সড়কে ঝরল দুই ভাইয়ের প্রাণ
jugantor
সড়কে ঝরল দুই ভাইয়ের প্রাণ

  রাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

০৪ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৫৩:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় অটোরিকশা চালকসহ আরও দুইজন আহত হয়েছেন। তারা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সোমবার ভোর ৬টার দিকে কাপ্তাই সড়কের রাঙ্গুনিয়ার শেখ এভিয়ারি পার্ক সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার চন্দ্রঘোনা-কদমতলী ইউনিয়নের শ্যামাপাড়া এলাকার সুধীর দাশের ছেলে রতন দাশ (৬০) ও তার ছোটভাই টুন্টু দাশ (৪২)। আহতরা হলেন- অটোরিকশাচালক চন্দ্রঘোনা খন্দকারপাড়া এলাকার দুলু মিয়ার ছেলে আবদুল করিম (৫০) এবং একই ইউনিয়নের আধুরপাড়া গ্রামের এখলাস মিয়ার ছেলে আবদুল গফুর (৫০)।

একসঙ্গে আপন দুই ভাইয়ের মৃত্যুতে স্তব্ধ গোটা শ্যামাপাড়া গ্রাম। দুই সহোদর নিহত হওয়ার খবরটি গ্রামে পৌঁছামাত্রই শুরু হয় মাতম।

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউপি চেয়ারম্যান ইদ্রিস আজগর বলেন, নিহত রতন ও টুন্টু দাশ সোমবার সকালে সিএনজি অটোরিকশাযোগে রাঙ্গুনিয়া থেকে কাপ্তাই ফিসারিঘাটে বিক্রির জন্য মাছ আনতে যাচ্ছিলেন। গাড়িতে ছিল অপর মাছ ব্যবসায়ী আব্দুল গফুর। গাড়িটি কাপ্তাই সড়কের চন্দ্রঘোনা শেখ রাসেল এভিয়ারি পার্ক এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই রতন দাশের মৃত্যু হয়। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১২টার দিকে মারা যায় অপর ভাই টুন্টু দাশ।

নিহতদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তারা বংশপরম্পরায় মাছ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। প্রতিদিন কাপ্তাই থেকে মাছ এনে তা রাঙ্গুনিয়ার বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

এ বিষয়ে রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মো. মাহবুব মিল্কী বলেন, ট্রাকটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

সড়কে ঝরল দুই ভাইয়ের প্রাণ

 রাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
০৪ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় অটোরিকশা চালকসহ আরও দুইজন আহত হয়েছেন। তারা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সোমবার ভোর ৬টার দিকে কাপ্তাই সড়কের রাঙ্গুনিয়ার শেখ এভিয়ারি পার্ক সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার চন্দ্রঘোনা-কদমতলী ইউনিয়নের শ্যামাপাড়া এলাকার সুধীর দাশের ছেলে রতন দাশ (৬০) ও তার ছোটভাই টুন্টু দাশ (৪২)। আহতরা হলেন- অটোরিকশাচালক চন্দ্রঘোনা খন্দকারপাড়া এলাকার দুলু মিয়ার ছেলে আবদুল করিম (৫০) এবং একই ইউনিয়নের আধুরপাড়া গ্রামের এখলাস মিয়ার ছেলে আবদুল গফুর (৫০)।

একসঙ্গে আপন দুই ভাইয়ের মৃত্যুতে স্তব্ধ গোটা শ্যামাপাড়া গ্রাম। দুই সহোদর নিহত হওয়ার খবরটি গ্রামে পৌঁছামাত্রই শুরু হয় মাতম।

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউপি চেয়ারম্যান ইদ্রিস আজগর বলেন, নিহত রতন ও টুন্টু দাশ সোমবার সকালে সিএনজি অটোরিকশাযোগে রাঙ্গুনিয়া থেকে কাপ্তাই ফিসারিঘাটে বিক্রির জন্য মাছ আনতে যাচ্ছিলেন। গাড়িতে ছিল অপর মাছ ব্যবসায়ী আব্দুল গফুর। গাড়িটি কাপ্তাই সড়কের চন্দ্রঘোনা শেখ রাসেল এভিয়ারি পার্ক এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই রতন দাশের মৃত্যু হয়। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১২টার দিকে মারা যায় অপর ভাই টুন্টু দাশ।

নিহতদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তারা বংশপরম্পরায় মাছ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। প্রতিদিন কাপ্তাই থেকে মাছ এনে তা রাঙ্গুনিয়ার বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

এ বিষয়ে রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মো. মাহবুব মিল্কী বলেন, ট্রাকটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন