‘গণআন্দোলনের মাধ্যমে নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করা হবে’
jugantor
‘গণআন্দোলনের মাধ্যমে নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করা হবে’

  কুমিল্লা ব্যুরো  

০২ অক্টোবর ২০২১, ২১:৩১:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন

বিএনপির স্থায়ীকমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, সরকারের অধীনে কখনই সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি, তাদের অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়। এখন আমাদের একটাই দাবি এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে গণআন্দোলনের মাধ্যমে বিদায় ও নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করা।

শনিবার কুমিল্লার তিতাস উপজেলার 'তিতাস ভবনে' ৯ইউনিয়ন বিএনপির নবগঠিত কমিটির নেতাদের পরিচিতি ও সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এর আগে সকালে তিনি দাউদকান্দির বাসভবনে পৌর যুবদলের নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকার সকল ক্ষেত্রে চরম ব্যর্থ, অযোগ্য, আপাদমস্তক দুর্নীতিবাজ। দেশের মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করছে।

ড.মোশাররফ বলেন, দেশে গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মতাদর্শে ভিন্নতা থাকতে পারে, কিন্তু এই ফ্যাসিবাদী সরকারকে হটাতে সকল বিরোধী দল ও মতের মানুষের দাবি এক এবং অভিন্ন। এটা জনগণের দাবি। গায়ের জোরের সরকারের পতন ঘটাতে হবে, এই এক দফার আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই। তাদেরকে যত দ্রুত সরানো যাবে, ততই দেশের জন্য মঙ্গল হবে।

বিএনপির স্থায়ীকমিটির এই সদস্য বলেন, দেশজুড়ে বিএনপির নেতা-কর্মীসহ বিরোধী দল ও মতের মানুষ মামলা-হামলার শিকার হয়ে বিপর্যস্ত। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। তৃণমূলের নেতারা সরকার হঠানোর জন্য কঠোর আন্দোলনে যেতে প্রস্তুত। এখন আন্দোলনের আর কোনো বিকল্প নেই। তিনি সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করতে গণআন্দোলনে অংশ নেওয়ার জন্য দলীয় নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহবান জানান।

তিতাস উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. সালাউদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মারুফ হোসেন ও কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো.আক্তারুজ্জামান সরকার। কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন তিতাস উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. ওসমান গণি ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি হাজী আলী হোসেন মোল্লা, মো. আক্তারুজ্জামান আক্তার, মিজানুর রহমান ভুলু সিকদার ও মেহেদী হাসান সেলিম, যুগ্ম সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন মুন্সী, সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জাদু মোল্লা এবং কাজী কবির হোসেন সেন্টু প্রমুখ। সভায় ৯ ইউনিয়নের বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও অঙ্গ-সংগঠনের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

‘গণআন্দোলনের মাধ্যমে নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করা হবে’

 কুমিল্লা ব্যুরো 
০২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন
বক্তব্য রাখছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন। ছবি: যুগান্তর

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, সরকারের অধীনে কখনই সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি, তাদের অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়। এখন আমাদের একটাই দাবি এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে গণআন্দোলনের মাধ্যমে বিদায় ও নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করা।

শনিবার কুমিল্লার তিতাস উপজেলার 'তিতাস ভবনে' ৯ ইউনিয়ন বিএনপির নবগঠিত কমিটির নেতাদের পরিচিতি ও সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এর আগে সকালে তিনি দাউদকান্দির বাসভবনে পৌর যুবদলের নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকার সকল ক্ষেত্রে চরম ব্যর্থ, অযোগ্য, আপাদমস্তক দুর্নীতিবাজ। দেশের মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করছে।

ড.মোশাররফ বলেন, দেশে গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মতাদর্শে ভিন্নতা থাকতে পারে, কিন্তু এই ফ্যাসিবাদী সরকারকে হটাতে সকল বিরোধী দল ও মতের মানুষের দাবি এক এবং অভিন্ন। এটা জনগণের দাবি। গায়ের জোরের সরকারের পতন ঘটাতে হবে, এই এক দফার আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই। তাদেরকে যত দ্রুত সরানো যাবে, ততই দেশের জন্য মঙ্গল হবে।
 
বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, দেশজুড়ে বিএনপির নেতা-কর্মীসহ বিরোধী দল ও মতের মানুষ মামলা-হামলার শিকার হয়ে বিপর্যস্ত। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। তৃণমূলের নেতারা সরকার হঠানোর জন্য কঠোর আন্দোলনে যেতে প্রস্তুত। এখন আন্দোলনের আর কোনো বিকল্প নেই। তিনি সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করতে গণআন্দোলনে অংশ নেওয়ার জন্য দলীয় নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহবান জানান।

তিতাস উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. সালাউদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মারুফ হোসেন ও কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো.আক্তারুজ্জামান সরকার। কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন তিতাস উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. ওসমান গণি ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি হাজী আলী হোসেন মোল্লা, মো. আক্তারুজ্জামান আক্তার, মিজানুর রহমান ভুলু সিকদার ও মেহেদী হাসান সেলিম, যুগ্ম সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন মুন্সী, সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জাদু মোল্লা এবং কাজী কবির হোসেন সেন্টু প্রমুখ। সভায় ৯ ইউনিয়নের বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও অঙ্গ-সংগঠনের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন