নারায়ণগঞ্জে টেন্ডারের ৩ বছর পর রাস্তা সংস্কার
jugantor
নারায়ণগঞ্জে টেন্ডারের ৩ বছর পর রাস্তা সংস্কার

  রাজু আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ  

২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৪৩:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নগরীর অন্যতম ব্যস্ত একটি সড়কের সংস্কারের কাজ ৩ বছর আগে টেন্ডার হলেও সেটি শুরু হয়েছে সোমবার। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ এই সড়কটির টেন্ডার আহবান করেছিল ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিল।

কিন্তু করোনাসহ নানা অজুহাতে সংস্কার বন্ধ রেখে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ঠিক আগ মুহূর্তে এই সড়কের সংস্কার কাজ শুরু করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি। নারায়ণগঞ্জ শহরের ডাক বাংলো থেকে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত ওই সড়কের কার্পেটিং কাজটি পেয়েছিলেন রত্না এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক জাকির হোসেন।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অফিস-আদালত খোলা থাকা অবস্থায় এই সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় পুরো নগরী জুড়ে ছিল তীব্র যানজট। বিশেষ করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে কয়েক কিলোমিটার এলাকায় ছিল ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানবাহনের লাইন। এ সড়কের একপাশে নারায়ণগঞ্জের সবচেয়ে বড় কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় সরকারি তোলারাম কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ও আরেক পাশে সরকারি মহিলা উচ্চ বিদ্যালয় অবস্থিত।

তাছাড়া বিসিক নীট পল্লীর প্রায় কয়েকশ গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার শ্রমিকরা এই সড়ক দিয়েই আসা যাওয়া করেন। সোমবার সকাল থেকেই কাজ শুরু হবার পর থেকে পুরো নগরীজুড়ে ব্যাপক যানজট দেখা দেয়। ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা যানজট নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে হিমশিম খান।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সালের ১৬এপ্রিল সিটি কর্পোরেশন এলাকার কয়েকটি সড়ক পুনঃসংস্কারের কাজের জন্য দরপত্র আহবান করা হয়। কয়েকটি সড়ক মিলিয়ে এ উন্নয়ন কাজের ব্যয় ধরা হয়েছে ২ কোটি ১৪ লাখ টাকা। কাজটি পায় রত্মা এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান, যার মালিকের নাম জাকির হোসেন।

অভিযোগ রয়েছে, ঠিকাদার জাকির হোসেন সিটি কর্পোরেশনের অধিকাংশ টেন্ডারের কাজই পেয়ে থাকেন বলে তিনি বেশ প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিতি। উন্নয়ন কাজের টেন্ডার পাবার পর তাদের সুবিধাজনক সময়ে যখন যেভাবে ইচ্ছা তারা কাজ করেন। যেমনটি তিনি এই সড়কের সংস্কার টেন্ডারের ৩ বছর পেরিয়ে গেলেও তিনি এই সংস্কার কাজ না করেই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আগে কাজ শুরু করেছেন।

এদিকে এ ব্যাপারে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রত্না এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী জাকির বলেন, আমি মনে করি এলাকাবাসী সন্তুষ্ট। আর তিন বছর নয়, ৬ থেকে ৮ মাস আগে টেন্ডার হয়েছে, আমার যতদূর মনে পড়ে। কাজটি বৃষ্টিসহ নানা কারণে এতদিন করা হয়নি। কাল কলেজ রোডের কাজ করব এবং চাষাঢ়ার সড়কের কিছু কাজ বাকি আছে সেটাও আশা করি ৩ দিনের মধ্যে সমাপ্ত হবে।

তবে কাজের কার্যাদেশে দেওয়া সময়সীমার মধ্যে কাজ সম্পন্ন না করার জন্য সিটি কর্পোরেশন থেকে কোনো নোটিশ দেওয়া হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান তিনি।

নারায়ণগঞ্জে টেন্ডারের ৩ বছর পর রাস্তা সংস্কার

 রাজু আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ 
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নগরীর অন্যতম ব্যস্ত একটি সড়কের সংস্কারের কাজ ৩ বছর আগে টেন্ডার হলেও সেটি শুরু হয়েছে সোমবার। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ এই সড়কটির টেন্ডার আহবান করেছিল ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিল। 

কিন্তু করোনাসহ নানা অজুহাতে সংস্কার বন্ধ রেখে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ঠিক আগ মুহূর্তে এই সড়কের সংস্কার কাজ শুরু করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি। নারায়ণগঞ্জ শহরের ডাক বাংলো থেকে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত ওই সড়কের কার্পেটিং কাজটি পেয়েছিলেন রত্না এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক জাকির হোসেন।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অফিস-আদালত খোলা থাকা অবস্থায় এই সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় পুরো নগরী জুড়ে ছিল তীব্র যানজট। বিশেষ করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে কয়েক কিলোমিটার এলাকায় ছিল ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানবাহনের লাইন। এ সড়কের একপাশে নারায়ণগঞ্জের সবচেয়ে বড় কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় সরকারি তোলারাম কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ও আরেক পাশে সরকারি মহিলা উচ্চ বিদ্যালয় অবস্থিত। 

তাছাড়া বিসিক নীট পল্লীর প্রায় কয়েকশ গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার শ্রমিকরা এই সড়ক দিয়েই আসা যাওয়া করেন। সোমবার সকাল থেকেই কাজ শুরু হবার পর থেকে পুরো নগরীজুড়ে ব্যাপক যানজট দেখা দেয়। ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা যানজট নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে হিমশিম খান।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সালের ১৬এপ্রিল সিটি কর্পোরেশন এলাকার কয়েকটি সড়ক পুনঃসংস্কারের কাজের জন্য দরপত্র আহবান করা হয়। কয়েকটি সড়ক মিলিয়ে এ উন্নয়ন কাজের ব্যয় ধরা হয়েছে ২ কোটি ১৪ লাখ টাকা। কাজটি পায় রত্মা এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান, যার মালিকের নাম জাকির হোসেন। 

অভিযোগ রয়েছে, ঠিকাদার জাকির হোসেন সিটি কর্পোরেশনের অধিকাংশ টেন্ডারের কাজই পেয়ে থাকেন বলে তিনি বেশ প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিতি। উন্নয়ন কাজের টেন্ডার পাবার পর তাদের সুবিধাজনক সময়ে যখন যেভাবে ইচ্ছা তারা কাজ করেন। যেমনটি তিনি এই সড়কের সংস্কার টেন্ডারের ৩ বছর পেরিয়ে গেলেও তিনি এই সংস্কার কাজ না করেই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আগে কাজ শুরু করেছেন। 

এদিকে এ ব্যাপারে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রত্না এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী জাকির বলেন, আমি মনে করি এলাকাবাসী সন্তুষ্ট। আর তিন বছর নয়, ৬ থেকে ৮ মাস আগে টেন্ডার হয়েছে, আমার যতদূর মনে পড়ে। কাজটি বৃষ্টিসহ নানা কারণে এতদিন করা হয়নি। কাল কলেজ রোডের কাজ করব এবং চাষাঢ়ার সড়কের কিছু কাজ বাকি আছে সেটাও আশা করি ৩ দিনের মধ্যে সমাপ্ত হবে। 

তবে কাজের কার্যাদেশে দেওয়া সময়সীমার মধ্যে কাজ সম্পন্ন না করার জন্য সিটি কর্পোরেশন থেকে কোনো নোটিশ দেওয়া হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন