আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত!
jugantor
আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত!

  কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৫৮:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত!

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত দেখা গেছে।

সোমবার সকালে সদকী ইউনিয়নের বানিয়াকান্দি গ্রামের আবাদি জমির মাঝখানে গর্ত দেখে জমির মালিক ও এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জমির মালিক লোকমান হোসেন শেখ জানান, প্রতিদিনের মতো সকালে এসে আবাদি জমির মাঝখানে ৩ ফুট গভীর গর্ত এবং গর্তের পাশে বাঁশ, মোটা রশি, বস্তা ও পুরনো ইট পড়ে থাকতে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন তিনি।

তিনি ধারণা করেন হয়তো, তার জমিতে লাশ পুঁতে রাখা হয়েছে। এই সংবাদ প্রচার হলে শতাধিক এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে এসে ভিড় জমান। এ সময় কুমারখালী থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গর্তের মধ্যে থাকা রাসায়নিক দ্রব্যজাতীয় পদার্থ দেখতে পান। এ সময় তারা জমির মালিককে গর্ত বন্ধ করার নির্দেশ দেন এবং গর্তের আশপাশে ও ভেতরে থাকা রাসায়নিক পদার্থ জাতীয় বস্তু নমুনা হিসেবে সংগ্রহ করেন।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) রাকিব হাসান জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে এবং আশপাশে পড়ে থাকা ও গর্তের মধ্যে থাকা রাসায়নিক পদার্থ জাতীয় বস্তু সংগ্রহ করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত বিষয়টির রহস্য উন্মোচন করা সম্ভব হয়নি। তবে গর্তের ভেতর ও আশপাশের রাসায়নিক দ্রব্য পরীক্ষা করে রহস্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা করা হবে।

আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত!

 কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত!
ছবি: যুগান্তর

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় আবাদি জমিতে রহস্যজনক গভীর গর্ত দেখা গেছে। 

সোমবার সকালে সদকী ইউনিয়নের বানিয়াকান্দি গ্রামের আবাদি জমির মাঝখানে গর্ত দেখে জমির মালিক ও এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জমির মালিক লোকমান হোসেন শেখ জানান, প্রতিদিনের মতো সকালে এসে আবাদি জমির মাঝখানে ৩ ফুট গভীর গর্ত এবং গর্তের পাশে বাঁশ, মোটা রশি, বস্তা ও পুরনো ইট পড়ে থাকতে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন তিনি। 

তিনি ধারণা করেন হয়তো, তার জমিতে লাশ পুঁতে রাখা হয়েছে। এই সংবাদ প্রচার হলে শতাধিক এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে এসে ভিড় জমান। এ সময় কুমারখালী থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গর্তের মধ্যে থাকা রাসায়নিক দ্রব্যজাতীয় পদার্থ দেখতে পান। এ সময় তারা জমির মালিককে গর্ত বন্ধ করার নির্দেশ দেন এবং গর্তের আশপাশে ও ভেতরে থাকা রাসায়নিক পদার্থ জাতীয় বস্তু নমুনা হিসেবে সংগ্রহ করেন।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) রাকিব হাসান জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে এবং আশপাশে পড়ে থাকা ও গর্তের মধ্যে থাকা রাসায়নিক পদার্থ জাতীয় বস্তু সংগ্রহ করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত বিষয়টির রহস্য উন্মোচন করা সম্ভব হয়নি। তবে গর্তের ভেতর ও আশপাশের রাসায়নিক দ্রব্য পরীক্ষা করে রহস্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন