মেঘনায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন
jugantor
মেঘনায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

  মেঘনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

০৫ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৯:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার চালিভাঙা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল লতিফের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদসভা করেছেন এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার চালিভাঙা বাগবাজার এলাকায় এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন চালিভাঙা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আহসান উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক তোতা মিয়া, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক দুলাল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মমিন মিয়া, ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হোসেন আলী কালাই, সাধারণ সম্পাদক আমিন মিয়া ও সাবেক ইউপি সদস্যসহ আরও অনেকে।

বক্তারা আসন্ন ইউপি নির্বাচনে পুনরায় তাকে নৌকা প্রতীক না দেওয়ার দাবি জানিয়ে তার নানা অপকর্ম তুলে ধরে বক্তব্য দেন।

বক্তব্যে ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি খোকন দেওয়ান মেম্বার বলেন, লতিফ তার নিজের ভাগ্যের পরিবর্তন করেছেন, সরকারি খাসজমি দখল করে সুবিধা ভোগ করছেন। ইউনিয়ন পরিষদটি অকার্যকর অবস্থায় ফেলে রেখে তার বাড়িতে বেআইনিভাবে দাপ্তরিক কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন।

ইতিপূর্বে চেয়ারম্যানের নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে সাতজন ওয়ার্ড সদস্য তার বহিষ্কারের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আবেদন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, বিগত নির্বাচনে আবদুল লতিফ নৌকা প্রতীক পাওয়ায় আমরা তাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করি। কিন্তু তিনি চেয়ারম্যান হওয়ার পর এলাকার কোনো উন্নয়ন না করে তার নিজের উন্নয়ন শুরু করেন।

আর এটি করতে গিয়ে এলাকায় হামলা মামলাসহ হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনা ঘটান। তিনি তার প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে আমির হোসেন নামে এক ট্রলারচালককে হত্যা করান, যা দেশের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচারিত হয়েছিল।

এ ঘটনায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় তাকে বরখাস্তও করেছে। লতিফ সরকার চেয়ারম্যান হওয়ার পর অবৈধভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলন করেছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান আবদুল লতিফের বক্তব্য নেওয়ার জন্য বেশ কয়েকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মেঘনায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

 মেঘনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
০৫ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার চালিভাঙা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল লতিফের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদসভা করেছেন এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার চালিভাঙা বাগবাজার এলাকায় এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন চালিভাঙা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আহসান উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক তোতা মিয়া, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক দুলাল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মমিন মিয়া, ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হোসেন আলী কালাই, সাধারণ সম্পাদক আমিন মিয়া ও সাবেক ইউপি সদস্যসহ আরও অনেকে।

বক্তারা আসন্ন ইউপি নির্বাচনে পুনরায় তাকে নৌকা প্রতীক না দেওয়ার দাবি জানিয়ে তার নানা অপকর্ম তুলে ধরে বক্তব্য দেন।

বক্তব্যে ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি খোকন দেওয়ান মেম্বার বলেন, লতিফ তার নিজের ভাগ্যের পরিবর্তন করেছেন, সরকারি খাসজমি দখল করে সুবিধা ভোগ করছেন। ইউনিয়ন পরিষদটি অকার্যকর অবস্থায় ফেলে রেখে তার বাড়িতে বেআইনিভাবে দাপ্তরিক কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন।

ইতিপূর্বে চেয়ারম্যানের নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে সাতজন ওয়ার্ড সদস্য তার বহিষ্কারের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আবেদন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, বিগত নির্বাচনে আবদুল লতিফ নৌকা প্রতীক পাওয়ায় আমরা তাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করি। কিন্তু তিনি চেয়ারম্যান হওয়ার পর এলাকার কোনো উন্নয়ন না করে তার নিজের উন্নয়ন শুরু করেন।

আর এটি করতে গিয়ে এলাকায় হামলা মামলাসহ হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনা ঘটান। তিনি তার প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে আমির হোসেন নামে এক ট্রলারচালককে হত্যা করান, যা দেশের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচারিত হয়েছিল।

এ ঘটনায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় তাকে বরখাস্তও করেছে। লতিফ সরকার চেয়ারম্যান হওয়ার পর অবৈধভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলন করেছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান আবদুল লতিফের বক্তব্য নেওয়ার জন্য বেশ কয়েকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন