মায়ের ওপর অভিমান করে ছাত্রের আত্মহত্যা
jugantor
মায়ের ওপর অভিমান করে ছাত্রের আত্মহত্যা

  নোয়াখালী ও চাটখিল প্রতিনিধি  

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৯:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

ছাত্রের আত্মহত্যা

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় মায়ের ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে পলাশ নন্দী নামে এক ছাত্র আত্মহত্যা করেছে।

পলাশ নন্দী (১৫) উপজেলার ৯নং খিলপাড়া ইউনিয়নের নন্দীবাড়ির দুলাল নন্দীর ছেলে। সে স্থানীয় খিলপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

রোববার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এর আগে শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সে বসতঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পলাশ তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে মায়ের ওপর অভিমান করে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে শনিবার সন্ধ্যার বসতঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পরে পরিবারের সদস্যরা তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

পুলিশ রাত ১২টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

চাটখিল থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, রোববার সকালে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে।

মায়ের ওপর অভিমান করে ছাত্রের আত্মহত্যা

 নোয়াখালী ও চাটখিল প্রতিনিধি 
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ছাত্রের আত্মহত্যা
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় মায়ের ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে পলাশ নন্দী নামে এক ছাত্র আত্মহত্যা করেছে।

পলাশ নন্দী (১৫) উপজেলার ৯নং খিলপাড়া ইউনিয়নের নন্দীবাড়ির দুলাল নন্দীর ছেলে। সে স্থানীয় খিলপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

রোববার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এর আগে শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সে বসতঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পলাশ তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে মায়ের ওপর অভিমান করে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে শনিবার সন্ধ্যার বসতঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। 

পরে পরিবারের সদস্যরা তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। 

পুলিশ রাত ১২টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

চাটখিল থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, রোববার সকালে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন