ঘরে মায়ের ঝুলন্ত লাশ, বিছানায় ছেলের
jugantor
ঘরে মায়ের ঝুলন্ত লাশ, বিছানায় ছেলের

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৯:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নিহতদের স্বজনদের আহাজারি

কুষ্টিয়ায় ৯ মাসের ছেলেসন্তানকে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন।

বুধবার ভোরে শহরের থানাপাড়া বাঁধ এলাকা থেকে মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘরে মায়ের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়াযায়; পাশে বিছানায় ছিল ৯ মাসের শিশু জিমের নিথর দেহ।

নিহত আকলিমা খাতুন থানাপাড়া বাঁধ এলাকার রতনের স্ত্রী ও তা মেয়ে জিম।

এলাকাবাসী জানান, গড়াই নদীসংলগ্ন থানাপাড়ার পুরনো বাঁধে স্বামী রতনের বাড়িতে বসবাস করতেন আকলিমা খাতুন। স্বামীর বাড়ির পাশেই বাবা মাজেদের বাড়ি। স্বামীর বাড়িতে সংস্কারকাজ করায় মঙ্গলবার রাতে বাবার বাড়িতে ৯ মাসের শিশুসন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন আকলিমা।
বুধবার ভোরে এলাকাবাসী আকলিমার ঘরে ঢুকে দেখতে পান আকলিমার লাশ ঝুলছে। পাশেই বিছানায় শিশু জিমের নিথর দেহ পড়ে আছে। তাৎক্ষনিক স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন।

খবর পেয়ে পুলিশ মা ও শিশুসন্তানের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তবে ধারণা করা হচ্ছে— আকলিমা তার শিশু ছেলেকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার পর নিজেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

এলাকাবাসী জানান, আকলিমা দীর্ঘদিন মানসিকভাবে অসুস্থ। তার চিকিৎসা চলছিল। তার প্রথম পক্ষের স্বামী দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে। ঘটনার সময় আকলিমার স্বামী একই এলাকায় তার নিজ বাড়িতে ছিল।

কুষ্টিয়া মডেল থানা ওসি সাব্বিরুল ইসলাম জানান, থানাপাড়া বাঁধের একটি বাড়ি থেকে মা ও শিশুসন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আকলিমা মানসিক রোগী ছিলেন।

প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে— ওই নারী আত্মহত্যা করেছেন। তবে তদন্ত প্রতিবেদন পেলে সব কিছু নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ঘরে মায়ের ঝুলন্ত লাশ, বিছানায় ছেলের

 কুষ্টিয়া প্রতিনিধি 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নিহতদের স্বজনদের আহাজারি
ছবি: যুগান্তর

কুষ্টিয়ায় ৯ মাসের ছেলেসন্তানকে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। 

বুধবার ভোরে শহরের থানাপাড়া বাঁধ এলাকা থেকে মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘরে মায়ের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়; পাশে বিছানায় ছিল ৯ মাসের শিশু জিমের নিথর দেহ। 

নিহত আকলিমা খাতুন থানাপাড়া বাঁধ এলাকার রতনের স্ত্রী ও তা মেয়ে জিম।

এলাকাবাসী জানান, গড়াই নদীসংলগ্ন থানাপাড়ার পুরনো বাঁধে স্বামী রতনের বাড়িতে বসবাস করতেন আকলিমা খাতুন। স্বামীর বাড়ির পাশেই বাবা মাজেদের বাড়ি। স্বামীর বাড়িতে সংস্কারকাজ করায় মঙ্গলবার রাতে বাবার বাড়িতে ৯ মাসের শিশুসন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন আকলিমা। 
বুধবার ভোরে এলাকাবাসী আকলিমার ঘরে ঢুকে দেখতে পান আকলিমার লাশ ঝুলছে। পাশেই বিছানায় শিশু জিমের নিথর দেহ পড়ে আছে। তাৎক্ষনিক স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন।

খবর পেয়ে পুলিশ মা ও শিশুসন্তানের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তবে ধারণা করা হচ্ছে— আকলিমা তার শিশু ছেলেকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার পর নিজেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। 

এলাকাবাসী জানান, আকলিমা দীর্ঘদিন মানসিকভাবে অসুস্থ। তার চিকিৎসা চলছিল। তার প্রথম পক্ষের স্বামী দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে। ঘটনার সময় আকলিমার স্বামী একই এলাকায় তার নিজ বাড়িতে ছিল। 

কুষ্টিয়া মডেল থানা ওসি সাব্বিরুল ইসলাম জানান, থানাপাড়া বাঁধের একটি বাড়ি থেকে মা ও শিশুসন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আকলিমা মানসিক রোগী ছিলেন। 

প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে— ওই নারী আত্মহত্যা করেছেন। তবে তদন্ত প্রতিবেদন পেলে সব কিছু নিশ্চিত হওয়া যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন