আনসার সদস্যের গলায় ছুরি ধরে ছিনতাই, অবস্থা আশঙ্কাজনক
jugantor
আনসার সদস্যের গলায় ছুরি ধরে ছিনতাই, অবস্থা আশঙ্কাজনক

  কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

০৬ অক্টোবর ২০২১, ১৫:০০:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

আনসার সদস্যের গলায় ছুরি ধরে ছিনতাই, অবস্থা আশঙ্কাজনক

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় মো. রনি হাওলাদার (২৮) নামে এক আনসার সদস্যকে গলায় ছুরি ধরে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার আলীপুর বাজারের আমখোলাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত আনসার সদস্য রনি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়নের দিকপাশা গ্রামের শাহ আলম হাওলাদারের ছেলে।

ঘটনার পর রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসকরা।

কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক কামরুন্নাহার মিলি জানান, আহত রনির অবস্থা আশঙ্কাজনক। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার গলার ডানদিকের শিরা কেটে যাওয়ায় প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাকে বরিশালে পাঠানো হয়েছে।

সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনে দায়িত্বরত আনসার সদস্য জাকির জানান, রাতে সে বুথ থেকে টাকা উঠানোর পর ক্যাম্পে ফেরার পথে মোটরসাইকেলে করে আসা দুই-তিনজন দুর্বৃত্ত তার গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত করে। তার থেকে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এর পর তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মহিপুর থানার ওসি মো. আবুল খায়ের জানান, আহত রনি কলাপাড়ায় নির্মিত দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের আনসার সদস্য হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। কারা বা কি কারণে এ হামলা করেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনায় জড়িতদের দ্রুতই গ্রেফতার করা হবে।

আনসার সদস্যের গলায় ছুরি ধরে ছিনতাই, অবস্থা আশঙ্কাজনক

 কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
০৬ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আনসার সদস্যের গলায় ছুরি ধরে ছিনতাই, অবস্থা আশঙ্কাজনক
ফাইল ছবি

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় মো. রনি হাওলাদার (২৮) নামে এক আনসার সদস্যকে গলায় ছুরি ধরে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার আলীপুর বাজারের আমখোলাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত আনসার সদস্য রনি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়নের দিকপাশা গ্রামের শাহ আলম হাওলাদারের ছেলে।

ঘটনার পর রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসকরা।

কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক কামরুন্নাহার মিলি জানান, আহত রনির অবস্থা আশঙ্কাজনক। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার গলার ডানদিকের শিরা কেটে যাওয়ায় প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাকে বরিশালে পাঠানো হয়েছে।

সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনে দায়িত্বরত আনসার সদস্য জাকির জানান, রাতে সে বুথ থেকে টাকা উঠানোর পর ক্যাম্পে ফেরার পথে মোটরসাইকেলে করে আসা দুই-তিনজন দুর্বৃত্ত তার গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত করে। তার থেকে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এর পর তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মহিপুর থানার ওসি মো. আবুল খায়ের জানান, আহত রনি কলাপাড়ায় নির্মিত দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের আনসার সদস্য হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। কারা বা কি কারণে এ হামলা করেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনায় জড়িতদের দ্রুতই গ্রেফতার করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন