মায়ের সামনেই মারা গেল অনিক
jugantor
মায়ের সামনেই মারা গেল অনিক

  মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  

০৬ অক্টোবর ২০২১, ২২:০৫:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদনে ফ্যানে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে গিয়ে মায়ের সামনেই অনিক (১২) নামে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্র মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। বুধবার বিকালে উপজেলা খাগুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অনিক খাগুরিয়া গ্রামের অনু মিয়ার ছেলে। সে খাগুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত অনিকের বসত ঘরের সিলিং ফ্যান নষ্ট হয়ে যায়। এ সময় অন্য আরেকটি সিলিং ফ্যান একই স্থানে স্থাপন করতে চাইলে অনিক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তাৎক্ষণিক তাকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই সে মারা গেছে বলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আব্বাস মিয়া জানান।

ওসি মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিশু মারা গেছে খবর শুনে পুলিশ প্রেরণ করেছি। তবে শুনেছি তার মায়ের সামনেই এ ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বুলবুল আহমেদ শিশুটির মৃত্যুর সংবাদ শোনে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, পরিবারের লোকজন আবেদন করলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিশুটির পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা করা হবে।

মায়ের সামনেই মারা গেল অনিক

 মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি 
০৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদনে ফ্যানে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে গিয়ে মায়ের সামনেই অনিক (১২) নামে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্র মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। বুধবার বিকালে উপজেলা খাগুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অনিক খাগুরিয়া গ্রামের অনু মিয়ার ছেলে। সে খাগুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত অনিকের বসত ঘরের সিলিং ফ্যান নষ্ট হয়ে যায়। এ সময় অন্য আরেকটি সিলিং ফ্যান একই স্থানে স্থাপন করতে চাইলে অনিক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তাৎক্ষণিক তাকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই সে মারা গেছে বলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আব্বাস মিয়া জানান।

ওসি মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিশু মারা গেছে খবর শুনে পুলিশ প্রেরণ করেছি। তবে শুনেছি তার মায়ের সামনেই এ ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বুলবুল আহমেদ শিশুটির মৃত্যুর সংবাদ শোনে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, পরিবারের লোকজন আবেদন করলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিশুটির পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন