বান্দরবানে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে গুলি, ২ তরুণী আহত
jugantor
বান্দরবানে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে গুলি, ২ তরুণী আহত

  বান্দরবান প্রতিনিধি  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:২৯:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

বান্দরবানে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা গুলি করেছে। এ সময় গাড়িটি খাদে পড়ে ২ জন ভ্রমণকারী তরুণী আহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও স্থানীয়রা জানান, বান্দরবান সদর উপজেলার কুহালং ইউনিয়নের বান্দরবান-রাঙামাটি সড়কের গলাচিপা নামক স্থানে স্থানীয় ভ্রমণকারীদের গাড়ি লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে পাহাড়ের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের গুলিতে ভ্রমণকারীদের গাড়ির চাকা পাংচার হয়ে গাড়িটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে দুজন নারী ভ্রমণকারী আহত হন।

আহতরা হলেন- অয়সিংনু মারমা এবং মেহাইচিং মারমা। তাদের বাড়ি রাঙামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার পোয়ইতুপাড়া এলাকায়। বান্দরবান জেলার রুমা উপজেলার পর্যটন স্পট বগালেকসহ কয়কটি দর্শনীয় স্থান ভ্রমণ শেষে ১৯ জন ভ্রমণকারী নিজবাড়ি রাঙামাটির রাজস্থলীতে ফিরছিলেন।

এদিকে গুলিবর্ষণের ঘটনার পর দ্রুত ভ্রমণকারীরা পালিয়ে পার্শ্ববর্তী বাঙালহালিয়া বাজারে আশ্রয় নেন। খবর পেয়ে সেনাবাহিনী, পুলিশ প্রশাসনসহ স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে চন্দ্রোঘোনা খ্রিস্টান মিশনারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজনের দাবি, ভ্রমণকারীদের ওপর গুলিবর্ষণের ঘটনায় পাহাড়ের আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) সশস্ত্র ক্যাডাররা জড়িত। সন্ত্রাসীরা একশ চল্লিশ থেকে একশ পঞ্চাশ রাউন্ড গুলি করে বলে জানা গেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজা সরোয়ার বলেন, রুমা উপজেলায় ভ্রমণ শেষে রাঙামাটি জেলার রাজস্থলীতে ফেরার পথে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জের ধরে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। গুলিতে গাড়ি খাদে পড়ে কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে সেনাবাহিনী ও পুলিশ। তবে ভ্রমণকারীদের কেউই গুলিবিদ্ধ হয়নি বলে খবর পেয়েছি।

বান্দরবানে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে গুলি, ২ তরুণী আহত

 বান্দরবান প্রতিনিধি 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বান্দরবানে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা গুলি করেছে। এ সময় গাড়িটি খাদে পড়ে ২ জন ভ্রমণকারী তরুণী আহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও স্থানীয়রা জানান, বান্দরবান সদর উপজেলার কুহালং ইউনিয়নের বান্দরবান-রাঙামাটি সড়কের গলাচিপা নামক স্থানে স্থানীয় ভ্রমণকারীদের গাড়ি লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে পাহাড়ের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের গুলিতে ভ্রমণকারীদের গাড়ির চাকা পাংচার হয়ে গাড়িটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে দুজন নারী ভ্রমণকারী আহত হন। 

আহতরা হলেন- অয়সিংনু মারমা এবং মেহাইচিং মারমা। তাদের বাড়ি রাঙামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার পোয়ইতুপাড়া এলাকায়। বান্দরবান জেলার রুমা উপজেলার পর্যটন স্পট বগালেকসহ কয়কটি দর্শনীয় স্থান ভ্রমণ শেষে ১৯ জন ভ্রমণকারী নিজবাড়ি রাঙামাটির রাজস্থলীতে ফিরছিলেন।

এদিকে গুলিবর্ষণের ঘটনার পর দ্রুত ভ্রমণকারীরা পালিয়ে পার্শ্ববর্তী বাঙালহালিয়া বাজারে আশ্রয় নেন। খবর পেয়ে সেনাবাহিনী, পুলিশ প্রশাসনসহ স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে চন্দ্রোঘোনা খ্রিস্টান মিশনারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। 

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজনের দাবি,  ভ্রমণকারীদের ওপর গুলিবর্ষণের ঘটনায় পাহাড়ের আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) সশস্ত্র ক্যাডাররা জড়িত। সন্ত্রাসীরা একশ চল্লিশ থেকে একশ পঞ্চাশ রাউন্ড গুলি করে বলে জানা গেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজা সরোয়ার বলেন, রুমা উপজেলায় ভ্রমণ শেষে রাঙামাটি জেলার রাজস্থলীতে ফেরার পথে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জের ধরে ভ্রমণকারীদের গাড়িতে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। গুলিতে গাড়ি খাদে পড়ে কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে সেনাবাহিনী ও পুলিশ। তবে ভ্রমণকারীদের কেউই গুলিবিদ্ধ হয়নি বলে খবর পেয়েছি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন