মায়ের সঙ্গে অভিমান করে ছেলের আত্মহত্যা
jugantor
মায়ের সঙ্গে অভিমান করে ছেলের আত্মহত্যা

  গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি    

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:১৭:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের গোলাপগঞ্জে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে এক গার্মেন্টকর্মী আত্মহত্যা করেছেন। শাখাওয়াত হোসেন হাদি (১৮) নামে ওই যুবক ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। উপজেলার ভাদেশ্বরের কলাশহর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। তিনি ওই এলাকার মো. হানিফ আলীর ছেলে।

জানা যায়, শাখাওয়াত হোসেন হাদি ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। সেই সুবাদে তিনি বসবাস করতেন ঢাকায়। বৃহস্পতিবার তিনি উপজেলার ভাদেশ্বরের কলাশহর গ্রামের বাড়িতে আসেন।

শুক্রবার রাতে বসতঘরে ওড়না দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পান পরিবারের লোকজন। পরে থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে থানার এসআই ফয়জুল করিম যুগান্তরকে বলেন, ঢাকা থেকে বাড়িতে আসার পর ওই যুবক তার মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করেন। এতে তিনি অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে জানা যাবে এটি আত্মহত্যা না অন্যকিছু।

মায়ের সঙ্গে অভিমান করে ছেলের আত্মহত্যা

 গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি   
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের গোলাপগঞ্জে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে এক গার্মেন্টকর্মী আত্মহত্যা করেছেন। শাখাওয়াত হোসেন হাদি (১৮) নামে ওই যুবক ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। উপজেলার ভাদেশ্বরের কলাশহর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
 
শুক্রবার পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। তিনি ওই এলাকার মো. হানিফ আলীর ছেলে।

জানা যায়, শাখাওয়াত হোসেন হাদি ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। সেই সুবাদে তিনি বসবাস করতেন ঢাকায়। বৃহস্পতিবার তিনি উপজেলার ভাদেশ্বরের কলাশহর গ্রামের বাড়িতে আসেন।

শুক্রবার রাতে বসতঘরে ওড়না দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পান পরিবারের লোকজন। পরে থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। 

এ ব্যাপারে থানার এসআই ফয়জুল করিম যুগান্তরকে বলেন, ঢাকা থেকে বাড়িতে আসার পর ওই যুবক তার মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করেন। এতে তিনি অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে জানা যাবে এটি আত্মহত্যা না অন্যকিছু। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন