বিয়ের প্রলোভনে ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ
jugantor
বিয়ের প্রলোভনে ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ

  ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  

০৪ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩০:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বিয়ের প্রলোভনে এক মাদ্রাসাছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার ওই ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে ফুলবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগে জানা যায়, দক্ষিণ সোনাইকাজি গ্রামের খোশবর আলীর ছেলে ফরহাদ মিয়া চাঁদের (২০) সঙ্গে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সম্পর্ক চলাকালীন ফরহাদ মিয়া বিয়ের প্রলোভনে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ছাত্রীর মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে ফরহাদ তার ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক আবারো ধর্ষণ করে।

এ সময় ফরহাদ তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয়। পরে ছাত্রী কান্নাকাটি শুরু করলে স্থানীয় লোকজন ফরহাদকে আটক করেন। ছেলে আটকের খবর ছড়িয়ে পড়লে ফরহাদের পরিবারের লোকজন এসে ফরহাদকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। উপায়ন্ত না পেয়ে ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে রোববার ফুলবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

ছাত্রীর মা বলেন, ফরহাদ আমার মেয়ের সর্বনাশ করেছে। আমি এর উপযুক্ত বিচার চাই।

কথা বলতে ফরহাদ মিয়া চাঁদের নম্বরে একাধিকবার কল করা হলে নম্বর বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিয়ের প্রলোভনে ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ

 ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি 
০৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বিয়ের প্রলোভনে এক মাদ্রাসাছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার ওই ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে ফুলবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করে। 

অভিযোগে জানা যায়, দক্ষিণ সোনাইকাজি গ্রামের খোশবর আলীর ছেলে ফরহাদ মিয়া চাঁদের (২০) সঙ্গে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সম্পর্ক চলাকালীন ফরহাদ মিয়া বিয়ের প্রলোভনে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ছাত্রীর মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে ফরহাদ তার ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক আবারো ধর্ষণ করে।

এ সময় ফরহাদ তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয়। পরে ছাত্রী কান্নাকাটি শুরু করলে স্থানীয় লোকজন ফরহাদকে আটক করেন। ছেলে আটকের খবর ছড়িয়ে পড়লে ফরহাদের পরিবারের লোকজন এসে ফরহাদকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। উপায়ন্ত না পেয়ে ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে রোববার ফুলবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

ছাত্রীর মা বলেন, ফরহাদ আমার মেয়ের সর্বনাশ করেছে। আমি এর উপযুক্ত বিচার চাই।

কথা বলতে ফরহাদ মিয়া চাঁদের নম্বরে একাধিকবার কল করা হলে নম্বর বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি। 

ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন