আন্তঃনগর ট্রেনে হাতের সিগন্যালে মিলল গাঁজা, গ্রেফতার ১
jugantor
আন্তঃনগর ট্রেনে হাতের সিগন্যালে মিলল গাঁজা, গ্রেফতার ১

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩৮:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

গৌরীপুর-চট্টগ্রাম রেলপথে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ময়মনসিংহগামী আন্তঃনগর বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনটি গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর ভবানীপুর এলাকা অতিক্রমের সময়ে সিগন্যাল দেন মো. উজ্জ্বল মিয়া (৪৫)। এ সময় চলন্ত ট্রেন থেকে ছুড়ে ফেলা হয় দুই প্যাকেট গাঁজা।

সেই গাঁজা নিয়ে দৌড়ে পালানোর সময় ভবানীপুর ব্রিজ এলাকায় স্থানীয় লোকজন আটক করে তাকে পুলিশে দেন। উজ্জ্বল মিয়া রামগোপালপুর ইউনিয়নের রামগোপালপুর রাজবাড়ী এলাকার কাজিম উদ্দিনের পুত্র।

গৌরীপুর থানার এসআই মো. নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, একটি বড় ও অপরটি ছোট গাঁজার বান্ডিল প্লাস্টিকের স্কচটেপে মোড়ানো। যার ওজন ২ কেজি।

প্রত্যক্ষদর্শী গোপীনাথপুর এলাকার মো. আব্দুল করিমের পুত্র মাসুদ মিয়া (২২) জানান, উজ্জ্বল মিয়া অটোরিকশায় যাওয়ার সময় মোবাইল ফোনে ট্রেনে থাকা লোকটির সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় পাশে বসে থাকা যাত্রী বিষয়টি জানতে পারেন। তারপর তিনি বিষয়টি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেহেরাব আরেফিন বাঁধনকে জানালে ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়। ওতপেতে থাকা এলাকাবাসী তাকে প্রথমে আটক করেন।

মেহেরাব আরেফিন বাঁধন জানান, একদল মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসায়ী প্রতিনিয়ত ট্রেনের মাধ্যমে মাদক সরবরাহ করছে। এ চক্রের একজনকে আমরা ধরে পুলিশে দিতে পেরেছি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পুরো চক্রটিকে ধরতে সক্ষম হবে বলে আশা রাখি।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, এ সংক্রান্ত মামলা হয়েছে।

পশ্চিমপাড়ার খোরশেদ আলী জানান, এ ব্রিজটি উঁচু ও ঝুঁকিপূর্ণ। প্রত্যেকটি ট্রেনেই এ ব্রিজ অতিক্রমের সময় গতি কমাতে দেখা যায়। দুই পাশের বিশাল গাছপালার কারণে জঙ্গলে পরিণত হয়েছে। ফলে চোরাকারবারিরা এ ব্রিজ এলাকা নিরাপদ স্থান হিসেবে ব্যবহার করে আসছিল।

আন্তঃনগর ট্রেনে হাতের সিগন্যালে মিলল গাঁজা, গ্রেফতার ১

 গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গৌরীপুর-চট্টগ্রাম রেলপথে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ময়মনসিংহগামী আন্তঃনগর বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনটি গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর ভবানীপুর এলাকা অতিক্রমের সময়ে সিগন্যাল দেন মো. উজ্জ্বল মিয়া (৪৫)। এ সময় চলন্ত ট্রেন থেকে ছুড়ে ফেলা হয় দুই প্যাকেট গাঁজা।

সেই গাঁজা নিয়ে দৌড়ে পালানোর সময় ভবানীপুর ব্রিজ এলাকায় স্থানীয় লোকজন আটক করে তাকে পুলিশে দেন। উজ্জ্বল মিয়া রামগোপালপুর ইউনিয়নের রামগোপালপুর রাজবাড়ী এলাকার কাজিম উদ্দিনের পুত্র।

গৌরীপুর থানার এসআই মো. নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, একটি বড় ও অপরটি ছোট  গাঁজার বান্ডিল প্লাস্টিকের স্কচটেপে মোড়ানো। যার ওজন ২ কেজি।

প্রত্যক্ষদর্শী গোপীনাথপুর এলাকার মো. আব্দুল করিমের পুত্র মাসুদ মিয়া (২২) জানান, উজ্জ্বল মিয়া অটোরিকশায় যাওয়ার সময় মোবাইল ফোনে ট্রেনে থাকা লোকটির সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় পাশে বসে থাকা যাত্রী বিষয়টি জানতে পারেন। তারপর তিনি বিষয়টি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেহেরাব আরেফিন বাঁধনকে জানালে ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়। ওতপেতে থাকা এলাকাবাসী তাকে প্রথমে আটক করেন।

মেহেরাব আরেফিন বাঁধন জানান, একদল মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসায়ী প্রতিনিয়ত ট্রেনের মাধ্যমে মাদক সরবরাহ করছে। এ চক্রের একজনকে আমরা ধরে পুলিশে দিতে পেরেছি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পুরো চক্রটিকে ধরতে সক্ষম হবে বলে আশা রাখি।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, এ সংক্রান্ত মামলা হয়েছে।

পশ্চিমপাড়ার খোরশেদ আলী জানান, এ ব্রিজটি উঁচু ও ঝুঁকিপূর্ণ। প্রত্যেকটি ট্রেনেই এ ব্রিজ অতিক্রমের সময় গতি কমাতে দেখা যায়। দুই পাশের বিশাল গাছপালার কারণে জঙ্গলে পরিণত হয়েছে। ফলে চোরাকারবারিরা এ ব্রিজ এলাকা নিরাপদ স্থান হিসেবে ব্যবহার করে আসছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন