স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী, মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে ছিনতাইচেষ্টা
jugantor
স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী, মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে ছিনতাইচেষ্টা

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

০৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪০:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী, মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে ছিনতাইচেষ্টা

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী সেজে ওঠেন দুজন। এর পর চালককে মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে কুমার নদের পাড়ে ফেলে রেখে ইজিবাইক ছিনতাইয়ের চেষ্টা করা হয়। এ ঘটনায় ইজিবাইকসহ ছিনতাই চক্রের এক নারী সদস্যসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার টেকেরহাট বন্দর থেকে ওই দুজনকে আটক করা হয়। বৃহস্পতিবার তাদের বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আটক ছিনতাইকারীরা হলো— রাজৈর উপজেলার শাখারপাড় গ্রামের মামুনের স্ত্রী শারমিন আক্তার ও মাগুরা জেলা সদরের হাজরাপুর গ্রামের রওশন মিয়ার ছেলে হৃদয় মিয়া (২৬)।

ইজিবাইকচালক সোহান শেখকে (২০) গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মাগুরা সদরের হাজরাপুর গ্রামের হৃদয় নামে এক ব্যক্তি স্ত্রী পরিচয় দিয়ে শারমিনকে নিয়ে রাজৈর উপজেলার চরমস্তফাপুর এলাকা থেকে ইজিবাইক ভাড়া করে টেকেরহাটের দিকে রওনা হয়।

পথিমধ্যে চালক সোহান তালুকদারকে মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে কুমার নদের পাড়ে ফেলে দিয়ে হৃদয় নিজে ইজিবাইক চালিয়ে টেকেরহাটের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় স্থানীয় জনতা টের পেয়ে ধাওয়া করে হৃদয় ও শারমিনকে ইজিবাইকসহ আটক করে।

পরে জনতা হৃদয়কে গণপিটুনি দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায় এবং শারমিন আক্তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় গণপিটুনি থেকে রক্ষা পায়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে দুজনকে আটক করে।

ইজিবাইকচালক সোহান শেখকে গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

রাজৈর থানার এসআই মীর নাজমুল হোসেন জানান, আটক ছিনতাইকারী নারীসহ দুজনকে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞআদালতে পাঠানো হয়।

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী, মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে ছিনতাইচেষ্টা

 টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
০৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী, মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে ছিনতাইচেষ্টা
ছবি: যুগান্তর

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ইজিবাইকে যাত্রী সেজে ওঠেন দুজন। এর পর চালককে মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে কুমার নদের পাড়ে ফেলে রেখে ইজিবাইক ছিনতাইয়ের চেষ্টা করা হয়। এ ঘটনায়  ইজিবাইকসহ ছিনতাই চক্রের এক নারী সদস্যসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। 

বুধবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার টেকেরহাট বন্দর থেকে ওই দুজনকে আটক করা হয়। বৃহস্পতিবার তাদের বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আটক ছিনতাইকারীরা হলো— রাজৈর উপজেলার শাখারপাড় গ্রামের মামুনের স্ত্রী শারমিন আক্তার ও মাগুরা জেলা সদরের হাজরাপুর গ্রামের রওশন মিয়ার ছেলে হৃদয় মিয়া (২৬)। 

ইজিবাইকচালক সোহান শেখকে (২০) গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মাগুরা সদরের হাজরাপুর গ্রামের হৃদয় নামে এক ব্যক্তি স্ত্রী পরিচয় দিয়ে শারমিনকে নিয়ে রাজৈর উপজেলার চরমস্তফাপুর এলাকা থেকে ইজিবাইক ভাড়া করে টেকেরহাটের দিকে রওনা হয়। 

পথিমধ্যে চালক সোহান তালুকদারকে মিষ্টি খাইয়ে অজ্ঞান করে কুমার নদের পাড়ে ফেলে দিয়ে হৃদয় নিজে ইজিবাইক চালিয়ে টেকেরহাটের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় স্থানীয় জনতা টের পেয়ে ধাওয়া করে হৃদয় ও শারমিনকে ইজিবাইকসহ আটক করে। 

পরে জনতা হৃদয়কে গণপিটুনি দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায় এবং শারমিন আক্তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় গণপিটুনি থেকে রক্ষা পায়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে দুজনকে আটক করে। 

ইজিবাইকচালক সোহান শেখকে গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

রাজৈর থানার এসআই মীর নাজমুল হোসেন জানান, আটক ছিনতাইকারী নারীসহ দুজনকে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞআদালতে পাঠানো হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন