আওয়ামী লীগ নেতার ভিটা দখল করতে গিয়ে আটক ৮ বহিরাগত
jugantor
আওয়ামী লীগ নেতার ভিটা দখল করতে গিয়ে আটক ৮ বহিরাগত

  উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৪৩:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রাম থেকে উলিপুরে গিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার বিরোধপূর্ণ ভিটা দখল করতে গিয়ে জনতার হাতে ৮ যুবক আটক হয়েছেন। পরবর্তীতে তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

বুধবার বিকালে বামনাছড়া গ্রামের রশিদ মার্কেট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আটকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর পুলিশ বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে পাঠায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রাজু ইসলামের সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুল হাই এর ১০ শতক জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে এলাকায় একাধিকবার শালিশ হলেও কোনো সমাধান হয়নি।

সূত্র জানায়, প্রায় ৩০ বছর পূর্বে রাজু ইসলামের পিতা মফিজল হক ও আব্দুল হাই এর পিতা নাসির উদ্দিন ব্যাপারী বামনাছড়া গ্রামের রশিদ মার্কেট এলাকায় ১০ শতক জমি নিজেদের সুবিধার্থে পরিবর্তন করে সেখানেবসবাস করে আসছেন। কিন্তু এ ব্যাপারে মৌখিক চুক্তি হলেও কোনো দলিল সম্পাদন করা হয়নি।

রাজু ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, বুধবার বিকালে তার ভিটাবাড়ি দখলে নিতে আব্দুল হাই কুড়িগ্রাম জেলা সদর থেকে একদল ভাড়াটিয়া ক্যাডার নিয়ে আসে। তারা অতর্কিতে বাড়িতে ঢুকে সবাইকে বের করে দিয়ে বাড়ির দখলের চেষ্টা করেন। এ সময় বাড়ি ও আশপাশের লোকজনের চিৎকার এবং স্থানীয় মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে গ্রামবাসী বহিরাগতদের ঘিরে ফেলেন। এ সময় ৯৯৯ এ ফোন করলে উলিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বহিরাগত ৮ যুবকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। রাতেই তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের আইয়ুব আলীর ছেলে আকাশ (১৯), আলী হোসেনের ছেলে হারুন অর রশিদ (৩২), দেলোয়ার হোসেনের ছেলে রাসেল রানা (৩৬), শ্যামল রায়ের ছেলে স্বাধীন (১৯), আ. লতিফের ছেলে সাঈদ (২৪), মোখলেছুর রহমানের ছেলে আহসান হাবীব (২২), দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আরিফুল ইসলাম (২৬) ও আব্দুল আজিজের ছেলে আল আমিন আহম্মেদ শুভ (২৬)।

এ বিষয়ে আব্দুল হাই এর জামাতা মিজানুর রহমান জমি নিয়ে বিরোধের কথা স্বীকার করে বলেন, আটককৃতরা আমাদের আত্মীয়-স্বজন। তারা এখানে বেড়াতে আসলে একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। জমি দখলে নেওয়ার মত কোনো ঘটনা ছিল না।

উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ কবির বলেন, আটককৃতদের বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আওয়ামী লীগ নেতার ভিটা দখল করতে গিয়ে আটক ৮ বহিরাগত

 উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রাম থেকে উলিপুরে গিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার বিরোধপূর্ণ ভিটা দখল করতে গিয়ে জনতার হাতে ৮ যুবক আটক হয়েছেন। পরবর্তীতে তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

বুধবার বিকালে বামনাছড়া গ্রামের রশিদ মার্কেট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

আটকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর পুলিশ বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে পাঠায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রাজু ইসলামের সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুল হাই এর ১০ শতক জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে এলাকায় একাধিকবার শালিশ হলেও কোনো সমাধান হয়নি। 

সূত্র জানায়, প্রায় ৩০ বছর পূর্বে রাজু ইসলামের পিতা মফিজল হক ও আব্দুল হাই এর পিতা নাসির উদ্দিন ব্যাপারী বামনাছড়া গ্রামের রশিদ মার্কেট এলাকায় ১০ শতক জমি নিজেদের সুবিধার্থে পরিবর্তন করে সেখানে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু এ ব্যাপারে মৌখিক চুক্তি হলেও কোনো দলিল সম্পাদন করা হয়নি। 

রাজু ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, বুধবার বিকালে তার ভিটাবাড়ি দখলে নিতে আব্দুল হাই কুড়িগ্রাম জেলা সদর থেকে একদল ভাড়াটিয়া ক্যাডার নিয়ে আসে। তারা অতর্কিতে বাড়িতে ঢুকে সবাইকে বের করে দিয়ে বাড়ির দখলের চেষ্টা করেন। এ সময় বাড়ি ও আশপাশের লোকজনের চিৎকার এবং স্থানীয় মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে গ্রামবাসী বহিরাগতদের ঘিরে ফেলেন। এ সময় ৯৯৯ এ ফোন করলে উলিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বহিরাগত ৮ যুবকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। রাতেই তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের আইয়ুব আলীর ছেলে আকাশ (১৯), আলী হোসেনের ছেলে হারুন অর রশিদ (৩২), দেলোয়ার হোসেনের ছেলে রাসেল রানা (৩৬), শ্যামল রায়ের ছেলে স্বাধীন (১৯), আ. লতিফের ছেলে সাঈদ (২৪), মোখলেছুর রহমানের ছেলে আহসান হাবীব (২২), দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আরিফুল ইসলাম (২৬) ও আব্দুল আজিজের ছেলে আল আমিন আহম্মেদ শুভ (২৬)।

এ বিষয়ে আব্দুল হাই এর জামাতা মিজানুর রহমান জমি নিয়ে বিরোধের কথা স্বীকার করে বলেন, আটককৃতরা আমাদের আত্মীয়-স্বজন। তারা এখানে বেড়াতে আসলে একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। জমি দখলে নেওয়ার মত কোনো ঘটনা ছিল না। 

উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ কবির বলেন, আটককৃতদের বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন