সীমিত আকারে শুভ মধুপূর্ণিমা উদযাপিত
jugantor
সীমিত আকারে শুভ মধুপূর্ণিমা উদযাপিত

  বান্দরবান প্রতিনিধি  

২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪২:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নানা আয়োজনে বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের শুভ মধুপূর্ণিমা পালিত হয়েছে। সোমবার সকালে বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ করোনার কারণে সীমিত আকারে মধুপূর্ণিমা উদযাপিত হয়।

বান্দরবানের বিভিন্ন বৌদ্ধবিহারে ধর্মীয় গুরু ভান্তেদের ছোয়াই দান (উৎকৃষ্ট খাবার), বুদ্ধ পূজা ও সমবেত প্রার্থনার মাধ্যমে মধুপূর্ণিমার অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়।

এ সময় রাজগুরু বৌদ্ধবিহার, কেন্দ্রীয় বৌদ্ধবিহার, সার্বজনীন বৌদ্ধবিহারসহ পাহাড়ের বৌদ্ধ বিহারগুলোতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী দায়ক-দায়িকা বিহারে বিহারে উপস্থিত হয়ে বিহারাধ্যক্ষদের মধুসহ বিভিন্ন ফলমূল ও পানীয় দান করে।

বান্দরবান সদরের উজানীপাড়া রাজগুরু মহাবৌদ্ধবিহারে ধর্মীয় দেশনা প্রদান করেন বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ড. সুবন্নলংকারা মহাথের। তবে কোভিড-১৯ এর কারণে অনুষ্ঠানমালা অনেকটাই সীমিত করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আয়োজন কমিটির সদস্য বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী রাহুল বড়ুয়া ছোটন বলেন, মহামারি করোনার কারণে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে সংক্ষিপ্ত আকারে শুভ মধুপূর্ণিমা উদযাপন করা হচ্ছে। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা সকালে বিহারগুলোতে ভান্তেদের ছোয়াই দান (উৎকৃষ্ট খাবার), বুদ্ধপূজা ও সমবেত প্রার্থনায় অংশ নেয়। সন্ধ্যায় আকাশে ফানুস উড়িয়ে ও মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলন এবং সমবেত প্রার্থনার মধ্য দিয়ে এই শুভ মধুপূর্ণিমার সমাপ্তি হয়।

সীমিত আকারে শুভ মধুপূর্ণিমা উদযাপিত

 বান্দরবান প্রতিনিধি 
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নানা আয়োজনে বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের শুভ মধুপূর্ণিমা পালিত হয়েছে। সোমবার সকালে বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ করোনার কারণে সীমিত আকারে মধুপূর্ণিমা উদযাপিত হয়।

বান্দরবানের বিভিন্ন বৌদ্ধবিহারে ধর্মীয় গুরু ভান্তেদের ছোয়াই দান (উৎকৃষ্ট খাবার), বুদ্ধ পূজা ও সমবেত প্রার্থনার মাধ্যমে মধুপূর্ণিমার অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়।

এ সময় রাজগুরু বৌদ্ধবিহার, কেন্দ্রীয় বৌদ্ধবিহার, সার্বজনীন বৌদ্ধবিহারসহ পাহাড়ের বৌদ্ধ বিহারগুলোতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী দায়ক-দায়িকা বিহারে বিহারে উপস্থিত হয়ে বিহারাধ্যক্ষদের মধুসহ বিভিন্ন ফলমূল ও পানীয় দান করে।

বান্দরবান সদরের উজানীপাড়া রাজগুরু মহাবৌদ্ধবিহারে ধর্মীয় দেশনা প্রদান করেন বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ড. সুবন্নলংকারা মহাথের। তবে কোভিড-১৯ এর কারণে অনুষ্ঠানমালা অনেকটাই সীমিত করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আয়োজন কমিটির সদস্য বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী রাহুল বড়ুয়া ছোটন বলেন, মহামারি করোনার কারণে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে সংক্ষিপ্ত আকারে শুভ মধুপূর্ণিমা উদযাপন করা হচ্ছে। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা সকালে বিহারগুলোতে ভান্তেদের ছোয়াই দান (উৎকৃষ্ট খাবার), বুদ্ধপূজা ও সমবেত প্রার্থনায় অংশ নেয়। সন্ধ্যায় আকাশে ফানুস উড়িয়ে ও মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলন এবং সমবেত প্রার্থনার মধ্য দিয়ে এই শুভ মধুপূর্ণিমার সমাপ্তি হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন