মুহিবুল্লাহ হত্যা: গ্রেফতার দু’জনের ৭ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ
jugantor
মুহিবুল্লাহ হত্যা: গ্রেফতার দু’জনের ৭ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন ও কক্সবাজার প্রতিনিধি  

০২ অক্টোবর ২০২১, ২১:৩৯:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

রোহিঙ্গা

রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা ও আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটি ফর পিস অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস (এআরএসপিএইচ) এর চেয়ারম্যান মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার দুই সন্দেহভাজন আসামির সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় আদালতে এ আবেদন করা হয়।

দুই আসামি হলেন- মোহাম্মদ সলিম উল্লাহ প্রকাশ লম্বা সেলিম (৩৩) এবং শওকত উল্লাহ (২৩)। তারা দু’জনই রোহিঙ্গা।

পুলিশ জানায়, রিমান্ড আবেদন শেষে শনিবার সন্ধ্যায় মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে উখিয়া থানায় দায়েরকৃত মামলায় (নম্বর-১২৬) তিনজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আগামীকাল রোববার আদালতে এ মামলার শুনানি হবে।

কক্সবাজার কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক চন্দন কুমার সরকার এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আদালতে পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের রিমান্ড আবেদন করেছে, আগামীকাল শুনানি হবে।

এর আগে আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে শনিবার সকালে উখিয়ার লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১ ইস্ট থেকে জিয়াউর রহমান ও আব্দুস সালাম নামে দুই রোহিঙ্গাকে আটক করে এপিবিএন-১৪। তা আগে শুক্রবার সকালে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৬ থেকে সেলিম নামের এক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। তবে শওকত উল্লাহকে কখন আটক করা হয় তা জানা যায়নি।

গত বুধবার রাত পৌনে ৯ টার দিকে উখিয়ায় কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় ইস্ট-ওয়েস্ট ১ নম্বর ব্লকের বাড়ির সামনে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহকে গুলি করে হত্যা কর হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনকে আসামি করে উখিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন নিহত মুহিবুল্লাহর ছোট ভাই মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ।

মুহিবুল্লাহ হত্যা: গ্রেফতার দু’জনের ৭ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন ও কক্সবাজার প্রতিনিধি 
০২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রোহিঙ্গা
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ । ফাইল ছবি

রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা ও আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটি ফর পিস অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস (এআরএসপিএইচ) এর চেয়ারম্যান মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার দুই সন্দেহভাজন আসামির সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় আদালতে এ আবেদন করা হয়।

দুই আসামি হলেন- মোহাম্মদ সলিম উল্লাহ প্রকাশ লম্বা সেলিম (৩৩) এবং শওকত উল্লাহ (২৩)। তারা দু’জনই রোহিঙ্গা।

পুলিশ জানায়, রিমান্ড আবেদন শেষে শনিবার সন্ধ্যায় মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে উখিয়া থানায় দায়েরকৃত মামলায় (নম্বর-১২৬) তিনজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আগামীকাল রোববার আদালতে এ মামলার শুনানি হবে।

কক্সবাজার কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক চন্দন কুমার সরকার এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আদালতে পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের রিমান্ড আবেদন করেছে, আগামীকাল শুনানি হবে।

এর আগে আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে শনিবার সকালে উখিয়ার লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১ ইস্ট থেকে জিয়াউর রহমান ও আব্দুস সালাম নামে দুই রোহিঙ্গাকে আটক করে এপিবিএন-১৪। তা আগে শুক্রবার সকালে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৬ থেকে সেলিম নামের এক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। তবে শওকত উল্লাহকে কখন আটক করা হয় তা জানা যায়নি।

গত বুধবার রাত পৌনে ৯ টার দিকে উখিয়ায় কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় ইস্ট-ওয়েস্ট ১ নম্বর ব্লকের বাড়ির সামনে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহকে গুলি করে হত্যা কর হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনকে আসামি করে উখিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন নিহত মুহিবুল্লাহর ছোট ভাই মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন