লুটের ২৪ লাখের মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়ায় ফিনিস!
jugantor
লুটের ২৪ লাখের মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়ায় ফিনিস!

  সিলেট ব্যুরো  

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৯:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের ওসমানীনগরে ব্যাংক থেকে লুট করা ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়া খেলে নষ্ট করা হয়েছে বলে এ মামলায় গ্রেফতাররা জানিয়েছে।

এছাড়া মামলার চার আসামির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে। বৃহস্পতিবার সিলেটের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে বিচারক মাহবুবুল হক ভুঁইয়া ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসমানীনগর থানার এসআই মিল্টন দেব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রিমান্ড মঞ্জুর হওয়া আসামিরা হলো- শামীম আহম্মেদ, নূর মোহাম্মদ, আব্দুল হালিম ও সাফি উদ্দিন জাহির।

এর আগে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন জানান, গত বুধবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয় জাহিরকে। এটিএম বুথ লুটের সঙ্গে জাহির সরাসরি জড়িত এবং এ ঘটনার অন্যতম পরিকল্পনাকারী।

পুলিশ জানায়, আসামিরা লুটের প্রায় ১০ লাখ টাকা ইতোমধ্যে জুয়া খেলে ফিনিস করে দিয়েছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।

ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর পশ্চিম বাজারের ইউসিবিএলের এটিএম বুথে গত ১১ সেপ্টেম্বর ভোরে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। চার মুখোশধারী বুথে ঢুকে নিরাপত্তাকর্মীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে।

এ ঘটনায় রোববার ইউসিবিএল ব্যাংকের শেরপুর শাখা ব্যবস্থাপক সৈয়দ আশরাফুল আমিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত চার দুষ্কৃতকারীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় মামলা করলে আসামিদের গ্রেফতারে ওসমানীনগর থানা পুলিশ ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ইউনিটের কাছে সহযোগিতা চায়। এরই ধারাবাহিকতায় গ্রেফতার হয় শামীম আহম্মেদ, নূর মোহাম্মদ, আব্দুল হালিম ও সাফি উদ্দিন জাহির।

লুটের ২৪ লাখের মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়ায় ফিনিস!

 সিলেট ব্যুরো 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের ওসমানীনগরে ব্যাংক থেকে লুট করা ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়া খেলে নষ্ট করা হয়েছে বলে এ মামলায় গ্রেফতাররা জানিয়েছে।

এছাড়া মামলার চার আসামির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে। বৃহস্পতিবার সিলেটের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে বিচারক মাহবুবুল হক ভুঁইয়া ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসমানীনগর থানার এসআই মিল্টন দেব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রিমান্ড মঞ্জুর হওয়া আসামিরা হলো- শামীম আহম্মেদ, নূর মোহাম্মদ, আব্দুল হালিম ও সাফি উদ্দিন জাহির।

এর আগে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন জানান, গত বুধবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয় জাহিরকে। এটিএম বুথ লুটের সঙ্গে জাহির সরাসরি জড়িত এবং এ ঘটনার অন্যতম পরিকল্পনাকারী।

পুলিশ জানায়, আসামিরা লুটের প্রায় ১০ লাখ টাকা ইতোমধ্যে জুয়া খেলে ফিনিস করে দিয়েছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।

ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর পশ্চিম বাজারের ইউসিবিএলের এটিএম বুথে গত ১১ সেপ্টেম্বর ভোরে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। চার মুখোশধারী বুথে ঢুকে নিরাপত্তাকর্মীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে।

এ ঘটনায় রোববার ইউসিবিএল ব্যাংকের শেরপুর শাখা ব্যবস্থাপক সৈয়দ আশরাফুল আমিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত চার দুষ্কৃতকারীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় মামলা করলে আসামিদের গ্রেফতারে ওসমানীনগর থানা পুলিশ ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ইউনিটের কাছে সহযোগিতা চায়। এরই ধারাবাহিকতায় গ্রেফতার হয় শামীম আহম্মেদ, নূর মোহাম্মদ, আব্দুল হালিম ও সাফি উদ্দিন জাহির।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন