দেড় ফুট জমি নিয়ে ৯ বছরে ১৩ মামলা!
jugantor
দেড় ফুট জমি নিয়ে ৯ বছরে ১৩ মামলা!

  ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৪৭:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বাড়ির রাস্তার জন্য দেড় ফুট জমি নিয়ে দুই প্রতিবেশীর মধ্যে ৯ বছর ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর মধ্যে উভয় পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে ১৩টি মামলা দিয়েছে।

মামলাগুলোতে পুলিশের তৎপরতা বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) ও জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রায় শতাধিক অভিযোগ করেছে উভয়পক্ষ। এছাড়াও ৩৩ বার স্থানীয় গ্রাম্যসালিশ করেছে তারা। কিন্তু কোনো কিছুতেই মেলেনি তাদের সমাধান।

অবশেষে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান মাত্র এক ঘণ্টায় ওই বিরোধ মীমাংসা করেছেন। শনিবার রাতে ফতুল্লার আদর্শনগর এলাকায় বিল্লাল হোসেন ও হাজেরা আক্তার মুক্তা নামে দুই প্রতিবেশীর এ বিরোধ মীমাংসা করা হয়।

তাদের দুজনের মধ্যে বিল্লাল হোসেন এক ফুট ৬ ইঞ্চি ও হাজেরা আক্তার মুক্তা এক ফুট ৯ ইঞ্চি জমি সড়কের জন্য ছেড়ে দেবেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের এ সিদ্ধান্ত উভয়পক্ষ মেনে নিয়ে তারা কান্নায় ভেঙে পড়েন। অতীতে যে ভুল করেছেন তার জন্য একে অপরের কাছে ক্ষমা চেয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান যুগান্তরকে জানান, ফতুল্লার আদর্শনগর এলাকায় বিল্লাল হোসেন ও হাজেরা আক্তার মুক্তার মধ্যে সড়কের জন্য মাত্র দেড় ফুট জমি নিয়ে ৯ বছর ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর মধ্যে তারা একে অপরের বিরুদ্ধে আদালতে প্রায় ১৩টি মামলা করেছেন।

মামলাগুলোতে পুলিশের তৎপরতা বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি), জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রায় শতাধিক অভিযোগ করেছেন তারা। স্থানীয় সালিশ বৈঠকও কম হয়নি। কিন্তু কেউ সমাধান দিতে পারেনি। তাদের মামলাগুলোও আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। অবশেষে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের নির্দেশে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে এক ঘণ্টা বৈঠকে তাদের সমস্যার সমাধান দেয়া হয়েছে।

সমাধানের সময় ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান, পরিদর্শক (আইসিপি) শহিদুল আলম, শ্রমিক লীগ নেতা কাউছার আহমেদ পলাশ, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিনসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

দেড় ফুট জমি নিয়ে ৯ বছরে ১৩ মামলা!

 ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বাড়ির রাস্তার জন্য দেড় ফুট জমি নিয়ে দুই প্রতিবেশীর মধ্যে ৯ বছর ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর মধ্যে উভয় পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে ১৩টি মামলা দিয়েছে। 

মামলাগুলোতে পুলিশের তৎপরতা বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) ও জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রায় শতাধিক অভিযোগ করেছে উভয়পক্ষ। এছাড়াও ৩৩ বার স্থানীয় গ্রাম্যসালিশ করেছে তারা। কিন্তু কোনো কিছুতেই মেলেনি তাদের সমাধান।

অবশেষে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান মাত্র এক ঘণ্টায় ওই বিরোধ মীমাংসা করেছেন। শনিবার রাতে ফতুল্লার আদর্শনগর এলাকায় বিল্লাল হোসেন ও হাজেরা আক্তার মুক্তা নামে দুই প্রতিবেশীর এ বিরোধ মীমাংসা করা হয়। 

তাদের দুজনের মধ্যে বিল্লাল হোসেন এক ফুট ৬ ইঞ্চি ও হাজেরা আক্তার মুক্তা এক ফুট ৯ ইঞ্চি জমি সড়কের জন্য ছেড়ে দেবেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের এ সিদ্ধান্ত উভয়পক্ষ মেনে নিয়ে তারা কান্নায় ভেঙে পড়েন। অতীতে যে ভুল করেছেন তার জন্য একে অপরের কাছে ক্ষমা চেয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান যুগান্তরকে জানান, ফতুল্লার আদর্শনগর এলাকায় বিল্লাল হোসেন ও হাজেরা আক্তার মুক্তার মধ্যে সড়কের জন্য মাত্র দেড় ফুট জমি নিয়ে ৯ বছর ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর মধ্যে তারা একে অপরের বিরুদ্ধে আদালতে প্রায় ১৩টি মামলা করেছেন। 

মামলাগুলোতে পুলিশের তৎপরতা বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি), জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রায় শতাধিক অভিযোগ করেছেন তারা। স্থানীয় সালিশ বৈঠকও কম হয়নি। কিন্তু কেউ সমাধান দিতে পারেনি। তাদের মামলাগুলোও আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। অবশেষে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের নির্দেশে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে এক ঘণ্টা বৈঠকে তাদের সমস্যার সমাধান দেয়া হয়েছে। 

সমাধানের সময় ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান, পরিদর্শক (আইসিপি) শহিদুল আলম, শ্রমিক লীগ নেতা কাউছার আহমেদ পলাশ, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিনসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন