মহেশখালীতে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহতের ঘটনায় ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
মহেশখালীতে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহতের ঘটনায় ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  যুগান্তর প্রতিবেদন, কক্সবাজার  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:২৮:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মহেশখালীর কুতুবজোম ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত আবুল কালামের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর কুতুবজোম ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়ার মো.ফরিদ প্রকাশ চশমা ফরিদকে প্রধান আসামী করে নিহত কালামের মেয়ের জামাই আজিজুল বশার বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় এজাহার দায়ের করেন।

এদিকে গত ২০ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভোট গ্রহণের সময় মহেশখালী কুতুবজোম ইউনিয়নের জামিউচ্ছুন্নাহ দারুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে নৌকার সমর্থক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশারফ হোসেন খোকনের সমর্থক জেলে আবুল কালাম (৫৫)। পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে মঙ্গলবার বিকেলে দাফন সম্পন্ন হয় নিহত আবুল কালামের। পরদিন বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর রাতে নিহতের মেয়ের জামাই আজিজুল বশার বাদী হয়ে ২৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের করেন।

মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আবদুল হাই জানান, নিহতের মেয়ের জামাই আজিজুল বশার বাদী হয়ে ২৫ জনের বিরুদ্ধে এজাহার জমা দিয়েছেন। রাতেই মামলা হবে।

এদিকে নিহতের স্ত্রী নুরআয়েশা জানান, বাবার জন্য তার ছেলে মেয়েরা প্রতিনিয়ত কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছে। পাশাপাশি তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনের ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। যে কারণে নিজেরাই বেঁচে থাকা দায় হয়ে পড়েছে। তিনি আরো বলেন, দ্রুতত সময়ে স্বামীর হত্যা কারীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হউক।

মহেশখালীতে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহতের ঘটনায় ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

 যুগান্তর প্রতিবেদন, কক্সবাজার 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মহেশখালীর কুতুবজোম ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত আবুল কালামের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর কুতুবজোম ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়ার মো.ফরিদ প্রকাশ চশমা ফরিদকে প্রধান আসামী করে নিহত কালামের মেয়ের জামাই আজিজুল বশার বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় এজাহার দায়ের করেন।

এদিকে গত ২০ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভোট গ্রহণের সময় মহেশখালী কুতুবজোম ইউনিয়নের জামিউচ্ছুন্নাহ দারুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে নৌকার সমর্থক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। 

এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশারফ হোসেন খোকনের সমর্থক জেলে আবুল কালাম (৫৫)। পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে মঙ্গলবার বিকেলে দাফন সম্পন্ন হয় নিহত আবুল কালামের। পরদিন বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর রাতে নিহতের মেয়ের জামাই আজিজুল বশার বাদী হয়ে ২৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের করেন। 

মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আবদুল হাই জানান, নিহতের মেয়ের জামাই আজিজুল বশার বাদী হয়ে ২৫ জনের বিরুদ্ধে এজাহার জমা দিয়েছেন।  রাতেই মামলা হবে।

এদিকে নিহতের স্ত্রী নুরআয়েশা জানান, বাবার জন্য তার ছেলে মেয়েরা প্রতিনিয়ত কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছে। পাশাপাশি তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনের ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। যে কারণে নিজেরাই বেঁচে থাকা দায় হয়ে পড়েছে। তিনি আরো বলেন, দ্রুতত সময়ে স্বামীর হত্যা কারীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হউক।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন