যুবলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ
jugantor
যুবলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:২৬:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর সদর উপজেলার সুধারাম থানার এক যুবলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে কিশোরীকে (১৭) তার বসত ঘরের সামনে থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। ভুক্তভোগী কিশোরী বর্তমানে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অভিযুক্ত আবদুর রহমান বাপ্পী (১৬) উপজেলার অশ্বদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক খায়ের উল্যাহ ওরফে উকিলের ছেলে।

সোমবার দিবাগত রাতে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোরীর পিতা সুধারাম থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর আগে সোমবার বিকাল ৫টায় অশ্বদিয়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী কিশোরীর পিতা অভিযোগ করেন, সোমবার বিকাল ৫টার দিকে তার মেয়েকে ঘরের সামনে একা পেয়ে যুবলীগ নেতা উকিলের ছেলে বাপ্পী ঘরের সামনে থেকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি ভিটার ওপর ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে সে আমার মেয়েকে বেধড়ক মারধর করে।

তিনি বলেন, ওই সময় স্থানীয় এক নারী ঘটনাটি দেখতে পেয়ে এগিয়ে এলে বাপ্পী পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ করায় বাপ্পীর পরিবার ও তাদের সঙ্গী ময়রা বর্তমানে বাপ্পীর পরিবারের সদস্যরা ও তাদের যোগসাজশে বিভিন্ন মহল থেকে থানা থেকে লিখিত অভিযোগ তুলে নিতে আমাদেরকে হুমকি ধমকি দিচ্ছে।

অভিযুক্ত কিশোরের পিতা যুবলীগ নেতা খায়ের উল্যাহ ওরফে উকিল বলেন, সোমবার বিকালে ভুক্তভোগী পরিবার আমাকে তাদের বাড়িতে ডেকে পাঠায়। তখন তারা আমাকে অভিযোগ করে আমার ছেলে নাকি তাদের মেয়েকে মারধর করে। পরে আমাদের সমাজের লোকেরা বলে এটা আমরা বসে সমাধান করে দেব। তাৎক্ষণিক মেয়েকে চিকিৎসা করার জন্য আমি দুই হাজার টাকা দিয়েছি। এ সময় আমরা দুই পক্ষই স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করি। যারা অভিযোগ করেছে তাদের পরিবার একটু এলোমেলো। আমার ছেলে আমার ফোন ধরছে না। আমার ছেলের সঙ্গে কথা বলা ছাড়া এ বিষয়ে এখন আর কিছু বলতে পারব না। তবে তার ছেলে ধর্ষণের চেষ্টা করেনি বলেও তিনি দাবি করেন।

সুধারাম থানার ওসি মো. সাহেদ উদ্দিন জানান, এ বিষয়ে সোমবার গভীর রাতে ভুক্তভোগীর পিতা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তবে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

যুবলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর সদর উপজেলার সুধারাম থানার এক যুবলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে কিশোরীকে (১৭) তার বসত ঘরের সামনে থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। ভুক্তভোগী কিশোরী বর্তমানে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অভিযুক্ত আবদুর রহমান বাপ্পী (১৬) উপজেলার অশ্বদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক খায়ের উল্যাহ ওরফে উকিলের ছেলে।

সোমবার দিবাগত রাতে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোরীর পিতা সুধারাম থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর আগে সোমবার বিকাল ৫টায় অশ্বদিয়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী কিশোরীর পিতা অভিযোগ করেন, সোমবার বিকাল ৫টার দিকে তার মেয়েকে ঘরের সামনে একা পেয়ে যুবলীগ নেতা উকিলের ছেলে বাপ্পী ঘরের সামনে থেকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি ভিটার ওপর ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে সে আমার মেয়েকে বেধড়ক মারধর করে।

তিনি বলেন, ওই সময় স্থানীয় এক নারী ঘটনাটি দেখতে পেয়ে এগিয়ে এলে বাপ্পী পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ করায় বাপ্পীর পরিবার ও তাদের সঙ্গী ময়রা বর্তমানে বাপ্পীর পরিবারের সদস্যরা ও তাদের যোগসাজশে বিভিন্ন মহল থেকে থানা থেকে লিখিত অভিযোগ তুলে নিতে আমাদেরকে হুমকি ধমকি দিচ্ছে।

অভিযুক্ত কিশোরের পিতা যুবলীগ নেতা খায়ের উল্যাহ ওরফে উকিল বলেন, সোমবার বিকালে ভুক্তভোগী পরিবার আমাকে তাদের বাড়িতে ডেকে পাঠায়। তখন তারা আমাকে অভিযোগ করে আমার ছেলে নাকি তাদের মেয়েকে মারধর করে। পরে আমাদের সমাজের লোকেরা বলে এটা আমরা বসে সমাধান করে দেব। তাৎক্ষণিক মেয়েকে চিকিৎসা করার জন্য আমি দুই হাজার টাকা দিয়েছি। এ সময় আমরা দুই পক্ষই স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করি। যারা অভিযোগ করেছে তাদের পরিবার একটু এলোমেলো। আমার ছেলে আমার ফোন ধরছে না। আমার ছেলের সঙ্গে কথা বলা ছাড়া এ বিষয়ে এখন আর কিছু বলতে পারব না। তবে তার ছেলে ধর্ষণের চেষ্টা করেনি বলেও তিনি দাবি করেন।

সুধারাম থানার ওসি মো. সাহেদ উদ্দিন জানান, এ বিষয়ে সোমবার গভীর রাতে ভুক্তভোগীর পিতা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তবে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন