শীতলক্ষ্যা পাড়ি দিয়েও রক্ষা হলো না মাদকাসক্ত খোকনের
jugantor
শীতলক্ষ্যা পাড়ি দিয়েও রক্ষা হলো না মাদকাসক্ত খোকনের

  ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩৬:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদকাসক্ত

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ৬ দিন আগে ছুরি দেখিয়ে একটি ইজিবাইক ছিনিয়ে পালিয়ে যান তিন ছিনতাইকারী।ইজিবাইকের মালিক ও চালক থানায় অভিযোগ করে ছিনতাইকারীদের খুঁজতে বের হন।

সোমবার রাত ১০টা থেকে বিভিন্ন স্থানে খুঁজতে থাকনে তারা। একপর্যায়ে শহরের ৫নং ঘাট এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে গিয়ে তিন ছিনতাইকারীর মধ্যে খোকন নামে একজনকে চিনতে পারেন তারা।তখন রাত আড়াইটা। খোকনের কাছে ছিনিয়ে নেওয়া ইজিবাইকটি ফেরত চান তারা। কিন্তু খোকন ক্ষিপ্ত হয়ে ছুরি বের করে তাদের ধাওয়া দেন। তখন ইজিবাইক মালিক রাব্বি ফতুল্লা থানায় ফোন করেন। এ সময় পুলিশ ৫নং ঘাটে তাৎক্ষনিক উপস্থিত হলে ছিনতাইকারী খোকন ছুরি ফেলে শীতলক্ষ্যা নদীতে ঝাপ দিয়ে সাঁতরাতে থাকেন।

পুলিশ ও ইজিবাইক মালিক রাব্বি জানান, ছিনতাইকারী খোকন নদীতে ঝাঁপ দিয়ে খুব দ্রুত সাঁতরাতে থাকেন। খোকন দীর্ঘ শীতলক্ষ্যা পাড়ি দিয়ে তীরে গিয়ে দুর্বল হয়ে পড়েন। এরপর পুলিশের সহযোগীতায় তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে শহরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মাদকাসক্ত খোকন বন্দর উপজেলার শাহী মসজিদ এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে। মাদকাসক্ত হয়ে চুরি ছিনতাই করায় এক কন্যাশিশু ও খোকনকে রেখে তার স্ত্রী চলে যায়। বর্তমানে খোকন শিশু কন্যাকে নিয়ে ফতুল্লার তল্লা সবুজবাগ এলাকায় বসবাস করেন।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, মামলা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।আটক খোকন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শীতলক্ষ্যা পাড়ি দিয়েও রক্ষা হলো না মাদকাসক্ত খোকনের

 ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মাদকাসক্ত
মাদকাসক্ত খোকন। ছবি: যুগান্তর

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ৬ দিন আগে ছুরি দেখিয়ে একটি ইজিবাইক ছিনিয়ে পালিয়ে যান তিন ছিনতাইকারী। ইজিবাইকের মালিক ও চালক থানায় অভিযোগ করে ছিনতাইকারীদের খুঁজতে বের হন।

সোমবার রাত ১০টা থেকে বিভিন্ন স্থানে খুঁজতে থাকনে তারা। একপর্যায়ে শহরের ৫নং ঘাট এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে গিয়ে তিন ছিনতাইকারীর মধ্যে খোকন নামে একজনকে চিনতে পারেন তারা। তখন রাত আড়াইটা। খোকনের কাছে ছিনিয়ে নেওয়া ইজিবাইকটি ফেরত চান তারা। কিন্তু খোকন ক্ষিপ্ত হয়ে ছুরি বের করে তাদের ধাওয়া দেন। তখন ইজিবাইক মালিক রাব্বি ফতুল্লা থানায় ফোন করেন। এ সময় পুলিশ ৫নং ঘাটে তাৎক্ষনিক উপস্থিত হলে ছিনতাইকারী খোকন ছুরি ফেলে শীতলক্ষ্যা নদীতে ঝাপ দিয়ে সাঁতরাতে থাকেন।

পুলিশ ও ইজিবাইক মালিক রাব্বি  জানান, ছিনতাইকারী খোকন নদীতে ঝাঁপ দিয়ে খুব দ্রুত সাঁতরাতে থাকেন। খোকন দীর্ঘ শীতলক্ষ্যা পাড়ি দিয়ে তীরে গিয়ে দুর্বল হয়ে পড়েন। এরপর পুলিশের সহযোগীতায় তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে শহরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

মাদকাসক্ত খোকন বন্দর উপজেলার শাহী মসজিদ এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে। মাদকাসক্ত হয়ে চুরি ছিনতাই করায় এক কন্যাশিশু ও খোকনকে রেখে তার স্ত্রী চলে যায়। বর্তমানে খোকন শিশু কন্যাকে নিয়ে ফতুল্লার তল্লা সবুজবাগ এলাকায় বসবাস করেন।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, মামলা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে। আটক খোকন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন