বন্ধুর জন্মদিনের কথা বলে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ
jugantor
বন্ধুর জন্মদিনের কথা বলে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:০৭:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের রেস্টহাউসে এনে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত রেলওয়ে কর্মচারী মাহমুদুল হাসান সাগর পলাতক রয়েছেন।

সোমবার রাত ৮টার দিকে রেলস্টেশন এলাকার ওই রেলওয়ের রেস্টহাউসের টয়লেটে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা হলেও অভিযুক্ত সাগরকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। তবে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

সাগর রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগের চতুর্থ শ্রেণির অস্থায়ী কর্মচারী।

জিআরপি পুলিশ জানায়, সোমবার সন্ধ্যার পর বন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠানের কথা বলে পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া ওই ছাত্রীকে বাসা থেকে কিশোরগঞ্জে রেলওয়ে স্টেশনের দ্বিতীয় তলায় ভিআইপি রেস্টহাউসে নিয়ে যায় রেলওয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মাহমুদুল হাসান সাগর।

সেখানে নিয়ে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে রেস্টহাউসের টয়লেটে মেয়েটিকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করে। রাত ৮টার দিকে মেয়েটির চিৎকার শুনে জিআরপি থানা পুলিশ ও স্টেশনের লোকজন সেখানে গিয়ে দরজার ছিটকিনি ভেঙে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে। এ সময় জানালা দিয়ে পালিয়ে যায় সাগর।

তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানান জিআরপি থানার দারোগা মোহা. এমদাদুল হক।

কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার জয়নাল মিয়া জানান, সিসি ক্যামেরার ফুটেজে সন্ধ্যার পর সাগর মেয়েটিকে নিয়ে রেস্টহাউসে যেতে দেখা যায়। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মেয়েটির ভাই বাদী হয়ে রাতেই সাগরের নামে রেলওয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা রুজু করেন।

বন্ধুর জন্মদিনের কথা বলে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কিশোরগঞ্জ
ছবি: যুগান্তর

কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের রেস্টহাউসে এনে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত রেলওয়ে কর্মচারী মাহমুদুল হাসান সাগর পলাতক রয়েছেন।

সোমবার রাত ৮টার দিকে রেলস্টেশন এলাকার ওই রেলওয়ের রেস্টহাউসের টয়লেটে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা হলেও অভিযুক্ত সাগরকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। তবে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

সাগর রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগের চতুর্থ শ্রেণির অস্থায়ী কর্মচারী। 

 জিআরপি পুলিশ জানায়, সোমবার সন্ধ্যার পর বন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠানের কথা বলে পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া ওই ছাত্রীকে বাসা থেকে কিশোরগঞ্জে রেলওয়ে স্টেশনের দ্বিতীয় তলায় ভিআইপি রেস্টহাউসে নিয়ে যায় রেলওয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মাহমুদুল হাসান সাগর।

সেখানে নিয়ে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে রেস্টহাউসের টয়লেটে মেয়েটিকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করে। রাত ৮টার দিকে মেয়েটির চিৎকার শুনে জিআরপি থানা পুলিশ ও স্টেশনের লোকজন সেখানে গিয়ে দরজার ছিটকিনি ভেঙে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে। এ সময় জানালা দিয়ে পালিয়ে যায় সাগর।

তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানান জিআরপি থানার দারোগা মোহা. এমদাদুল হক।

কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার জয়নাল মিয়া জানান, সিসি ক্যামেরার ফুটেজে সন্ধ্যার পর সাগর মেয়েটিকে নিয়ে রেস্টহাউসে যেতে দেখা যায়। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মেয়েটির ভাই বাদী হয়ে রাতেই সাগরের নামে রেলওয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা রুজু করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন