইয়াবা বিক্রি করছিল। গোপন খবর পেয়ে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার একটি টিম সেখানে অভিযান চালিয়ে ১০০ পিস ইয়াবাসহ তাকে হাতেনাতে আটক করে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ওসি) ওসি আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি ছাত্রলীগ নেতা তার এক সহযোগীকে সঙ্গে নিয়ে মহেন্দ্রপুরের সড়কে মাদক নিয়ে অপেক্ষা করছে। ফোর্স নিয়ে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম বলেন, ছাত্রলীগ কারও অপকর্মের দায়িত্ব নেবে না। সাংগঠনিক পরিপন্থী কাজে মাদকের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। সাংগঠনিকভাবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফিরোজ আলী বলেন, বিষয়টি কেন্দ্রীয় কমিটিকে অবগত করা হয়েছে। সেখান থেকে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

 পাবনা প্রতিনিধি 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনায় ইয়াবাসহ আদনান সুমন (২৫) নামের জেলা ছাত্রলীগের এক নেতা ও তার সহযোগী রাব্বি খানকে (২৪) আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

শুক্রবার গভীর রাতে পাবনা শহরের পূর্ব শালগাড়িয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করা হয়। এ সময় ১০০ ইয়াবা জব্দ করা হয়। 

আটক আদনান সুমন সদর উপজেলার মহেন্দ্রপুর এলাকার আকতার হোসেনের ছেলে ও জেলা ছাত্রলীগের উপ-নাট্য বিষয়ক সম্পাদক। আটক অপরজন কবিরপুর এলাকার তোয়াজ খানের ছেলে রাব্বি খান (২৪)।

শনিবার বিকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। রাব্বি আদনান সুমনের সহযোগী বলে পুলিশ জানায়। 

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, ছাত্রলীগ নেতা আদনান সুমন দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক দ্রব্য বেচাকেনা করত। ছাত্রলীগের পদ ব্যবহার করে সে অবাধে এসব অপকর্ম করায় তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলার সাহস পায়নি। ঘটনার রাতে সে এলাকায় উঠতি বয়সী ছেলেদের কাছে ইয়াবা বিক্রি করছিল। গোপন খবর পেয়ে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার একটি টিম সেখানে অভিযান চালিয়ে ১০০ পিস ইয়াবাসহ তাকে হাতেনাতে আটক করে। 

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ওসি) ওসি আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি  ছাত্রলীগ নেতা তার এক সহযোগীকে সঙ্গে নিয়ে মহেন্দ্রপুরের সড়কে মাদক নিয়ে অপেক্ষা করছে। ফোর্স নিয়ে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম বলেন, ছাত্রলীগ কারও অপকর্মের দায়িত্ব নেবে না। সাংগঠনিক পরিপন্থী কাজে মাদকের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। সাংগঠনিকভাবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফিরোজ আলী বলেন, বিষয়টি কেন্দ্রীয় কমিটিকে অবগত করা হয়েছে। সেখান থেকে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন