নির্বাচনে হেরে এলাকাবাসীর রাস্তা বন্ধ করে দিলেন আ.লীগ নেতা
jugantor
নির্বাচনে হেরে এলাকাবাসীর রাস্তা বন্ধ করে দিলেন আ.লীগ নেতা

  কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:৩১:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ইউপি নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় ৪২ বছরের পুরাতন রাস্তা বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের বদ্দিপুর গ্রামে।

এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘ ৪২ বছর ধরে বদ্দিপুর গ্রামের ৩নং ওয়ার্ডের প্রায় ৬০টি পরিবার যাতায়াত করেন ওই রাস্তা দিয়ে। সোমবার জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে বদ্দিপুর গ্রামের আরিজুল ইসলাম ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী ছিলেন। তিনি নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় এলাকাবাসী তাকে ভোট দেয়নি মর্মে অভিযোগ তুলে তার বাড়ির পেছনের রাস্তাটি বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেন।

এতে ওই গ্রামের খেটেখাওয়া অসহায় মানুষেরা বর্ষার সময় বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। এক রকম তারা গৃহবন্দি রয়েছেন।

এ বিষয়ে ৩নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মৌফর মোড়ল জানান, তারও ওই গ্রামে বাড়ি। তিনিও বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না রাস্তায় বাঁশের বেড়া দেয়ার কারণে। তিনি উক্ত বাঁশের বেড়া তুলে দেওয়ার জন্য কলারোয়া থানা পুলিশ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

৩নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মিন্টু জানান, সোমবার উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে বদ্দিপুর গ্রামের আরিজুল ইসলাম ইউপি সদস্য প্রার্থী ছিলেন। ভোটে হেরে যাওয়ার কারণে তিনি এলাকাবাসীকে উদ্দেশ করে সোমবার রাত থেকে গালিগালাজ শুরু করেন। এর পরের দিন সকালে তিনি তার বাড়ির পেছনের রাস্তাটি বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেন। এতে করে ৩নং ওয়ার্ডের মানুষেরা বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না।

এদিকে অভিযুক্ত আরিজুল ইসলাম বলেন, ওই রাস্তাটি তার রেকর্ডের জমি। এখন তিনি ওই স্থানে একটি বাথরুম করবেন। এলাকাবাসী কীভাবে বাড়ি থেকে বের হবেন তা তিনি জানেন না।

এদিকে এলাকাবাসী ওই রাস্তার বাঁশের বেড়া উচ্ছেদের দাবিতে জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

নির্বাচনে হেরে এলাকাবাসীর রাস্তা বন্ধ করে দিলেন আ.লীগ নেতা

 কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ইউপি নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় ৪২ বছরের পুরাতন রাস্তা বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের বদ্দিপুর গ্রামে।

এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘ ৪২ বছর ধরে বদ্দিপুর গ্রামের ৩নং ওয়ার্ডের প্রায় ৬০টি পরিবার যাতায়াত করেন ওই রাস্তা দিয়ে। সোমবার জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে বদ্দিপুর গ্রামের আরিজুল ইসলাম ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী ছিলেন। তিনি নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় এলাকাবাসী তাকে ভোট দেয়নি মর্মে অভিযোগ তুলে তার বাড়ির পেছনের রাস্তাটি বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেন।

এতে ওই গ্রামের খেটেখাওয়া অসহায় মানুষেরা বর্ষার সময় বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। এক রকম তারা গৃহবন্দি রয়েছেন।

এ বিষয়ে ৩নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মৌফর মোড়ল জানান, তারও ওই গ্রামে বাড়ি। তিনিও বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না রাস্তায় বাঁশের বেড়া দেয়ার কারণে। তিনি উক্ত বাঁশের বেড়া তুলে দেওয়ার জন্য কলারোয়া থানা পুলিশ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

৩নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মিন্টু জানান, সোমবার উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে বদ্দিপুর গ্রামের আরিজুল ইসলাম ইউপি সদস্য প্রার্থী ছিলেন। ভোটে হেরে যাওয়ার কারণে তিনি এলাকাবাসীকে উদ্দেশ করে সোমবার রাত থেকে গালিগালাজ শুরু করেন। এর পরের দিন সকালে তিনি তার বাড়ির পেছনের রাস্তাটি বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেন। এতে করে ৩নং ওয়ার্ডের মানুষেরা বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না।

এদিকে অভিযুক্ত আরিজুল ইসলাম বলেন, ওই রাস্তাটি তার রেকর্ডের জমি। এখন তিনি ওই স্থানে একটি বাথরুম করবেন। এলাকাবাসী কীভাবে বাড়ি থেকে বের হবেন তা তিনি জানেন না।

এদিকে এলাকাবাসী ওই রাস্তার বাঁশের বেড়া উচ্ছেদের দাবিতে জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন