বিয়ের কথাবার্তার মধ্যে বরের মৃত্যু নিয়ে রহস্য
jugantor
বিয়ের কথাবার্তার মধ্যে বরের মৃত্যু নিয়ে রহস্য

  কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:৪৭:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে বিয়ের তারিখ ঠিক করার দিনে পলাশ চন্দ্র নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় তার মৃত্যু হলে ১১টায় লাশ দাহ্য করার সময় পুলিশ লাশের অংশ বিশেষ উদ্ধার করেছে।

ওই যুবক বড়ভিটা ইউনিয়নের বড়ডুমরিয়া কামারপাড়া গ্রামের জনক চন্দ্রের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায়, পাশের বাড়ির কাল্টু চন্দ্রের মেয়ের সঙ্গে পলাশের সম্পর্কের বিষয়ে মেয়ের পরিবার দাবি করেন। কিন্তু ওই যুবক তাদের মধ্যে সম্পর্কের বিষয়টি অস্বীকার করেন। মামলার ভয়ে ওই মেয়ের সঙ্গে পরিবারের লোকজন তার বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। দফারফা শেষে নগদ ১ লাখ টাকা যৌতুক ও মোটরসাইকেল দেয়ার ঠিক হয়।

মঙ্গলবার বিকালে আগমনী টাকা দেয়া ও বরের নিরীক্ষণি অনুষ্ঠানে উভয় পরিবার তাদের আত্মীয়-স্বজনকে দাওয়াত দেয়। কিন্তু সকালে বর পলাশ তার নিজ ঘরে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করার ঘটনা প্রকাশ পায়। পরিবারের লোকজন তড়িঘড়ি করে তার লাশ দাহ্য করার সময় ভস্মীভূত ওই লাশের অংশ বিশেষ পুলিশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল জানান, প্রাথমিকভাবে এটা আত্মহত্যা মনে হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। ছেলের পরিবারের কোনো অভিযোগ নেই। তার পরেও তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

বিয়ের কথাবার্তার মধ্যে বরের মৃত্যু নিয়ে রহস্য

 কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে বিয়ের তারিখ ঠিক করার দিনে পলাশ চন্দ্র নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় তার মৃত্যু হলে ১১টায় লাশ দাহ্য করার সময় পুলিশ লাশের অংশ বিশেষ উদ্ধার করেছে।

ওই যুবক বড়ভিটা ইউনিয়নের বড়ডুমরিয়া কামারপাড়া গ্রামের জনক চন্দ্রের ছেলে। 

এলাকাবাসী জানায়, পাশের বাড়ির কাল্টু চন্দ্রের মেয়ের সঙ্গে পলাশের সম্পর্কের বিষয়ে মেয়ের পরিবার দাবি করেন। কিন্তু ওই যুবক তাদের মধ্যে সম্পর্কের বিষয়টি অস্বীকার করেন। মামলার ভয়ে ওই মেয়ের সঙ্গে পরিবারের লোকজন তার বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। দফারফা শেষে নগদ ১ লাখ টাকা যৌতুক ও মোটরসাইকেল দেয়ার ঠিক হয়।

মঙ্গলবার বিকালে আগমনী টাকা দেয়া ও বরের নিরীক্ষণি অনুষ্ঠানে উভয় পরিবার তাদের আত্মীয়-স্বজনকে দাওয়াত দেয়। কিন্তু সকালে বর পলাশ তার নিজ ঘরে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করার ঘটনা প্রকাশ পায়। পরিবারের লোকজন তড়িঘড়ি করে তার লাশ দাহ্য করার সময় ভস্মীভূত ওই লাশের অংশ বিশেষ পুলিশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।   

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল জানান, প্রাথমিকভাবে এটা আত্মহত্যা মনে হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। ছেলের পরিবারের কোনো অভিযোগ নেই। তার পরেও তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন