রাঙামাটিতে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি-ননদ গ্রেফতার
jugantor
রাঙামাটিতে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি-ননদ গ্রেফতার

  রাঙামাটি প্রতিনিধি  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৬:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

রাঙামাটিতে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি-ননদ গ্রেফতার

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় গৃহবধূ শাবনুর আক্তার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তার শাশুড়ি ও ননদকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার রূপকারী মুসলিম ব্লক এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলো— একই এলাকার শাশুড়ি জোহরা বেগম (৪৮) ও ননদ ফাতেমা বেগম (২৭)।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খান বলেন, আসামিদের রোববার রাঙামাটি আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক সাইদ আসাদ বলেন, গত ২৬ মার্চ রূপকারী মুসলিম ব্লক এলাকায় গৃহবধূ শাবনুরের নিজের কক্ষ থেকে গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেদিনই ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ঘটনার দেড় বছর পর ময়নাতদন্তের রিপোর্টে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়।

এ ঘটনায় গৃহবধূ শাবনুরের বাবা চানমিয়া বাদী হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর তার স্বামী, শাশুড়ি, ননদসহ পাঁচজনকে আসামি করে বাঘাইছড়ি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। গৃহবধূ শাবনুর আক্তারের বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালায়। মামলার পর থেকেই স্বামীসহ অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছেন।

রাঙামাটিতে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি-ননদ গ্রেফতার

 রাঙামাটি প্রতিনিধি 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাঙামাটিতে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি-ননদ গ্রেফতার
ছবি: যুগান্তর

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় গৃহবধূ শাবনুর আক্তার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তার শাশুড়ি ও ননদকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার রূপকারী মুসলিম ব্লক এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

 আটকরা হলো— একই এলাকার শাশুড়ি জোহরা বেগম (৪৮) ও ননদ ফাতেমা বেগম (২৭)।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খান বলেন, আসামিদের রোববার রাঙামাটি আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক  সাইদ আসাদ বলেন, গত ২৬ মার্চ রূপকারী মুসলিম ব্লক এলাকায় গৃহবধূ শাবনুরের নিজের কক্ষ থেকে গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেদিনই  ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ঘটনার দেড় বছর পর ময়নাতদন্তের রিপোর্টে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। 

এ ঘটনায় গৃহবধূ শাবনুরের বাবা চানমিয়া বাদী হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর তার স্বামী, শাশুড়ি, ননদসহ পাঁচজনকে আসামি করে বাঘাইছড়ি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। গৃহবধূ শাবনুর আক্তারের বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালায়। মামলার পর থেকেই স্বামীসহ অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন