নিকলীর হাওরে ডুবসাঁতার দিয়ে নিখোঁজ দুই পর্যটক, ১ লাশ উদ্ধার
jugantor
নিকলীর হাওরে ডুবসাঁতার দিয়ে নিখোঁজ দুই পর্যটক, ১ লাশ উদ্ধার

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৮:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নিকলীর হাওরে ডুবসাঁতার দিয়ে নিখোঁজ দুই পর্যটক, ১ লাশ উদ্ধার

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার হাওর পর্যটন এলাকায় ঘোড়াউত্রা নদী তীরবর্তী স্থানের পানিতে গোসলে নেমে নিখোঁজ দুই পর্যটকের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদীঘা গ্রামসংলগ্ন ঘোড়াউত্রা নদীপাড়ের কেওড়া গাছতলা এলাকা থেকে নিখোঁজ পর্যটক রনির লাশ উদ্ধার করে ডুবুরিরা।

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদীগা গ্রামসংলগ্ন কেওড়া গাছতলায় ঘোড়াউত্রা নদী তীরবর্তী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রনি মিয়া (২২) কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার কোয়ালবাজার গ্রামের জসিম মিয়ার ছেলে। তিনি ঢাকায় বসবাস করে পিকআপভ্যান চালাতেন।

নিখোঁজ মো. আলমগীর মিয়া (২০) গাইবান্ধা জেলার সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের মো. সাইদুরের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ঢাকা থেকে দু'টি দলে ৫৫/৬০ জন পর্যটক এক সঙ্গে নিকলীর হাওর পর্যটন এলাকায় ভ্রমণ করতে আসেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘোড়াদীগা গ্রামসংলগ্ন ঘোড়াউত্রা নদী তীরবর্তী কেওড়া গাছতলায় আলমগীর ও রনি গোসল করতে নেমে ডুবসাঁতার দিতে গিয়ে আর ভেসে ওঠেননি।

পানিতে ডুবে তাদের নিখোঁজ হওয়ার খবরে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে এবং রাত ১২টা পর্যন্ত উদ্ধার তৎপরতা চালিয়েও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি।

শনিবার সকাল সাড়ে ৭টা থেকে আবারও উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়। বেলা পৌনে ১১টায় নিখোঁজ রনির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিকলীর হাওরে ডুবসাঁতার দিয়ে নিখোঁজ দুই পর্যটক, ১ লাশ উদ্ধার

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নিকলীর হাওরে ডুবসাঁতার দিয়ে নিখোঁজ দুই পর্যটক, ১ লাশ উদ্ধার
ছবি: যুগান্তর

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার হাওর পর্যটন এলাকায় ঘোড়াউত্রা নদী তীরবর্তী স্থানের পানিতে গোসলে নেমে নিখোঁজ দুই পর্যটকের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদীঘা গ্রামসংলগ্ন ঘোড়াউত্রা নদীপাড়ের কেওড়া গাছতলা এলাকা থেকে নিখোঁজ পর্যটক রনির লাশ উদ্ধার করে ডুবুরিরা। 

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদীগা  গ্রামসংলগ্ন কেওড়া গাছতলায় ঘোড়াউত্রা নদী তীরবর্তী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রনি মিয়া (২২) কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার কোয়ালবাজার গ্রামের জসিম মিয়ার ছেলে। তিনি ঢাকায় বসবাস করে পিকআপভ্যান চালাতেন।

নিখোঁজ  মো. আলমগীর মিয়া (২০) গাইবান্ধা জেলার সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের মো. সাইদুরের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ঢাকা থেকে দু'টি  দলে ৫৫/৬০ জন পর্যটক এক সঙ্গে নিকলীর হাওর পর্যটন এলাকায় ভ্রমণ করতে আসেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘোড়াদীগা গ্রামসংলগ্ন ঘোড়াউত্রা নদী তীরবর্তী কেওড়া গাছতলায় আলমগীর ও রনি গোসল করতে নেমে ডুবসাঁতার দিতে গিয়ে আর ভেসে ওঠেননি।      

পানিতে ডুবে তাদের নিখোঁজ হওয়ার খবরে  পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে এবং রাত ১২টা পর্যন্ত উদ্ধার তৎপরতা চালিয়েও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি। 

শনিবার সকাল সাড়ে ৭টা থেকে আবারও উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়। বেলা পৌনে ১১টায় নিখোঁজ রনির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন