গর্ভধারণের চিকিৎসার নামে গৃহবধূকে ধর্ষণ, কবিরাজ গ্রেফতার
jugantor
গর্ভধারণের চিকিৎসার নামে গৃহবধূকে ধর্ষণ, কবিরাজ গ্রেফতার

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি  

০৭ অক্টোবর ২০২১, ২২:১২:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজবাড়ী জেলা সদরের খানখানাপুর এলাকায় গর্ভধারণের চিকিৎসার নামে এক গৃহবধূকে (২০) দফায় দফায় ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক কবিরাজের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রাজবাড়ী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন।

এ ব্যাপারে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে রাজবাড়ী সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত কবিরাজ আব্দুল কুদ্দুস শেখকে (৬০) গ্রেফতার করে বুধবার আদালতে সোপর্দ করেছে।

মামলার অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, ৪ বছর পূর্বে ভিকটিম গৃহবধূর বিয়ে হয়। কিন্তু সন্তান না হওয়ায় তিনি বিভিন্ন জায়গায় ডাক্তারি ও কবিরাজি চিকিৎসা গ্রহণ করতে থাকেন। তাতেও গর্ভধারণ করতে না পেরে খানখানাপুর মধ্যডাঙ্গা এলাকার মৃত নছর উদ্দিন শেখের ছেলে কবিরাজ আব্দুল কুদ্দুস শেখের কাছ থেকে ২ মাস চিকিৎসা গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে চিকিৎসার অগ্রগতির খোঁজ নেওয়ার ছলে ওই গৃহবধূর বাসায় এসে গর্ভধারণের প্রলোভন দেখিয়ে কয়েক দফায় তাকে ধর্ষণ করে।

রাজবাড়ী থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে বুধবার রাতে খানখানাপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশের সহযোগিতায় অভিযুক্ত কবিরাজ আব্দুল কুদ্দুস শেখকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

গর্ভধারণের চিকিৎসার নামে গৃহবধূকে ধর্ষণ, কবিরাজ গ্রেফতার

 রাজবাড়ী প্রতিনিধি 
০৭ অক্টোবর ২০২১, ১০:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজবাড়ী জেলা সদরের খানখানাপুর এলাকায় গর্ভধারণের চিকিৎসার নামে এক গৃহবধূকে (২০) দফায় দফায় ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক কবিরাজের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রাজবাড়ী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন।

এ ব্যাপারে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে রাজবাড়ী সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত কবিরাজ আব্দুল কুদ্দুস শেখকে (৬০) গ্রেফতার করে বুধবার আদালতে সোপর্দ করেছে।

মামলার অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, ৪ বছর পূর্বে ভিকটিম গৃহবধূর বিয়ে হয়। কিন্তু সন্তান না হওয়ায় তিনি বিভিন্ন জায়গায় ডাক্তারি ও কবিরাজি চিকিৎসা গ্রহণ করতে থাকেন। তাতেও গর্ভধারণ করতে না পেরে খানখানাপুর মধ্যডাঙ্গা এলাকার মৃত নছর উদ্দিন শেখের ছেলে কবিরাজ আব্দুল কুদ্দুস শেখের কাছ থেকে ২ মাস চিকিৎসা গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে চিকিৎসার অগ্রগতির খোঁজ নেওয়ার ছলে ওই গৃহবধূর বাসায় এসে গর্ভধারণের প্রলোভন দেখিয়ে কয়েক দফায় তাকে ধর্ষণ করে।

রাজবাড়ী থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে বুধবার রাতে খানখানাপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশের সহযোগিতায় অভিযুক্ত কবিরাজ আব্দুল কুদ্দুস শেখকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন